তিন বোনই দেশ সেরা সাফল্য ভাসছে জেলা » NewsBijoy24 । Online Newspaper of Bangladesh.
ঢাকা ০৬:৩৪ পূর্বাহ্ন, মঙ্গলবার, ০৫ মার্চ ২০২৪, ২২ ফাল্গুন ১৪৩০ বঙ্গাব্দ

https://www.newsbijoy24.com/

লালমনিরহাটের আদিতমারী উপজেলায়

তিন বোনই দেশ সেরা সাফল্য ভাসছে জেলা

পৃথক প্রতিযোগিতায় দেশ সেরা হওয়ার গৌরব অর্জন করেছে লালমনিরহাটের একই পরিবারের তিন বোন।

এরা হলো, লালমনিরহাটের আদিতমারী উপজেলা সদরের বসিনটারী এলাকার ফখরুল আজম সিপন ও জান্নাত আরা পারভীন দম্পতির মেয়ে ফারিহা আজম শিফা, ফাবিহা আজম শিন ও ফাহিমা আজম শাকী। তাদের বাবা ফখরুল আজম শিপন উপ সহকারী কৃষি কর্মকর্তা ও মা জান্নাত আরা পারভীন ভাদাই জিএস মডেল সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক।

তাদের মধ্যে ফারিহা আজম শিফা সবার বড়। সে সরকারী আদিতমারী জিএস মডেল উচ্চ বিদ্যালয়ের দশম শ্রেণির শিক্ষার্থী। মেঝ ফাবিহা আজম শিন ভাদাই জিএস মডেল সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের চতুর্থ শ্রেণি এবং ছোট ফাহিমা আজম শাকী একই বিদ্যালয়ের তৃতীয় শ্রেণির শিক্ষার্থী।

জানা গেছে, ফখরুল আজম সিপন ও জান্নাত আরা পারভীন দম্পতির সংসারে তিন মেয়ের সবাই অত্যান্ত মেধাবী। পড়া লেখার পাশাপাশি বিভিন্ন প্রতিযোগিতায় অংশ নিয়ে কৃতিত্ব অর্জন করে ইতোমধ্যে জেলা বিভাগে আলোচনার ঝড় তুলে দেশ সেরা হওয়ার গৌরব অর্জন করেছে।

তাদের মধ্যে বড় ফারিহা আজম শিফা বেগম রোকেয়া দিবস উপলক্ষে জাতীয় পর্যয়ে চিত্রাংকন প্রতিযোগিতা ২০২২ এ গার্ল ইন স্কাউট গ্রুপে প্রথম স্থান অর্জন করেছে। একই প্রতিযোগিতায় গার্ল ইন কাব গ্রুপে চিত্রাংকনে প্রথম হয়েছে ছোট বোন ফাহিমা আজম শাকী। এ ছাড়াও দুই বোনই চলমান জাতীয় মেধা অন্বেষণ প্রতিযোগিতা ২০২৩ এ চিত্রাংকনে অঞ্চল সেরা হয়ে জাতীয় পর্যয়ে অংশ নেয়ার প্রস্তুতি চলছে তাদের। এ প্রতিযোগিতায়ও দুই বোনে দেশ সেরা হওয়া আশা।

মেঝ বোন ফাবিহা আজম শিন জাতীয় মেধা অন্বেষন ২০২২ এ ক্বেরাত পাঠ গ্রুপে প্রথম হয়েছে। একই প্রতিযোগিতায় চলতি বছর ২০২৩ এ আবৃতিতে অঞ্চলে দ্বিতীয় হয় সে। এ ছাড়াও চলমান জাতীয় প্রাথমিক শিক্ষা পদক ২০২৩ এ ৩টি ইভেন্টে জেলার সেরা হওয়ার গৌরব অর্জন করে অঞ্চলে প্রতিযোগিতার প্রস্তুতি নিচ্ছে। ইভেন্টগুলো হলো একক অভিনয়, আবৃতি ও শ্রেষ্ঠ কাব শিশু।

বড় বোন ফারিহা আজম শিফা বলে, জীবনে বড় স্বপ্ন ছিল দেশসেরা হয়ে মহামান্য রাস্ট্রপতি বা মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর হাত থেকে পুরুস্কার ও সদন গ্রহনের। মহান আল্লাহর রহমতে তিন বোনই দেশ সেরা হয়েছি। এখন স্বপ্ন রাস্ট্রপতি বা প্রধানমন্ত্রীর হাত থেকে পুরুস্কার গ্রহন করা। আশা করি সে স্বপ্নও একদিন পুরন হবে।

ফখরুল আজম সিপন ও জান্নাত আরা পারভীন দম্পতির তিন মেয়ের প্রশংসায় ভাসছে গোটা জেলা। এ দম্পতিকে গর্বিত পিতা মাতা হিসেবেই ডাকতে শুরু করেছেন স্থানীয়রা।

মেয়েদের কৃতিত্বের বিষয়ে বাবা ফখরুল আজম সিপন ও মা জান্নাত আরা পারভীন বলেন, আমাদের সংসারে কোন ছেলে সন্তান নেই। তিন মেয়েই আমাদের সম্পত্তি। তাদের সাফল্য আমাদেরকে গর্বিত করেছে। ছোট বেলা থেকেই যে কোন প্রতিযোগিতায় তারা অংশ গ্রহন করত। তাদের স্বপ্ন ছিল দেশসেরা হওয়ার গৌরব অর্জন করা। তাদের সেই স্বপ্ন পুরন হয়েছে। সন্তানদের উত্তোরত্তর সাফল্যের জন্য সবার কাছে দোয়া চান তারা।

আদিতমারী উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা(ইউএনও) জি আর সারোয়ার বলেন, তাদের তিন বোনের কৃতিত্বে শুধু জেলাবাসীই নয় গোটা রংপুর বিভাগের মানুষ আমরা গর্বিত। তাদের এ সাফল্য ধরে রাখতে সকল ধরনের সহযোগিতা উপজেলা পরিষদ করে আসছে আগামী দিনেও অব্যাহত থাকবে। তাদের সাফল্য কামনা করেন তিনি।

নিউজবিজয়২৪/এফএইচএন

নিউজবিজয় ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন

আপনার সোস্যাল মিডিয়ায় শেয়ার দিন।

NewsBijoy24.Com

নিউজবিজয়২৪.কম একটি অনলাইন নিউজ পোর্টাল। বস্তুনিষ্ঠ ও তথ্যভিত্তিক সংবাদ প্রকাশের প্রতিশ্রুতি নিয়ে ২০১৫ সালের ডিসেম্বর মাসে এটি প্রতিষ্ঠিত হয়। উৎসর্গ করলাম আমার বাবার নামে, যাঁর স্নেহ-সান্নিধ্যের পরশ পরিবারের সুখ-দু:খ,হাসি-কান্না,ব্যথা-বেদনার মাঝেও আপার শান্তিতে পরিবার তথা সমাজে মাথা উচুঁ করে নিজের অস্তিত্বকে মেলে ধরতে পেরেছি।

https://www.newsbijoy24.com/

ইতিহাসের এই দিনে: ৫ মার্চ: ২০২৪

Advertisement

লালমনিরহাটের আদিতমারী উপজেলায়

তিন বোনই দেশ সেরা সাফল্য ভাসছে জেলা

প্রকাশিত সময় :- ০৭:১৯:৪৯ অপরাহ্ন, সোমবার, ৬ মার্চ ২০২৩

পৃথক প্রতিযোগিতায় দেশ সেরা হওয়ার গৌরব অর্জন করেছে লালমনিরহাটের একই পরিবারের তিন বোন।

এরা হলো, লালমনিরহাটের আদিতমারী উপজেলা সদরের বসিনটারী এলাকার ফখরুল আজম সিপন ও জান্নাত আরা পারভীন দম্পতির মেয়ে ফারিহা আজম শিফা, ফাবিহা আজম শিন ও ফাহিমা আজম শাকী। তাদের বাবা ফখরুল আজম শিপন উপ সহকারী কৃষি কর্মকর্তা ও মা জান্নাত আরা পারভীন ভাদাই জিএস মডেল সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক।

তাদের মধ্যে ফারিহা আজম শিফা সবার বড়। সে সরকারী আদিতমারী জিএস মডেল উচ্চ বিদ্যালয়ের দশম শ্রেণির শিক্ষার্থী। মেঝ ফাবিহা আজম শিন ভাদাই জিএস মডেল সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের চতুর্থ শ্রেণি এবং ছোট ফাহিমা আজম শাকী একই বিদ্যালয়ের তৃতীয় শ্রেণির শিক্ষার্থী।

জানা গেছে, ফখরুল আজম সিপন ও জান্নাত আরা পারভীন দম্পতির সংসারে তিন মেয়ের সবাই অত্যান্ত মেধাবী। পড়া লেখার পাশাপাশি বিভিন্ন প্রতিযোগিতায় অংশ নিয়ে কৃতিত্ব অর্জন করে ইতোমধ্যে জেলা বিভাগে আলোচনার ঝড় তুলে দেশ সেরা হওয়ার গৌরব অর্জন করেছে।

তাদের মধ্যে বড় ফারিহা আজম শিফা বেগম রোকেয়া দিবস উপলক্ষে জাতীয় পর্যয়ে চিত্রাংকন প্রতিযোগিতা ২০২২ এ গার্ল ইন স্কাউট গ্রুপে প্রথম স্থান অর্জন করেছে। একই প্রতিযোগিতায় গার্ল ইন কাব গ্রুপে চিত্রাংকনে প্রথম হয়েছে ছোট বোন ফাহিমা আজম শাকী। এ ছাড়াও দুই বোনই চলমান জাতীয় মেধা অন্বেষণ প্রতিযোগিতা ২০২৩ এ চিত্রাংকনে অঞ্চল সেরা হয়ে জাতীয় পর্যয়ে অংশ নেয়ার প্রস্তুতি চলছে তাদের। এ প্রতিযোগিতায়ও দুই বোনে দেশ সেরা হওয়া আশা।

মেঝ বোন ফাবিহা আজম শিন জাতীয় মেধা অন্বেষন ২০২২ এ ক্বেরাত পাঠ গ্রুপে প্রথম হয়েছে। একই প্রতিযোগিতায় চলতি বছর ২০২৩ এ আবৃতিতে অঞ্চলে দ্বিতীয় হয় সে। এ ছাড়াও চলমান জাতীয় প্রাথমিক শিক্ষা পদক ২০২৩ এ ৩টি ইভেন্টে জেলার সেরা হওয়ার গৌরব অর্জন করে অঞ্চলে প্রতিযোগিতার প্রস্তুতি নিচ্ছে। ইভেন্টগুলো হলো একক অভিনয়, আবৃতি ও শ্রেষ্ঠ কাব শিশু।

বড় বোন ফারিহা আজম শিফা বলে, জীবনে বড় স্বপ্ন ছিল দেশসেরা হয়ে মহামান্য রাস্ট্রপতি বা মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর হাত থেকে পুরুস্কার ও সদন গ্রহনের। মহান আল্লাহর রহমতে তিন বোনই দেশ সেরা হয়েছি। এখন স্বপ্ন রাস্ট্রপতি বা প্রধানমন্ত্রীর হাত থেকে পুরুস্কার গ্রহন করা। আশা করি সে স্বপ্নও একদিন পুরন হবে।

ফখরুল আজম সিপন ও জান্নাত আরা পারভীন দম্পতির তিন মেয়ের প্রশংসায় ভাসছে গোটা জেলা। এ দম্পতিকে গর্বিত পিতা মাতা হিসেবেই ডাকতে শুরু করেছেন স্থানীয়রা।

মেয়েদের কৃতিত্বের বিষয়ে বাবা ফখরুল আজম সিপন ও মা জান্নাত আরা পারভীন বলেন, আমাদের সংসারে কোন ছেলে সন্তান নেই। তিন মেয়েই আমাদের সম্পত্তি। তাদের সাফল্য আমাদেরকে গর্বিত করেছে। ছোট বেলা থেকেই যে কোন প্রতিযোগিতায় তারা অংশ গ্রহন করত। তাদের স্বপ্ন ছিল দেশসেরা হওয়ার গৌরব অর্জন করা। তাদের সেই স্বপ্ন পুরন হয়েছে। সন্তানদের উত্তোরত্তর সাফল্যের জন্য সবার কাছে দোয়া চান তারা।

আদিতমারী উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা(ইউএনও) জি আর সারোয়ার বলেন, তাদের তিন বোনের কৃতিত্বে শুধু জেলাবাসীই নয় গোটা রংপুর বিভাগের মানুষ আমরা গর্বিত। তাদের এ সাফল্য ধরে রাখতে সকল ধরনের সহযোগিতা উপজেলা পরিষদ করে আসছে আগামী দিনেও অব্যাহত থাকবে। তাদের সাফল্য কামনা করেন তিনি।

নিউজবিজয়২৪/এফএইচএন