মঙ্গলবার , ২৯ জানুয়ারি ২০১৯ | ২২শে আশ্বিন, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ
  1. আইন ও অপরাধ
  2. আজকের আবহাওয়া পূর্বাভাস
  3. আন্তর্জাতিক
  4. আপনার স্বাস্থ্য
  5. ইতিহাসের এই দিনে
  6. উত্তরাঞ্চলের খবর
  7. উপজেলা পরিষদ নির্বাচন
  8. কৃষি, অর্থ ও বাণিজ্য
  9. খেলাধুলা
  10. চাকরির খবর
  11. দেশ প্রতিদিন
  12. ধর্ম ও জীবন
  13. নারী ও শিশু
  14. প্রতিদিনের কথা
  15. প্রতিদিনের রাশিফল

বেরোবির দুই সাংবাদিককে ছাত্রলীগ নেতার মারধর 

প্রতিবেদক
admin2022
জানুয়ারি ২৯, ২০১৯ ১০:৩৮ অপরাহ্ণ

মোঃ রোমানুজ্জামান (বেরোবি): রোকেয়া বিশ্ববিদ্যালয়ে (বেরোবি) দৈনিক সংবাদের প্রতিনিধি আল আমীন ও বাংলাদেশ প্রতিদিনের প্রতিনিধি সৌম্য সরকারকে মারধর করেছে ছাত্রলীগ নেতা মাহমুদ হাসান জয়। মাহমুদ হাসান জয় বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রলীগের সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক। মঙ্গলবার বিকেলে শহীদ মুখতার ইলাহী হলের তৃতীয় তলায় এঘটনা ঘটে।

মারধরের শিকার দুই সাংবাদিক আল আমীন বলেন, গত বছরের সেপ্টেম্বর মাসে ওই হলে আসন বরাদ্দ পান তিনি। দীর্ঘদিন থেকে তিনি ওই আসনে উঠতে পারছিলেন না। তাই আজ এবিষয়ে কথা বলার জন্য তিনি বাংলাদেশ প্রতিদিনের প্রতিনিধি সৌম্য সাথে নিয়ে শাখা ছাত্রলীগের সভাপতি তুষার কিবরিয়া ও হল সভপতি হাসান আলীর সাথে দেখা করতে যান। ছাত্রলীগের সভাপতি তুষার কিবরিয়া তাকে একটি ছিটে উঠতে বলেন। পরে তার কথামত তারা ছিটে উঠতে গেলে প্রথমে সৌম্য সরকারকে কোনো কথা ছাড়াই মারধর শুরু করেন ছাত্রলীগ নেতা মাহমুদুল হাসান জয়। পরে তাকে সিড়ি থেকে ধাক্কা দিয়ে ফেলে দেয়া হয়। এসময় আল আমীন এগিয়ে গেলে তাকেও মারধর শুরু করেন জয়। তাকে মারতে মারতে তিন তলা থেকে নীচে নামিয়ে আনেন তিনি।

এসময় আল আমীন চিৎকার করলে জয়ের অনুসারী ছাত্রলীগ কর্মী রাসেল তার গলা চেপে ধরেন এবং চিৎকার করতে নিষেধ করেন। পরে কয়েক এসে তাদের দুইজনকে উদ্ধার করেন। তাদের চিৎকারে নীচে নেমে আসেন শাখা ছাত্রলীগের সভপতি তুষার কিবরিয়া ও হল সভাপতি হাসান আলী। তারা মারধরের শিকার সাংবাদিকদের ডেকে নিয়ে হলের গেস্ট রুমে বসিয়ে মাহমুদুল হাসান জয়ের কাছে মারধরের কারণ জানতে চান। এসময় তাদের উপরও তেড়ে আসেন জয়।

পরে ঘটনার জন্য ভুল শিকার করে ওই দুই সাংবাদিককে হলে উঠতে বলেন। এসময় জয় বলেন, মারধর করেছি যা করার করেন।

এবিষয়ে ছাত্রলীগ সভপতি তুষার কিবরিয়া বলেন, এটি অনাকাঙ্ক্ষিত ছিল। আমরা মীমাংসার চেষ্টা করছি।

সর্বশেষ - ফিচার