বুধবার , ২৬ ডিসেম্বর ২০১৮ | ২২শে আশ্বিন, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ
  1. আইন ও অপরাধ
  2. আজকের আবহাওয়া পূর্বাভাস
  3. আন্তর্জাতিক
  4. আপনার স্বাস্থ্য
  5. ইতিহাসের এই দিনে
  6. উত্তরাঞ্চলের খবর
  7. উপজেলা পরিষদ নির্বাচন
  8. কৃষি, অর্থ ও বাণিজ্য
  9. খেলাধুলা
  10. চাকরির খবর
  11. দেশ প্রতিদিন
  12. ধর্ম ও জীবন
  13. নারী ও শিশু
  14. প্রতিদিনের কথা
  15. প্রতিদিনের রাশিফল

হাতীবান্ধায় বিএনপি’র ৩৭ নেতাকর্মীকে জেল হাজতে প্রেরণ

প্রতিবেদক
admin2022
ডিসেম্বর ২৬, ২০১৮ ৫:৪৮ অপরাহ্ণ

লালমনিরহাট প্রতিনিধি: লালমনিরহাটের হাতীবান্ধায় আটককৃতদের মধ্যে ৩৭ নেতাকর্মীকে জেল হাজতে প্রেরণ করা হয়েছে। অপর ৪২জনকে জিজ্ঞাসাবাদ শেষে ছেড়ে দিয়েছে পুলিশ। গত মঙ্গলবার উপজেলার ভেলাগুড়ি ইউনিয়নের ছাতুর দিঘীর এলাকায় এক বাড়ীতে উঠান বৈঠকের সময় তাদেরকে আটক করে স্থানীয় থানায় সোপর্দ করে বিজিবি ।বুধবার সকালে ৩৭ জনের বিরুদ্ধে সরকারি কাজে বাধা দান ও বিজিবি’র সঙ্গে অসৈজন্যমূলক আচরনের অভিযোগে মামলা রুজু হয়। বৃধবার তাদেরকে জেল হাজতে প্রেরণ করা হয়েছে। আটককৃতদের মধ্যে ভেলাগুড়ি ইউনিয়ন বিএনপি’র সভাপতি রাফিউদ্দারাজ রানু , সম্পাদক মতিয়ার রহমান বাদল ও সাংগঠনিক সম্পাদক আবুল কালাম আজাদ রয়েছে।

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, মঙ্গলবার হাতীবান্ধা উপজেলার ভেলাগুড়ি ইউনিয়নের উত্তর জাওরানী গ্রামের ছাতুর দিঘি বাজার সংলগ্ন এক বিএনপি নেতার বাড়িতে ধানের শীষ প্রতিকের উঠান বৈঠক চলাকালিন সময় বাড়িটি ঘিরে রাখে পার্শ্ববর্তী জাওরানী বর্ডার গার্ড বাংলাদেশের (বিজিবি) কাম্পের সদস্যরা। পরে থানা পুলিশ ঘটনাস্থলে উপস্থিত হয়ে মোট ৭৯ জনকে আটক করে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য বিকেল ৫ টার দিকে হাতীবান্ধা থানায় নিয়ে আসে। আটককৃতদের মধ্যে ৩৭ জনকে বুধবার সকালে জের হাজতে প্রেরণ করা হয়েছে।

এ বিষয়ে হাতীবান্ধা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা(ওসি) ওমর ফারুক সাংবাদিকদের জানান, ‘সীমান্ত এলাকায় বৈঠকের বিষয়টি সন্দেহ হলে বিজিবি ওই বৈঠকটি ঘিরে রেখে পুলিশকে খবর দেয়। সেখান থেকে ৭৯ জনকে জিজ্ঞসাবাদের জন্য থানায় নেয়া হয়। জিজ্ঞাসাবাদ শেষে ৩৭ জনের বিরুদ্ধে থানায় মামলা দায়ের করে অবশিষ্টদের ছেড়ে দেয়া হয়েছে।

এ ব্যাপারে বিএনপির প্রার্থী ব্যারিস্টার হাসান রাজীব প্রধান জানান, ‘ মঙ্গলবার বেলা ১১ টার দিকে ভেলাগুড়ি ইউনিয়নের ৭ নং ওয়ার্ডের ছাতুর দিঘী বাজার সংলগ্ন আমিনের বাড়িতে ধানের শীষের উঠান বৈঠক চলছিল। কিন্তু হঠাৎ করেই ওই বাড়িটি বিজিবি ঘিরে ফেলে। পরে সেখান থেকে বিএনপির বিভিন্ন পর্যায়ের ৭৯ জন নেতাকর্মীকে আটক করা থানায় নিয়ে আসা হয়েছে। এসব নেতাকর্মীদের কারও বিরুদ্ধে কোন গ্রেফতারি পরোয়ানা নেই উল্লেখ করে বিএনপি প্রার্থী রাজীব বলেন, বিষয়টি নিয়ে পুলিশের সাথে কথা বলছি।

জেলা রির্টানিং কর্মকর্তা ও লালমনিরহাট জেলা প্রশাসক শফিউল আরিফ সাংবাদিকদের জানান, ‘সীমান্ত এলাকায় বৈঠক করায় সন্দেহ জনক ভাবে বিজিবি তাদেরকে ঘিরে রেখে থানা পুলিশকে অবগত করে। তবে তারা কারা এবং কি কারনে বৈঠক করছিল। বিষয়টি তদন্ত করে পুলিশকে ব্যবস্থা নিতে বলা হয়েছে। তবে নির্দোষ লোককে গ্রেফতার না করতেও বলা হয়েছে বলে উল্লেখ করেন তিনি।”

সর্বশেষ - ফিচার