শুক্রবার , ২০ এপ্রিল ২০১৮ | ১৫ই আশ্বিন, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ
  1. আইন ও অপরাধ
  2. আজকের আবহাওয়া পূর্বাভাস
  3. আন্তর্জাতিক
  4. আপনার স্বাস্থ্য
  5. ইতিহাসের এই দিনে
  6. উত্তরাঞ্চলের খবর
  7. উপজেলা পরিষদ নির্বাচন
  8. কৃষি, অর্থ ও বাণিজ্য
  9. খেলাধুলা
  10. চাকরির খবর
  11. দেশ প্রতিদিন
  12. ধর্ম ও জীবন
  13. নারী ও শিশু
  14. প্রতিদিনের কথা
  15. প্রতিদিনের রাশিফল

আজ বিকেলে বিক্ষোভ মিছিল করবে শিক্ষার্থীরা

প্রতিবেদক
admin2022
এপ্রিল ২০, ২০১৮ ১২:০৬ অপরাহ্ণ

বিজয় ডেস্ক: ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের (ঢাবি) কবি সুফিয়া কামাল হল থেকে সামাজিক মাধ্যমে বিভ্রান্তিকর পোস্ট দেওয়ার অভিযোগে মুঠোফোন তল্লাশি করে গভীর রাতে সাধারণ ছাত্রীদের বের করে দেয়ার প্রতিবাদে আজ শুক্রবার বিকেলে বিক্ষোভ মিছিল করবে বাংলাদেশ সাধারণ ছাত্র অধিকার সংরক্ষণ পরিষদ।

গতকাল বৃহস্পতিবার দিবাগত গভীর রাতে সংগঠনের যুগ্ম আহ্বায়ক নুরুল হক নুর এ বিক্ষোভ কর্মসূচির ঘোষণা দেন।

নুরুল হক বলেন, ‘আমরা খবর পেয়েছি, রাত ১১টার পরেও অনেক ছাত্রী হল থেকে বের হয়ে গেছেন। ছাত্রীদের মোবাইল কেড়ে নেওয়া হয়েছিল। প্রাধ্যক্ষের কক্ষে অনেককে আটকে রাখা হয়েছিল। অভিভাবক ডেকে রাতের অন্ধকারে হল ছাড়তে বাধ্য করা হয়েছে।’

নুরুল হক আরও বলেন, ‘কোনো অপরাধ করলে বিশ্ববিদ্যালয়ের আইনানুযায়ী ব্যবস্থা নেবে, কিন্তু ছাত্রীদের এভাবে বের করে কর্তৃপক্ষ ভয়ংকর পরিস্থিতি সৃষ্টি করতে চাচ্ছে।’

এদিকে রাতে হল থেকে ছাত্রীদের বের করে প্রতিবাদে বাংলাদেশ সাধারণ ছাত্র অধিকার সংরক্ষণ পরিষদের আহ্বায়ক হাসান অাল মামুন ও যুগ্ম আহ্বায়ক নুরুল হক নুরের নেতৃত্বে বিক্ষোভ করে শিক্ষার্থীরা। এ সময় হল প্রাধ্যক্ষের পদত্যাগ চান তারা।

প্রসঙ্গত, সামাজিক মাধ্যমে বিভ্রান্তিকর পোস্ট দেওয়ার অভিযোগে মুঠোফোন তল্লাশি করে গভীর রাতে ছাত্রীদের বের করে দেয়া হয়েছে। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের কবি সুফিয়া কামাল হলের প্রাধ্যক্ষ সাবিতা রেজওয়ানা গতকাল বৃহস্পতিবার রাতে এই তথ্যের সত্যতা নিশ্চিত করেছেন।

হলের সাধারণ ছাত্রীরা কর্তৃপক্ষের এই পদক্ষেপের বিরোধিতা করে অভিযোগ করে বলেছে, সন্ধ্যার পর থেকে তাদেরকে বিভিন্নভাবে হয়রানি করা হয়। হুমকি দেয়া হয় হলচ্যুত করার। এছাড়াও মেয়েদের মুঠোফোন কেড়ে নিয়ে চেক করা হয়। বাড়িতে ফোন দিয়ে অভিভাবককে বকাঝকাও করেন প্রাধ্যক্ষ।

এ প্রসঙ্গে প্রাধ্যক্ষ সাবিতা রেজওয়ানা বলেন, ‘আমরা বেশ কয়েকজন ছাত্রীকে ডেকে তাদের মোবাইল চেক করেছি। তারা ফেসবুকে ফেক অ্যাকাউন্ট খুলে গুজব ছড়াচ্ছে। তাদের থেকে মুচলেকা নিয়েয়ে তাদের স্থানীয় অভিভাবকদের সঙ্গে পাঠিয়ে দিয়েছি।’

সর্বশেষ - ফিচার