মঙ্গলবার , ১৭ এপ্রিল ২০১৮ | ২২শে আশ্বিন, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ
  1. আইন ও অপরাধ
  2. আজকের আবহাওয়া পূর্বাভাস
  3. আন্তর্জাতিক
  4. আপনার স্বাস্থ্য
  5. ইতিহাসের এই দিনে
  6. উত্তরাঞ্চলের খবর
  7. উপজেলা পরিষদ নির্বাচন
  8. কৃষি, অর্থ ও বাণিজ্য
  9. খেলাধুলা
  10. চাকরির খবর
  11. দেশ প্রতিদিন
  12. ধর্ম ও জীবন
  13. নারী ও শিশু
  14. প্রতিদিনের কথা
  15. প্রতিদিনের রাশিফল

নাটোরের বড়াইগ্রামে একমঞ্চে ৪ এমপি, এ আসনে কুদ্দুসই হবেন আবারো নৌকার মাঝি

প্রতিবেদক
admin2022
এপ্রিল ১৭, ২০১৮ ১১:৪৯ অপরাহ্ণ

 

নাটোর প্রতিনিধি: সরকারের উন্নয়ন ও সফলতার ধারা অব্যহত রাখতে নৌকায় ভোট দেওয়ার আহ্বান জানিয়ে নাটোরের চারটি আসনের চারজন সংসদ সদস্য (একজন প্রতিমন্ত্রীসহ) একমঞ্চে উঠে সমাবেশ করেছেন। মঙ্গলবার বিকেলে নাটোরের বড়াইগ্রাম উপজেলা সদর বনপাড়ার কালিকাপুর সরকারী প্রাথমকি বিদ্যালয় মাঠে ঐতিহাসিক মুজিবনগর দিবস উপলক্ষে ওই সমাবেশের আয়োজন করে উপজেলা ও বনপাড়া পৌর আওয়ামীলীগসহ সকল সহযোগি সংগঠন।

বড়াইগ্রাম উপজেলা আওয়ামীলীগ সভাপতি আব্দুল জলিল প্রামাণিকের সভাপতিত্বে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় জেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি ও স্থানীয় সংসদ সদস্য অধ্যাপক আব্দুল কুদ্দুস বলেন, বঙ্গবন্ধুই বাংলাদেশ, তিনিই আমাদের পরিচয়। আর বঙ্গবন্ধু কণ্যা শেখ হাসিনা আধুনিক, তথা ডিজিটাল এবং উন্নয়নশীল বাংলাদেশের রুপকার। তার নেতৃত্বে দেশের সকল সেক্টরে অভূতপূর্ব উন্নয়ন সাধিত হয়েছে, দেশ মধ্যম আয়ের দেশে পরিনত হয়েছে। তিনি বলেন, যেকোন উন্নয়নের জন্য সরকারের ধারাবাহিকতার বিকল্প নাই। ধারাবাহিকতার কারনেই পদ্মা সেতুর মত বড় প্রকল্প আজ স্বপ্ন থেকে বাস্তবের পথে রয়েছে। দেশে বিদ্যুৎ, শিক্ষা, শিল্প কারখান, কৃষিসহ সকল সেক্টরে এখন উন্নয়নের জোয়ার চলছে।

প্রধান বক্তার বক্তৃতায় নাটোর সদর ও নলডাঙ্গা আসনের সংসদ সদস্য ও জেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক শফিকুল ইসলাম শিমুল বলেন, অন্য যেকোন সময়ের চাইতে এখন নাটোর জেলা আওয়ামীলীগ অধিক মজবুত এবং ক্যবদ্ধ। তাই দলের বিভেদ সৃষ্টিকারীদের বিষয়ে সাবধান থাকতে হবে। তাদেরকে শক্তহাতে প্রতিহত করতে হবে। কোন ভাবেই যেন অনুপ্রবেশকারীদের কারনে দলের ভাবমুর্তি নষ্ট না হয় সেদিকে সজাগ দৃষ্টি রাখতে হবে। তিনি বলেন, নৌকার বিজয়ের মাধ্যমে উন্নয়নের ধারা অব্যহত রাখতে হবে। আর বড়াইগ্রাম-গুরুদাসপুরে গত চার বারের নির্বাচিত সাংসদ অধ্যাপক আব্দুল কুদ্দুসই এবারও নৌকার মাঝি হবেন।

বিশেষ অতিথির বক্তৃতায় তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী ও নাটোর-৩ (সিংড়া) আসনের সংসদ সদস্য জুনাইদ আহমেদ পলক বলেন, বাংলাদেশ আজ উন্নয়নমীল বিশ্বের রোল মডেল। বিশেষ করে তথ্য ও প্রযুক্তিতে অভুতপূর্ব উন্নয়ন হয়েছে। আগামীতে দেশের যুব শক্তিকে প্রযুক্তি জ্ঞান নির্ভর সম্পদে রুপান্তর করার কাজ চলছে। উন্নয়নের ধারা বহাল রাখতে সরকারের ধারাবাহিকতা রাখতে হবে। তাই দেশের উন্নয়নের স্বার্থে নৌকায় ভোট দিয়ে সরকারের ধারাবাহিকতা রাখতে হবে। তিনি আরও বলেন, আজকের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা আজ থেকে প্রায় ১০ বছর আগে যখন নির্বাচনী ইশতেহারে ডিজিটাল বাংলাদেশ গড়তে ভিশন-২০২১ ঘোষনা করেছিলেন তখন অনেকই হেসেছিলেন। কিন্তু আজ তা শুধু ঘোষনা নয় বাস্তব।

অপর বিশেষ অতিথির বক্তৃতায় লালপুর-বাগাতিপাড়া আসনের সংসদ সদস্য ও জেলা আওয়ামীলীগের সিনিয়র সহসভাপতি অ্যাডভোকেট আবুল কালাম আজাদ বলেন, আওয়ামীলীগ সরকার ক্ষমতায় এলে দেশের মানুষের ভাগ্যের উন্নয়ন হয়। তবে আমাদের মাধ্যেই কিছু ভূইফোর নেতার জন্ম হয়, যারা জনসেবাকে ব্যবসার ক্ষেত্র হিসাবে ব্যবহার করতে চায়। প্রতিটি নির্বাচনের আগেই তারা নিজেদেরকে জনপ্রিয় প্রমানের জন্য নানা ছল-চাতুরী করে থাকে। সাধারণ নেতাকর্মীদেরকে ভূইফোরদের বিষয়ে সর্তক থাকার পরামর্শ প্রদান করেন একই সাথে এই আসনে নৌকার প্রার্থী হিসাবে অধ্যাপক আব্দুল কুদ্দুসের সমর্থনে ঐক্যবদ্ধ থাকার আহ্বান জানান তিনি।

এরআগে বিকেল জনসভায় দুপুর থেকেই বড়াইগ্রাম ও গুরুদাপুর উপজেলার সকল ইউনিয়ন ও পৌরসভা থেকে জনপ্রতিনিধি ও স্থানীয় নেতাদের নেতৃত্বে কর্মীরা জাতীয় এবং দলীয় পতাকা হাতে ব্যানারসহ মিছিলে মিছিলে সমাবেশ স্থলে হাজির হতে থাকে। তিনটার পর জনসভাস্থল কানায় কানায় ভরে গিয়ে তা জনসমুদ্রে পরিনত হয়। স্কুল মাঠ ছেড়ে জন সমাগম পার্শ্ববর্তী বনপাড়া বাজার এবং অন্যান্য এলাকাসহ প্রায় দুই কিলোমিটার মহাসড়ক ও বিভিন্ন এলাকা কানায় কানায় ভরে যায়।

বড়াইগ্রাম উপজেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট মিজানুর রহমান ও বনপাড়া পৌর আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক আতাউর রহমানের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে অন্যদের মধ্যে বক্তৃতা করেন জেলা আওয়ামীলীগের সহসভাপতি অ্যাডভোকেট সিরাজুল ইসলাম পিপি, বনপাড়া পৌর মেয়র ও আওয়ামীলীগ সভাপতি কেএম জাকির হোসেন, বাংলাদেশ যুব মহিলালীগের সহ-সভাপতি এ্যাডভোকেট কোহেলী কুদ্দুস মুক্তি, জাহিদুল ইসলাম সরকার, অধ্যক্ষ আব্দুর রাজ্জাক মোল্লা, আরিফুল ইসলাম সরকার, প্রমূখ। আরো উপস্থিত ছিলেন লালপুর উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি আফতাব হোসেন ঝুলফু, সাধারন সম্পাদক ইসাহাক আলী সহ আরো অনেকে।

সর্বশেষ - ফিচার