ঢাকা ০৭:০২ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ১৮ জুন ২০২৪, ৪ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

ঈদ মুবারক

৩ দিনে বঙ্গবন্ধু সেতুতে টোল আদায় ৯ কোটি

ঈদুল ফিতরকে কেন্দ্র করে ঘরে ফিরেছে মানুষ। গত তিনদিনে বঙ্গবন্ধু সেতু দিয়ে ১ লাখ ১৯ হাজার ৫৯৩টি যানবাহন পারাপার হয়েছে। এসময়ে টোল আদায় হয়েছে ৮ কোটি ৯২ লাখ ৯১ হাজার ২৫০ টাকা।
এর মধ্যে ঢাকা থেকে ছেড়ে আসা উত্তরবঙ্গ ও দক্ষিণবঙ্গগামী পরিবহন বঙ্গবন্ধু সেতু পার হয়েছে ৭১ হাজার ৯৫৬। জানা গেছে, জেলা পুলিশের বিভিন্ন উদ্যোগের ফলে এবার ঢাকা-টাঙ্গাইল-বঙ্গবন্ধু-বঙ্গবন্ধু সেতুপূর্ব মহাসড়কে যাত্রীদের তেমন ভোগান্তি পোহাতে হয়নি। মহাসড়কের বঙ্গবন্ধু সেতু থেকে এলেঙ্গা পর্যন্ত একলেনের চলেছে পরিবহন। এতে উত্তরবঙ্গ থেকে ছেড়ে আসা ঢাকাগামী পরিবহনগুলো সেতুপূর্ব গোলচত্বর হতে ভুঞাপুর-তারাকান্দি সড়ক দিয়ে প্রবেশ করানো হয়।
ফলে চাপ পড়েনি মহাসড়কে। এছাড়া ঈদের ছুটিতে ঢাকার গার্মেন্টসগুলো পৃথক সময়ে ছুটি দেওয়ায় মহাসড়কেও প্রভাব কম পড়েছে। এতে এক রকম স্বস্তি নিয়ে বাড়ি ফিরছে তারা। বিভিন্ন পরিবহনের চালকরা জানান, ধারণা ছিল ঈদে যানজটে পড়ে ভোগান্তিতে পড়তে হবে।
কিন্তু ভোগান্তি হয়নি। সাধারণ সময়ের মত গন্তব্যে পৌঁছানো গেছে। তবে মহাসড়কের এলেঙ্গা থেকে বঙ্গবন্ধু সেতুপূর্ব টোলপ্লাজা পর্যন্ত সড়কে কিছুটা ভোগান্তিতে পড়তে হয়েছে।বঙ্গবন্ধু সেতু সাইট অফিসের নির্বাহী প্রকৌশলী আহসান মাসুদ বাপ্পী গণমাধ্যমকে জানান, এবার ঈদে মহাসড়কে গাড়ির সংখ্যা ছিল বেশি। সেতুর সবগুলো টোল বুথ চালু ছিল। এছাড়া মোটরসাইকেলের জন্য টোলপ্লাজার দক্ষিণপাশে আলাদা দুটি টোল বুথ স্থাপন হয়েছে। গত তিনদিনে সেতুতে ৯ কোটির অধিক টাকা টোল আদায় হয়েছে।
নিউজ বিজয়/নজরুল

👉 নিউজবিজয় ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন ✅

আপনার সোস্যাল মিডিয়ায় শেয়ার দিন।

NewsBijoy24.Com

নিউজবিজয়২৪.কম একটি অনলাইন নিউজ পোর্টাল। বস্তুনিষ্ঠ ও তথ্যভিত্তিক সংবাদ প্রকাশের প্রতিশ্রুতি নিয়ে ২০১৫ সালের ডিসেম্বর মাসে এটি প্রতিষ্ঠিত হয়। উৎসর্গ করলাম আমার বাবার নামে, যাঁর স্নেহ-সান্নিধ্যের পরশ পরিবারের সুখ-দু:খ,হাসি-কান্না,ব্যথা-বেদনার মাঝেও আপার শান্তিতে পরিবার তথা সমাজে মাথা উচুঁ করে নিজের অস্তিত্বকে মেলে ধরতে পেরেছি।

৩ দিনে বঙ্গবন্ধু সেতুতে টোল আদায় ৯ কোটি

প্রকাশিত সময় :- ০৬:২৭:০৩ অপরাহ্ন, সোমবার, ২ মে ২০২২

ঈদুল ফিতরকে কেন্দ্র করে ঘরে ফিরেছে মানুষ। গত তিনদিনে বঙ্গবন্ধু সেতু দিয়ে ১ লাখ ১৯ হাজার ৫৯৩টি যানবাহন পারাপার হয়েছে। এসময়ে টোল আদায় হয়েছে ৮ কোটি ৯২ লাখ ৯১ হাজার ২৫০ টাকা।
এর মধ্যে ঢাকা থেকে ছেড়ে আসা উত্তরবঙ্গ ও দক্ষিণবঙ্গগামী পরিবহন বঙ্গবন্ধু সেতু পার হয়েছে ৭১ হাজার ৯৫৬। জানা গেছে, জেলা পুলিশের বিভিন্ন উদ্যোগের ফলে এবার ঢাকা-টাঙ্গাইল-বঙ্গবন্ধু-বঙ্গবন্ধু সেতুপূর্ব মহাসড়কে যাত্রীদের তেমন ভোগান্তি পোহাতে হয়নি। মহাসড়কের বঙ্গবন্ধু সেতু থেকে এলেঙ্গা পর্যন্ত একলেনের চলেছে পরিবহন। এতে উত্তরবঙ্গ থেকে ছেড়ে আসা ঢাকাগামী পরিবহনগুলো সেতুপূর্ব গোলচত্বর হতে ভুঞাপুর-তারাকান্দি সড়ক দিয়ে প্রবেশ করানো হয়।
ফলে চাপ পড়েনি মহাসড়কে। এছাড়া ঈদের ছুটিতে ঢাকার গার্মেন্টসগুলো পৃথক সময়ে ছুটি দেওয়ায় মহাসড়কেও প্রভাব কম পড়েছে। এতে এক রকম স্বস্তি নিয়ে বাড়ি ফিরছে তারা। বিভিন্ন পরিবহনের চালকরা জানান, ধারণা ছিল ঈদে যানজটে পড়ে ভোগান্তিতে পড়তে হবে।
কিন্তু ভোগান্তি হয়নি। সাধারণ সময়ের মত গন্তব্যে পৌঁছানো গেছে। তবে মহাসড়কের এলেঙ্গা থেকে বঙ্গবন্ধু সেতুপূর্ব টোলপ্লাজা পর্যন্ত সড়কে কিছুটা ভোগান্তিতে পড়তে হয়েছে।বঙ্গবন্ধু সেতু সাইট অফিসের নির্বাহী প্রকৌশলী আহসান মাসুদ বাপ্পী গণমাধ্যমকে জানান, এবার ঈদে মহাসড়কে গাড়ির সংখ্যা ছিল বেশি। সেতুর সবগুলো টোল বুথ চালু ছিল। এছাড়া মোটরসাইকেলের জন্য টোলপ্লাজার দক্ষিণপাশে আলাদা দুটি টোল বুথ স্থাপন হয়েছে। গত তিনদিনে সেতুতে ৯ কোটির অধিক টাকা টোল আদায় হয়েছে।
নিউজ বিজয়/নজরুল