ঢাকা ১০:৫০ পূর্বাহ্ন, মঙ্গলবার, ২৩ এপ্রিল ২০২৪, ১০ বৈশাখ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

ঈদ মোবারক

হিলিতে মুক্তিযোদ্ধা ও সাংবাদিকদের লাঞ্ছিত করার অভিযোগ পিআইও’র বিরুদ্ধে

দিনাজপুরের হাকিমপুরে বীর মুক্তিযোদ্ধা ও সাংবাদিকদের লাঞ্ছিত করার অভিযোগ উঠেছে উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা (পিআইও) নুরুন্নবী সরকারের বিরুদ্ধে। নিজস্ব দাপটে চলেন, কাউকে তোয়াক্কা করেন না তিনি। আবার সরকারি অফিস চেয়ারে বসে প্রতিনিয়ত ধূমপান করেন এই কর্মকর্তা।

সোমবার (১ এপ্রিল) দুপুরে উপজেলা পিআইও অফিসে সাবেক মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার সহ কয়েকজন বীর মুক্তিযোদ্ধাদের অপমান-অপদস্থ করেন তিনি। এসময় সাংবাদিকেরা উপস্থিত হলে তাদের তার অফিস থেকে বের করেন দেন।

হাকিমপুর উপজেলার সাবেক মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার লিয়াকত আলী বলেন, মুক্তিযোদ্ধা কার্যালের ছাউনি টিন নষ্ট হয়ে গেছে। সরকারি টিন বরাদ্দ আছে কি জানতে গেলে আমাদের কয়েকজন বীর মুক্তিযোদ্ধাদের সাথে এই পিআইও অসৌজন্যমূলক আচরণ করে। আমাদের কোন মুল্যায়ন করেন না তিনি। এই কর্মকর্তা একজন বেয়াদব। সে শুধু আমাদেরই না প্রায় মানুষের সাথে আচরণ খারাপ করে থাকে। তার দাপট অনেক, মানুষকে মানুষ মনে করে না।

তিনি আরও বলেন, আমাদের অসৌজন্যমূলক আচরণের সময় সাংবাদিকেরা সেখানে উপস্থিত হয়ে জানতে চাইলে, এই বেয়াদব পিআইও তাদের সাথে খারাপ আচরণ করে অফিস থেকে বের করে দেন। আমরা সরকারের নিকট তার বিচার চাই এবং অতিদ্রুত এই কর্মকর্তার বদলি চাই।

হাকিমপুর প্রেসক্লাবের সভাপতি জাহিদুল ইসলাম জাহিদ বলেন, উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তার বিরুদ্ধে ইতিপূর্বে অনেক অভিযোগ আমি শুনেছি। এর আগেও তিনি যেসব উপজেলায় কর্মরত ছিলেন সেই স্থানেও তার বিরুদ্ধে অনেক অভিযোগ রয়েছে। বর্তমান এই উপজেলাতেও বিভিন্ন মানুষের সাথে অসৌজন্যমূলক আচরণ করে থাকে। আজও তার অফিসে বীর মুক্তিযোদ্ধারা সহ সাংবাদিকেরা লাঞ্ছিত হয়েছে। আমি এর তীব্র প্রতিবাদ ও নিন্দা জানাই এবং সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ তার বিরুদ্ধে অবশ্যই সঠিক ব্যবস্থা নিবেন আশা রাখছি।

হাকিমপুর উপজেলা নির্বাহী অফিসার অমিত রায় বলেন, এর আগেও এই কর্মকর্তার বিরুদ্ধে অসৌজন্যমূলক আচরণের অভিযোগ পেয়েছি। এবার দিয়ে দুইবার অভিযোগ হলো। আমি তাকে সংশোধন হওয়ার নির্দেশ করবো। আশা করছি আগামীতে এমনটি আর হবে না। পরবর্তীতে এমন অভিযোগ পেলে সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের নিকট অভিযোগ করা হবে।

হাকিমপুর উপজেলা চেয়ারম্যান হারুন উর রশিদ হারুন বলেন, উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা নুরুন্নবী সরকারের বিরুদ্ধে এর আগেও অসৌজন্যমূলক আচরণের অভিযোগ আমার কাছে আসছে। এখন বীর মুক্তিযোদ্ধা ও সাংবাদিকদের সাথে এমন আচরণের অভিযোগ পেয়েছি। এটা খুবই দুঃখ জনক। আমি তার ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের নিকট বিষয়টি অবগত করবো।

এবিষয়ে দিনাজপুর জেলা ত্রাণ ও পূণঃবাসন কর্মকর্তা (ডিআরআরও) আনিছুর রহমান বলেন, বিষয়টি জানলাম, মুক্তিযোদ্ধাদের লিখিত অভিযোগ পেলে বিষয়টি তদন্ত করা হবে এবং ঐ কর্মকর্তার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়া হবে।

আরও পড়ুন>>রোকেয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীকে অপহরণ ও মুক্তিপণ আদায়ের ঘটনায় গ্রেফতার ৩

নিউজবিজয়২৪/এফএইচএন

👉 নিউজবিজয় ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন ✅

আপনার সোস্যাল মিডিয়ায় শেয়ার দিন।

NewsBijoy24.Com

নিউজবিজয়২৪.কম একটি অনলাইন নিউজ পোর্টাল। বস্তুনিষ্ঠ ও তথ্যভিত্তিক সংবাদ প্রকাশের প্রতিশ্রুতি নিয়ে ২০১৫ সালের ডিসেম্বর মাসে এটি প্রতিষ্ঠিত হয়। উৎসর্গ করলাম আমার বাবার নামে, যাঁর স্নেহ-সান্নিধ্যের পরশ পরিবারের সুখ-দু:খ,হাসি-কান্না,ব্যথা-বেদনার মাঝেও আপার শান্তিতে পরিবার তথা সমাজে মাথা উচুঁ করে নিজের অস্তিত্বকে মেলে ধরতে পেরেছি।

১৫০ উপজেলায় প্রতীক বরাদ্দ আজ

হিলিতে মুক্তিযোদ্ধা ও সাংবাদিকদের লাঞ্ছিত করার অভিযোগ পিআইও’র বিরুদ্ধে

প্রকাশিত সময় :- ০৪:৪২:০৭ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ২ এপ্রিল ২০২৪

দিনাজপুরের হাকিমপুরে বীর মুক্তিযোদ্ধা ও সাংবাদিকদের লাঞ্ছিত করার অভিযোগ উঠেছে উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা (পিআইও) নুরুন্নবী সরকারের বিরুদ্ধে। নিজস্ব দাপটে চলেন, কাউকে তোয়াক্কা করেন না তিনি। আবার সরকারি অফিস চেয়ারে বসে প্রতিনিয়ত ধূমপান করেন এই কর্মকর্তা।

সোমবার (১ এপ্রিল) দুপুরে উপজেলা পিআইও অফিসে সাবেক মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার সহ কয়েকজন বীর মুক্তিযোদ্ধাদের অপমান-অপদস্থ করেন তিনি। এসময় সাংবাদিকেরা উপস্থিত হলে তাদের তার অফিস থেকে বের করেন দেন।

হাকিমপুর উপজেলার সাবেক মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার লিয়াকত আলী বলেন, মুক্তিযোদ্ধা কার্যালের ছাউনি টিন নষ্ট হয়ে গেছে। সরকারি টিন বরাদ্দ আছে কি জানতে গেলে আমাদের কয়েকজন বীর মুক্তিযোদ্ধাদের সাথে এই পিআইও অসৌজন্যমূলক আচরণ করে। আমাদের কোন মুল্যায়ন করেন না তিনি। এই কর্মকর্তা একজন বেয়াদব। সে শুধু আমাদেরই না প্রায় মানুষের সাথে আচরণ খারাপ করে থাকে। তার দাপট অনেক, মানুষকে মানুষ মনে করে না।

তিনি আরও বলেন, আমাদের অসৌজন্যমূলক আচরণের সময় সাংবাদিকেরা সেখানে উপস্থিত হয়ে জানতে চাইলে, এই বেয়াদব পিআইও তাদের সাথে খারাপ আচরণ করে অফিস থেকে বের করে দেন। আমরা সরকারের নিকট তার বিচার চাই এবং অতিদ্রুত এই কর্মকর্তার বদলি চাই।

হাকিমপুর প্রেসক্লাবের সভাপতি জাহিদুল ইসলাম জাহিদ বলেন, উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তার বিরুদ্ধে ইতিপূর্বে অনেক অভিযোগ আমি শুনেছি। এর আগেও তিনি যেসব উপজেলায় কর্মরত ছিলেন সেই স্থানেও তার বিরুদ্ধে অনেক অভিযোগ রয়েছে। বর্তমান এই উপজেলাতেও বিভিন্ন মানুষের সাথে অসৌজন্যমূলক আচরণ করে থাকে। আজও তার অফিসে বীর মুক্তিযোদ্ধারা সহ সাংবাদিকেরা লাঞ্ছিত হয়েছে। আমি এর তীব্র প্রতিবাদ ও নিন্দা জানাই এবং সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ তার বিরুদ্ধে অবশ্যই সঠিক ব্যবস্থা নিবেন আশা রাখছি।

হাকিমপুর উপজেলা নির্বাহী অফিসার অমিত রায় বলেন, এর আগেও এই কর্মকর্তার বিরুদ্ধে অসৌজন্যমূলক আচরণের অভিযোগ পেয়েছি। এবার দিয়ে দুইবার অভিযোগ হলো। আমি তাকে সংশোধন হওয়ার নির্দেশ করবো। আশা করছি আগামীতে এমনটি আর হবে না। পরবর্তীতে এমন অভিযোগ পেলে সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের নিকট অভিযোগ করা হবে।

হাকিমপুর উপজেলা চেয়ারম্যান হারুন উর রশিদ হারুন বলেন, উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা নুরুন্নবী সরকারের বিরুদ্ধে এর আগেও অসৌজন্যমূলক আচরণের অভিযোগ আমার কাছে আসছে। এখন বীর মুক্তিযোদ্ধা ও সাংবাদিকদের সাথে এমন আচরণের অভিযোগ পেয়েছি। এটা খুবই দুঃখ জনক। আমি তার ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের নিকট বিষয়টি অবগত করবো।

এবিষয়ে দিনাজপুর জেলা ত্রাণ ও পূণঃবাসন কর্মকর্তা (ডিআরআরও) আনিছুর রহমান বলেন, বিষয়টি জানলাম, মুক্তিযোদ্ধাদের লিখিত অভিযোগ পেলে বিষয়টি তদন্ত করা হবে এবং ঐ কর্মকর্তার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়া হবে।

আরও পড়ুন>>রোকেয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীকে অপহরণ ও মুক্তিপণ আদায়ের ঘটনায় গ্রেফতার ৩

নিউজবিজয়২৪/এফএইচএন