ঢাকা ১২:৪৬ পূর্বাহ্ন, শনিবার, ২০ এপ্রিল ২০২৪, ৬ বৈশাখ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

ঈদ মোবারক

হাতীবান্ধায় চিহ্নিত মাদক কারবারিকে রক্ষায় সংবাদ সম্মেলন!

লালমনিরহাটের হাতীবান্ধায় আলোচিত ও চিহ্নিত মাদক ব্যবসায়ী কথিত আব্দুস ছালামকে বাঁচাতে এক সংবাদ সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়েছে। বৃহস্পতিবার দইখাওয়া টেকনিক্যাল এন্ড বিএম কলেজে কলেজ চলাকালীন সময়ে শ্রেণীকক্ষে ক্লাস বন্ধ রেখে উক্ত সংবাদ সম্মেলন করা হয়েছে । কলেজে এ ধরনের সংবাদ সম্মেলন করায় ছাত্র-ছাত্রীদের মাঝে চরম ক্ষোভ দেখা দিয়েছে।
বৃহস্পতিবার (২৬ মে) দুপুরে ওই কলেজের শ্রেণীকক্ষে ক্লাস বন্ধ রেখে এ সংবাদ সম্মেলন করেন আব্দুস সালাম নামে এক মাদক ব্যবসায়ীর পরিবার।
জানা গেছে, আব্দুস সালাম নামে ওই মাদক ব্যবসায়ীর বিরুদ্ধে ইতিপুর্বে হাতীবান্ধা থানায় মাদক মামলা রয়েছে। তার বিরুদ্ধে গত কয়েকদিন যাবত বিভিন্ন সংবাদ মাধ্যমে ‘হাতীবান্ধার কথিত মাদক সম্রাট ছালাম মাদকবিক্রি করে এখন কোটি টাকার মালিক’ শিরোনামে সংবাদ প্রকাশ হয়ে আসছিল। তার প্রতিবাদে আজ দুপুরে দইখাওয়া টেকনিক্যাল এন্ড বিএম কলেজের শ্রেনীকক্ষে ক্লাস বন্ধ রেখে সংবাদ সম্মেলন করেছেন ছালামসহ তার পরিবার।

আরো পড়ুন>>হাতীবান্ধার কথিত মাদক সম্রাট ছালাম মাদকবিক্রি করে এখন কোটি টাকার মালিক

দইখাওয়া টেকনিক্যাল এ্যান্ড বিএম কলেজের নাম প্রকাশ না করার শর্তে এক ছাত্র জানান, আমার বুঝে আসে না, ক্যামন করে কলেজেরমত একটি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে কথিত মাদক সম্রাট ছালাম সংবাদ সম্মেলন করে। এখানে আমাদের শিক্ষকদের ভুমিকাও রহস্যজনক। তারা কি কারনে এ ধরনের সংবাদ সম্মেলন করতে অনুমতি দিল।
রাশেদ, মেনন নামে এক অভিভাবক বলেন, কলেজের মত একটি পবিত্র প্রতিষ্ঠানে কেমন করে একজন কথিত মাদক ব্যবসায়ী কলেজ চলাকালীন সময়ে সংবাদ সম্মেলন করে। আমরা আমাদের সন্তানদের নিয়ে খুবই চিন্তিত।
কথিত মাদক ব্যবসায়ী আব্দুস ছালাম জানান, কলেজ অধ্যক্ষের কাছে অনুমতি নিয়ে সংবাদ সম্মেলন করেছি। দইখাওয়া আদর্শ কলেজের অফিস সহকারী জহুরুল ইসলাম বলেন, মাদক আসক্তদের সংখ্যা দিন দিন বেড়েই চলছে। আমরা আমাদের সন্তানদের নিয়ে খুবই চিন্তিত। এসময় মাদক কারবারির সংবাদ সম্মেলন আমাদের হতাশ করেছে।
ওই কলেজের অধ্যক্ষ জাহাঙ্গীর আলম বলেন, সংবাদ সম্মেলনের বিষয়ে আমাকে কেউ অবগত করেনি। জানার পর তাদের নিষেধ করলেও তারা জোর করে আমার শ্রেণীকক্ষ ব্যবহার করেছেন।
হাতীবান্ধা থানার ওসি এরশাদুল আলম বলেন, মাদক ব্যবসায়ী আব্দুস ছালাম সংবাদ সম্মেলন করেছে শুনেছি। তার বিরুদ্ধে পূর্বেরও মাদক মামলা রয়েছে। ছালামকে ধরতে আমাদের চেষ্টা অব্যহত আছে।

নিউজবিজয়/এফএইচএ

👉 নিউজবিজয় ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন ✅

আপনার সোস্যাল মিডিয়ায় শেয়ার দিন।

NewsBijoy24.Com

নিউজবিজয়২৪.কম একটি অনলাইন নিউজ পোর্টাল। বস্তুনিষ্ঠ ও তথ্যভিত্তিক সংবাদ প্রকাশের প্রতিশ্রুতি নিয়ে ২০১৫ সালের ডিসেম্বর মাসে এটি প্রতিষ্ঠিত হয়। উৎসর্গ করলাম আমার বাবার নামে, যাঁর স্নেহ-সান্নিধ্যের পরশ পরিবারের সুখ-দু:খ,হাসি-কান্না,ব্যথা-বেদনার মাঝেও আপার শান্তিতে পরিবার তথা সমাজে মাথা উচুঁ করে নিজের অস্তিত্বকে মেলে ধরতে পেরেছি।

নাটোরে পূর্ব শত্রুতার জেরে যুবককে কুপিয়ে হত্যার অভিযোগ!

হাতীবান্ধায় চিহ্নিত মাদক কারবারিকে রক্ষায় সংবাদ সম্মেলন!

প্রকাশিত সময় :- ০৫:৫৬:২৯ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ২৬ মে ২০২২

লালমনিরহাটের হাতীবান্ধায় আলোচিত ও চিহ্নিত মাদক ব্যবসায়ী কথিত আব্দুস ছালামকে বাঁচাতে এক সংবাদ সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়েছে। বৃহস্পতিবার দইখাওয়া টেকনিক্যাল এন্ড বিএম কলেজে কলেজ চলাকালীন সময়ে শ্রেণীকক্ষে ক্লাস বন্ধ রেখে উক্ত সংবাদ সম্মেলন করা হয়েছে । কলেজে এ ধরনের সংবাদ সম্মেলন করায় ছাত্র-ছাত্রীদের মাঝে চরম ক্ষোভ দেখা দিয়েছে।
বৃহস্পতিবার (২৬ মে) দুপুরে ওই কলেজের শ্রেণীকক্ষে ক্লাস বন্ধ রেখে এ সংবাদ সম্মেলন করেন আব্দুস সালাম নামে এক মাদক ব্যবসায়ীর পরিবার।
জানা গেছে, আব্দুস সালাম নামে ওই মাদক ব্যবসায়ীর বিরুদ্ধে ইতিপুর্বে হাতীবান্ধা থানায় মাদক মামলা রয়েছে। তার বিরুদ্ধে গত কয়েকদিন যাবত বিভিন্ন সংবাদ মাধ্যমে ‘হাতীবান্ধার কথিত মাদক সম্রাট ছালাম মাদকবিক্রি করে এখন কোটি টাকার মালিক’ শিরোনামে সংবাদ প্রকাশ হয়ে আসছিল। তার প্রতিবাদে আজ দুপুরে দইখাওয়া টেকনিক্যাল এন্ড বিএম কলেজের শ্রেনীকক্ষে ক্লাস বন্ধ রেখে সংবাদ সম্মেলন করেছেন ছালামসহ তার পরিবার।

আরো পড়ুন>>হাতীবান্ধার কথিত মাদক সম্রাট ছালাম মাদকবিক্রি করে এখন কোটি টাকার মালিক

দইখাওয়া টেকনিক্যাল এ্যান্ড বিএম কলেজের নাম প্রকাশ না করার শর্তে এক ছাত্র জানান, আমার বুঝে আসে না, ক্যামন করে কলেজেরমত একটি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে কথিত মাদক সম্রাট ছালাম সংবাদ সম্মেলন করে। এখানে আমাদের শিক্ষকদের ভুমিকাও রহস্যজনক। তারা কি কারনে এ ধরনের সংবাদ সম্মেলন করতে অনুমতি দিল।
রাশেদ, মেনন নামে এক অভিভাবক বলেন, কলেজের মত একটি পবিত্র প্রতিষ্ঠানে কেমন করে একজন কথিত মাদক ব্যবসায়ী কলেজ চলাকালীন সময়ে সংবাদ সম্মেলন করে। আমরা আমাদের সন্তানদের নিয়ে খুবই চিন্তিত।
কথিত মাদক ব্যবসায়ী আব্দুস ছালাম জানান, কলেজ অধ্যক্ষের কাছে অনুমতি নিয়ে সংবাদ সম্মেলন করেছি। দইখাওয়া আদর্শ কলেজের অফিস সহকারী জহুরুল ইসলাম বলেন, মাদক আসক্তদের সংখ্যা দিন দিন বেড়েই চলছে। আমরা আমাদের সন্তানদের নিয়ে খুবই চিন্তিত। এসময় মাদক কারবারির সংবাদ সম্মেলন আমাদের হতাশ করেছে।
ওই কলেজের অধ্যক্ষ জাহাঙ্গীর আলম বলেন, সংবাদ সম্মেলনের বিষয়ে আমাকে কেউ অবগত করেনি। জানার পর তাদের নিষেধ করলেও তারা জোর করে আমার শ্রেণীকক্ষ ব্যবহার করেছেন।
হাতীবান্ধা থানার ওসি এরশাদুল আলম বলেন, মাদক ব্যবসায়ী আব্দুস ছালাম সংবাদ সম্মেলন করেছে শুনেছি। তার বিরুদ্ধে পূর্বেরও মাদক মামলা রয়েছে। ছালামকে ধরতে আমাদের চেষ্টা অব্যহত আছে।

নিউজবিজয়/এফএইচএ