ঢাকা ১০:০৪ অপরাহ্ন, শনিবার, ১৫ জুন ২০২৪, ১ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

বিশ্ব পরিবেশ দিবস

শুটিং সেটে এক ভক্ত নায়িকাকে জড়িয়ে ধরে ভক্তের চুমু, ভিডিও ভাইরাল

ভক্তদের অনেক আবদারই পূরণ করেন তারকারা। তবে এ আবদার পূরণ করতে গিয়ে অনেক সময়ই তাদের বিব্রতকর পরিস্থিতি কিংবা বিড়ম্বনার শিকার হতে হয়। এবার তেমনই বিব্রতকর পরিস্থিতির সম্মুখীন হয়েছেন চিত্রনায়িকা শিরিন শিলা। শুটিং সেটে এক ভক্ত তাকে প্রকাশ্যে জড়িয়ে ধরে চুমু দিয়েছেন! আর এ ঘটনার ভিডিও সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ভাইরাল হয়েছে।

আজ সোমবার ঢাকার ধামরাইয়ে অপূর্ব রানা পরিচালিত ‘দ্য রাইটার’ সিনেমার শুটিং চলছিল। থ্রিলার ঘরানার এই সিনেমার শুটিংয়ে এমন বিব্রতকর পরিস্থিতির শিকার হন শারমিন শিলা। সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে তিনি নিজেই ভিডিওটি পোস্ট করেন। এরপর থেকেই তা ভাইরাল হয়ে যায়।

এ প্রসঙ্গে নায়িকা শিরিন শিলা গণমাধ্যমকে বলেন, ‘সকালে আমার নতুন সিনেমা ‘‘দ্য রাইটারের’’ আউটডোর শুটিং করতে ধামরাইয়ের একটি এলাকায় যাই। এ সময় স্পটে উপস্থিত একটি ছেলে আমাকে দেখে এগিয়ে এসে কথা বলতে চায়। পরে আমিও তাকে কাছে টেনে কথা বলতে শুরু করি। ওই সময় ছেলেটি আবেগী কণ্ঠে আমাকে বলে- তার নাকি বাবা-মা কেউ নেই, তাকে কেউ ভালোবাসে না। এই কথা শুনে তার প্রতি মায়া জন্মে যায়, তাই আমি তার কাঁধে হাত রেখে আদর করি।’

শিলা বলেন, ‘এ সময় সে বলে তার খিদে পেয়েছে, তখন আমি তাকে খাওয়ার জন্য কিছু টাকাও দিই। তখনই সে আমাকে জড়িয়ে ধরে। আমিও ব্যাপারটা স্বাভাবিকভাবেই নিয়েছি। তাকে মানসিক ভারসাম্যহীন মনে হয়েছে।’

এ চিত্রনায়িকা বলেন, ‘পরে আমি তার কাছ থেকে বিদায় নিয়ে চলে আসতে চাইলে সে আবার আমাকে বলে- সে নাকি কখনো গাড়িতে চড়েনি, তাই আজকে আমার সঙ্গে গাড়িতে উঠবে। এই বলেই সে আমাকে আবারও জড়িয়ে ধরে আচমকা আমার গালে চুমু খেয়ে বসে। আচমকা এমন কাণ্ডে আমি হতভম্ব হয়ে যাই। পরে সেখানে থাকা শুটিংয়ের লোকজন ছেলেটিকে সরিয়ে দিলে আমি গাড়িতে উঠে ফিরে আসি।’

‘দ্য রাইটার’ ছবির মূল ভূমিকায় অভিনয় করছেন চিত্রনায়ক আদর আজাদ। ছবিটিতে পুলিশ কর্মকর্তার চরিত্রে অভিনয় করছেন শিরিন শিলা। ছবিটির কাহিনি, সংলাপ ও চিত্রনাট্য পরিচালনা করেছেন এ এইচ এম এনামুল হক।

👉 নিউজবিজয় ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন ✅

আপনার সোস্যাল মিডিয়ায় শেয়ার দিন।

NewsBijoy24.Com

নিউজবিজয়২৪.কম একটি অনলাইন নিউজ পোর্টাল। বস্তুনিষ্ঠ ও তথ্যভিত্তিক সংবাদ প্রকাশের প্রতিশ্রুতি নিয়ে ২০১৫ সালের ডিসেম্বর মাসে এটি প্রতিষ্ঠিত হয়। উৎসর্গ করলাম আমার বাবার নামে, যাঁর স্নেহ-সান্নিধ্যের পরশ পরিবারের সুখ-দু:খ,হাসি-কান্না,ব্যথা-বেদনার মাঝেও আপার শান্তিতে পরিবার তথা সমাজে মাথা উচুঁ করে নিজের অস্তিত্বকে মেলে ধরতে পেরেছি।

শুটিং সেটে এক ভক্ত নায়িকাকে জড়িয়ে ধরে ভক্তের চুমু, ভিডিও ভাইরাল

প্রকাশিত সময় :- ০১:০১:১২ পূর্বাহ্ন, মঙ্গলবার, ২৩ মে ২০২৩

ভক্তদের অনেক আবদারই পূরণ করেন তারকারা। তবে এ আবদার পূরণ করতে গিয়ে অনেক সময়ই তাদের বিব্রতকর পরিস্থিতি কিংবা বিড়ম্বনার শিকার হতে হয়। এবার তেমনই বিব্রতকর পরিস্থিতির সম্মুখীন হয়েছেন চিত্রনায়িকা শিরিন শিলা। শুটিং সেটে এক ভক্ত তাকে প্রকাশ্যে জড়িয়ে ধরে চুমু দিয়েছেন! আর এ ঘটনার ভিডিও সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ভাইরাল হয়েছে।

আজ সোমবার ঢাকার ধামরাইয়ে অপূর্ব রানা পরিচালিত ‘দ্য রাইটার’ সিনেমার শুটিং চলছিল। থ্রিলার ঘরানার এই সিনেমার শুটিংয়ে এমন বিব্রতকর পরিস্থিতির শিকার হন শারমিন শিলা। সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে তিনি নিজেই ভিডিওটি পোস্ট করেন। এরপর থেকেই তা ভাইরাল হয়ে যায়।

এ প্রসঙ্গে নায়িকা শিরিন শিলা গণমাধ্যমকে বলেন, ‘সকালে আমার নতুন সিনেমা ‘‘দ্য রাইটারের’’ আউটডোর শুটিং করতে ধামরাইয়ের একটি এলাকায় যাই। এ সময় স্পটে উপস্থিত একটি ছেলে আমাকে দেখে এগিয়ে এসে কথা বলতে চায়। পরে আমিও তাকে কাছে টেনে কথা বলতে শুরু করি। ওই সময় ছেলেটি আবেগী কণ্ঠে আমাকে বলে- তার নাকি বাবা-মা কেউ নেই, তাকে কেউ ভালোবাসে না। এই কথা শুনে তার প্রতি মায়া জন্মে যায়, তাই আমি তার কাঁধে হাত রেখে আদর করি।’

শিলা বলেন, ‘এ সময় সে বলে তার খিদে পেয়েছে, তখন আমি তাকে খাওয়ার জন্য কিছু টাকাও দিই। তখনই সে আমাকে জড়িয়ে ধরে। আমিও ব্যাপারটা স্বাভাবিকভাবেই নিয়েছি। তাকে মানসিক ভারসাম্যহীন মনে হয়েছে।’

এ চিত্রনায়িকা বলেন, ‘পরে আমি তার কাছ থেকে বিদায় নিয়ে চলে আসতে চাইলে সে আবার আমাকে বলে- সে নাকি কখনো গাড়িতে চড়েনি, তাই আজকে আমার সঙ্গে গাড়িতে উঠবে। এই বলেই সে আমাকে আবারও জড়িয়ে ধরে আচমকা আমার গালে চুমু খেয়ে বসে। আচমকা এমন কাণ্ডে আমি হতভম্ব হয়ে যাই। পরে সেখানে থাকা শুটিংয়ের লোকজন ছেলেটিকে সরিয়ে দিলে আমি গাড়িতে উঠে ফিরে আসি।’

‘দ্য রাইটার’ ছবির মূল ভূমিকায় অভিনয় করছেন চিত্রনায়ক আদর আজাদ। ছবিটিতে পুলিশ কর্মকর্তার চরিত্রে অভিনয় করছেন শিরিন শিলা। ছবিটির কাহিনি, সংলাপ ও চিত্রনাট্য পরিচালনা করেছেন এ এইচ এম এনামুল হক।