শসার তেতোভাব কাটানোর উপায় » NewsBijoy24 । Online Newspaper of Bangladesh.
ঢাকা ০১:২৭ অপরাহ্ন, শনিবার, ২৪ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ১২ ফাল্গুন ১৪৩০ বঙ্গাব্দ

শসার তেতোভাব কাটানোর উপায়

  • লাইফস্টাইল ডেস্ক:-
  • প্রকাশিত সময় :- ০২:০৩:৩৩ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ৫ মে ২০২২
  • ২৭৫ পড়া হয়েছে। নিউজবিজয় ২৪.কম-১৫ ডিসেম্বরে ৯ বছরে পর্দাপন

শসার স্বাস্থ্য উপকারিতা অনেক। ওজন কমানো থেকে শুরু করে শরীরের পানিশূন্যতা রোধে এই সবজির জুড়ি মেলা ভার। এছাড়া গরমে শরীর ঠান্ডা রাখে শসা। প্রায় প্রতিদিনই শসার সালাদ পাতে রাখেন অনেকেই।

১০০ গ্রাম শসাতে জলের পরিমাণ ৯৪.৯ গ্রাম ও ক্যালোরি ২২। এছাড়া শসায় থাকে প্রচুর অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট। এতে কিছু পরিমাণ ভিটামিন, মিনারেলস ও ফাইবার থাকে।

মাঝে মধ্যে বাজার থেকে শসা কিনে আনার তা স্বাদে তেতো হয়। ফলে বাধ্য হয়ে সেই শসা আবার ফেলেও দিতে হয়।

তবে শসা তেতো হবে কি না তা আগে থেকে বুঝে কেনার কোনো উপায় নেই। আসলে যে কোনো শসার স্বাদ তেতো হতে পারে।

আবার তেতো শসা বেশি খেলে তলপেটে ব্যথা, পেটের সমস্যা কিংবা কিডনির বিভিন্ন সমস্যাও হতে পারে। শসায় আছে কিউকারবিটাসিন ‘বি’ ও ‘সি’ নামের দুটি যৌগ।

এদের কারণেই শসায় তেতো ভাবটা থাকে। তবে এই তেতোভাব অনেকটা কাটিয়েও ফেলা যায়। তবে কীভাবে?

শসার তেতো স্বাদ কাটাতে এটি কাটার সময় বিশেষ এক কাজ করতে হবে। প্রথমে শসার মুখের দিকটা কেটে চক্রাকারে ঘষতে থাকুন। দেখবেন সাদা ফেনা উঠছে। যতক্ষণ এই ফেনা উঠবে, ততক্ষণ ঘষতে থাকুন।

এরপর শসা কেটে মুখে দিন দেখবেন তেতো স্বাদ থাকে না। ওই ফেনার সঙ্গে কিউকারবিটাসিন বেরিয়ে যায়। তাই শসা থেকে তেতোভাব কমে যায়।

নিউজবিজয় ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন

আপনার সোস্যাল মিডিয়ায় শেয়ার দিন।

NewsBijoy24.Com

নিউজবিজয়২৪.কম একটি অনলাইন নিউজ পোর্টাল। বস্তুনিষ্ঠ ও তথ্যভিত্তিক সংবাদ প্রকাশের প্রতিশ্রুতি নিয়ে ২০১৫ সালের ডিসেম্বর মাসে এটি প্রতিষ্ঠিত হয়। উৎসর্গ করলাম আমার বাবার নামে, যাঁর স্নেহ-সান্নিধ্যের পরশ পরিবারের সুখ-দু:খ,হাসি-কান্না,ব্যথা-বেদনার মাঝেও আপার শান্তিতে পরিবার তথা সমাজে মাথা উচুঁ করে নিজের অস্তিত্বকে মেলে ধরতে পেরেছি।
জনপ্রিয় সংবাদ

বিশ্ব বাজারে কমল তেলের দাম, দেশে এর প্রভাব নেই

Advertisement

শসার তেতোভাব কাটানোর উপায়

প্রকাশিত সময় :- ০২:০৩:৩৩ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ৫ মে ২০২২

শসার স্বাস্থ্য উপকারিতা অনেক। ওজন কমানো থেকে শুরু করে শরীরের পানিশূন্যতা রোধে এই সবজির জুড়ি মেলা ভার। এছাড়া গরমে শরীর ঠান্ডা রাখে শসা। প্রায় প্রতিদিনই শসার সালাদ পাতে রাখেন অনেকেই।

১০০ গ্রাম শসাতে জলের পরিমাণ ৯৪.৯ গ্রাম ও ক্যালোরি ২২। এছাড়া শসায় থাকে প্রচুর অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট। এতে কিছু পরিমাণ ভিটামিন, মিনারেলস ও ফাইবার থাকে।

মাঝে মধ্যে বাজার থেকে শসা কিনে আনার তা স্বাদে তেতো হয়। ফলে বাধ্য হয়ে সেই শসা আবার ফেলেও দিতে হয়।

তবে শসা তেতো হবে কি না তা আগে থেকে বুঝে কেনার কোনো উপায় নেই। আসলে যে কোনো শসার স্বাদ তেতো হতে পারে।

আবার তেতো শসা বেশি খেলে তলপেটে ব্যথা, পেটের সমস্যা কিংবা কিডনির বিভিন্ন সমস্যাও হতে পারে। শসায় আছে কিউকারবিটাসিন ‘বি’ ও ‘সি’ নামের দুটি যৌগ।

এদের কারণেই শসায় তেতো ভাবটা থাকে। তবে এই তেতোভাব অনেকটা কাটিয়েও ফেলা যায়। তবে কীভাবে?

শসার তেতো স্বাদ কাটাতে এটি কাটার সময় বিশেষ এক কাজ করতে হবে। প্রথমে শসার মুখের দিকটা কেটে চক্রাকারে ঘষতে থাকুন। দেখবেন সাদা ফেনা উঠছে। যতক্ষণ এই ফেনা উঠবে, ততক্ষণ ঘষতে থাকুন।

এরপর শসা কেটে মুখে দিন দেখবেন তেতো স্বাদ থাকে না। ওই ফেনার সঙ্গে কিউকারবিটাসিন বেরিয়ে যায়। তাই শসা থেকে তেতোভাব কমে যায়।