ঢাকা ০৯:০৭ অপরাহ্ন, শনিবার, ১৩ এপ্রিল ২০২৪, ৩০ চৈত্র ১৪৩০ বঙ্গাব্দ

ঈদ মোবারক

ভোলায় প্রাথমিক শিক্ষক নিয়োগ পরিক্ষা আজ ২৪৪ পদে ১৫৬৩৭ জন পরিক্ষার্থী

প্রাথমিক শিক্ষা অধিদপ্তর

আজ জুন শুক্রবার ভোলায় ২৪৪ শিক্ষক পদে ১৫ হাজার ৬৩৭ জন পরীক্ষার্থী ২৫ টি কেন্দ্রে পরীক্ষায় অংশ গ্রহণ করবেন। জেলা শিক্ষা অফিস সূত্রে জানা যায়, ইতিমধ্যেই উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের নির্দেশে জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ তৌফিক-ই-লাহী চৌধুরীসহ সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের সহযোগিতা নিয়ে প্রাইমারি স্কুলের শিক্ষক নিয়োগ পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে। সকল প্রকার ঝামেলা এড়াতে জেলা প্রশাসন, পুলিশ প্রশাসন, শিক্ষক ও প্রতিষ্ঠান প্রধানের নিñিদ্র নিরাপত্তা ব্যবস্থা জোরদার করা হয়েছে এবং সকল পরীক্ষার্থীদের নকল সহ অন্যায় কাজ থেকে বিরত থাকার জন্য জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ তৌফিক-ই-লাহী চৌধুরী ও জেলা শিক্ষা অফিসার নিখিল চন্দ্র হালদার আহ্বান জানিয়েছেন।

জেলা শিক্ষা অফিস সূত্রে আরো জানা যায়, ভোলা সাত উপজেলায় ৪৫২জন শিক্ষক পদ শূন্য থাকলে ২৪৪ পদে তৃতীয় ধাপে নিয়োগ দেওয়ার কথা। উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের নির্দেশে মোতাবেক জনবল কাঠামো পূরন করা হবে। এদিকে প্রাথমিক পরীক্ষা সুষ্ঠুভাবে সম্পন্ন করতে ইতোমধ্যে ভোলার সকল কম্পিউটার, মনিটর, ফটোস্ট্যাট দোকান আজ বৃহস্পতিবার সকাল থেকে আগামী দিনের বিকাল তিনটা পর্যন্ত রাখা হয়েছে। জেলা প্রশাসন এটি নিশ্চিত করেছেন।
অন্যদিকে অনুসন্ধান করে জানা গেছে, প্রাথমিক শিক্ষক নিয়োগ পরীক্ষা শুরু হলেই প্রতিবার মাঠপর্যায়ে বিভিন্ন ভূয়া তথ্য ছড়িয়ে সক্রিয় হয়ে উঠেছে প্রতারক চক্র। শতভাগ চাকরি নিশ্চিয়তা দেয়া সহ প্রশ্ন পত্র ফাঁসের কথা বলে চাকরি প্রার্থীদের কাছে থেকে লাখ লাখ টাকা হাতিয়ে নিচ্ছে। এসব প্রতারণাকারীদের চক্র এবং সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে ও এই চক্রের সদস্যরা নানা কৌশলে প্রতারণা ফাঁদে ফেলে, এ ফাঁদ থেকে রক্ষা পেতে গুজবে কান না দেয়ার জন্য আহ্বান জানানো হয়েছে।
এই বিষয়ে জেলা শিক্ষা কর্মকর্তা জানান, ভোলার ২৫টি কেন্দ্রে পরীক্ষায় অংশগ্রহণকারী পরীক্ষার্থী ও কেন্দ্রগুলোতে কড়া নিরাপত্তার ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়েছে এবং প্রশ্ন পত্র ফাঁসের ঘটনার জন্য সব ধরনের প্রস্তুতি নিচ্ছে ও জোরদার করা হয়েছে বলে জানান। আইন শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর সদস্যদের পাশাপাশি প্রতিটি কেন্দ্রে একজন করে ম্যাজিষটেট নিয়োগ করা হয়েছে। এছাড়া জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ের টেরজারীতে প্রশ্ন এসেছে ও সুরক্ষা নিশ্চিত করা হয়েছে। পরীক্ষা শুরুর তেইশ আগে। নির্বাহী অফিসার ম্যাজিষটেট উপস্থিতিতে প্রশ্ন বাক্স খোলা হবে।
তিনি জানান, সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ৫৩৭ জন সহকারী শিক্ষক এবং বাকীদের বিভিন্ন পরিদর্শক নিয়োগ করা হবে ও কখ পরিদর্শক দের সাথে কোন মোবাইল রাখতে পারবে না। শুধু মাত্র কেন্দ্র সচিব প্রশাসনিক কার্যক্রম যোগাযোগের স্বার্থে ফোন খোলা রাখতে পারবেন।

নিউজবিজয়/এফএইচএন

👉 নিউজবিজয় ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন ✅

আপনার সোস্যাল মিডিয়ায় শেয়ার দিন।

NewsBijoy24.Com

নিউজবিজয়২৪.কম একটি অনলাইন নিউজ পোর্টাল। বস্তুনিষ্ঠ ও তথ্যভিত্তিক সংবাদ প্রকাশের প্রতিশ্রুতি নিয়ে ২০১৫ সালের ডিসেম্বর মাসে এটি প্রতিষ্ঠিত হয়। উৎসর্গ করলাম আমার বাবার নামে, যাঁর স্নেহ-সান্নিধ্যের পরশ পরিবারের সুখ-দু:খ,হাসি-কান্না,ব্যথা-বেদনার মাঝেও আপার শান্তিতে পরিবার তথা সমাজে মাথা উচুঁ করে নিজের অস্তিত্বকে মেলে ধরতে পেরেছি।

দিঘলিয়া উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান হিসেবে যুবলীগ নেতা সৈয়দ জামিল মোর্শেদ মাসুমের বিকল্প নেই

prayer-image
  • ফজর
  • যোহর
  • আছর
  • মাগরিব
  • এশা
  • সূর্যোদয়
  • ৪:৩০ পূর্বাহ্ণ
  • ১২:০৫ অপরাহ্ণ
  • ৪:৩২ অপরাহ্ণ
  • ৬:২৪ অপরাহ্ণ
  • ৭:৩৯ অপরাহ্ণ
  • ৫:৪৩ পূর্বাহ্ণ


ভোলায় প্রাথমিক শিক্ষক নিয়োগ পরিক্ষা আজ ২৪৪ পদে ১৫৬৩৭ জন পরিক্ষার্থী

প্রকাশিত সময় :- ১০:২২:৩৪ পূর্বাহ্ন, শুক্রবার, ৩ জুন ২০২২

আজ জুন শুক্রবার ভোলায় ২৪৪ শিক্ষক পদে ১৫ হাজার ৬৩৭ জন পরীক্ষার্থী ২৫ টি কেন্দ্রে পরীক্ষায় অংশ গ্রহণ করবেন। জেলা শিক্ষা অফিস সূত্রে জানা যায়, ইতিমধ্যেই উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের নির্দেশে জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ তৌফিক-ই-লাহী চৌধুরীসহ সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের সহযোগিতা নিয়ে প্রাইমারি স্কুলের শিক্ষক নিয়োগ পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে। সকল প্রকার ঝামেলা এড়াতে জেলা প্রশাসন, পুলিশ প্রশাসন, শিক্ষক ও প্রতিষ্ঠান প্রধানের নিñিদ্র নিরাপত্তা ব্যবস্থা জোরদার করা হয়েছে এবং সকল পরীক্ষার্থীদের নকল সহ অন্যায় কাজ থেকে বিরত থাকার জন্য জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ তৌফিক-ই-লাহী চৌধুরী ও জেলা শিক্ষা অফিসার নিখিল চন্দ্র হালদার আহ্বান জানিয়েছেন।

জেলা শিক্ষা অফিস সূত্রে আরো জানা যায়, ভোলা সাত উপজেলায় ৪৫২জন শিক্ষক পদ শূন্য থাকলে ২৪৪ পদে তৃতীয় ধাপে নিয়োগ দেওয়ার কথা। উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের নির্দেশে মোতাবেক জনবল কাঠামো পূরন করা হবে। এদিকে প্রাথমিক পরীক্ষা সুষ্ঠুভাবে সম্পন্ন করতে ইতোমধ্যে ভোলার সকল কম্পিউটার, মনিটর, ফটোস্ট্যাট দোকান আজ বৃহস্পতিবার সকাল থেকে আগামী দিনের বিকাল তিনটা পর্যন্ত রাখা হয়েছে। জেলা প্রশাসন এটি নিশ্চিত করেছেন।
অন্যদিকে অনুসন্ধান করে জানা গেছে, প্রাথমিক শিক্ষক নিয়োগ পরীক্ষা শুরু হলেই প্রতিবার মাঠপর্যায়ে বিভিন্ন ভূয়া তথ্য ছড়িয়ে সক্রিয় হয়ে উঠেছে প্রতারক চক্র। শতভাগ চাকরি নিশ্চিয়তা দেয়া সহ প্রশ্ন পত্র ফাঁসের কথা বলে চাকরি প্রার্থীদের কাছে থেকে লাখ লাখ টাকা হাতিয়ে নিচ্ছে। এসব প্রতারণাকারীদের চক্র এবং সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে ও এই চক্রের সদস্যরা নানা কৌশলে প্রতারণা ফাঁদে ফেলে, এ ফাঁদ থেকে রক্ষা পেতে গুজবে কান না দেয়ার জন্য আহ্বান জানানো হয়েছে।
এই বিষয়ে জেলা শিক্ষা কর্মকর্তা জানান, ভোলার ২৫টি কেন্দ্রে পরীক্ষায় অংশগ্রহণকারী পরীক্ষার্থী ও কেন্দ্রগুলোতে কড়া নিরাপত্তার ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়েছে এবং প্রশ্ন পত্র ফাঁসের ঘটনার জন্য সব ধরনের প্রস্তুতি নিচ্ছে ও জোরদার করা হয়েছে বলে জানান। আইন শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর সদস্যদের পাশাপাশি প্রতিটি কেন্দ্রে একজন করে ম্যাজিষটেট নিয়োগ করা হয়েছে। এছাড়া জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ের টেরজারীতে প্রশ্ন এসেছে ও সুরক্ষা নিশ্চিত করা হয়েছে। পরীক্ষা শুরুর তেইশ আগে। নির্বাহী অফিসার ম্যাজিষটেট উপস্থিতিতে প্রশ্ন বাক্স খোলা হবে।
তিনি জানান, সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ৫৩৭ জন সহকারী শিক্ষক এবং বাকীদের বিভিন্ন পরিদর্শক নিয়োগ করা হবে ও কখ পরিদর্শক দের সাথে কোন মোবাইল রাখতে পারবে না। শুধু মাত্র কেন্দ্র সচিব প্রশাসনিক কার্যক্রম যোগাযোগের স্বার্থে ফোন খোলা রাখতে পারবেন।

নিউজবিজয়/এফএইচএন