ঢাকা ০১:৪৫ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ২৮ মে ২০২৪, ১৪ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

ভোলায় ৮০% লাভে জামাকাপড় বিক্রি বিন্দু ফ্যাশন ও চন্দ্রবিন্দুকে জরিমান

পোষাক বিক্রয়ে ৮০% লাভের প্রমাণ পাওয়ায় চন্দ্রবিন্দু ও বিন্দু ফ্যাশন হাউজকে ৪০০০০/- জরিমানা

জাতীয় ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তরের মহাপরিচালক (অতিরিক্ত সচিব) এর অর্পিত ক্ষমতাবলে ও জেলা প্রশাসনের সার্বিক সহায়তায় ভোলা জেলা কার্যালয়ের সহকারী পরিচালক কর্তৃক ভোলা সদর রোডে অভিযান পরিচালিত হয়। পবিত্র ঈদ উল ফিতর উপলক্ষে পোষাকের দোকানগুলোতে উপচেপড়া ভীড়। আর সেই সুযোগে কিছু ব্যবসায়ী ইচ্ছামত দাম বাড়িয়ে পোশাক বিক্রয় করছে। এরকমই অভিযোগের ভিত্তিতে অদ্য(০৫.০৪.২৩ বুধবার) সকাল ১১.০০ টায় সদর রোডের চন্দ্রবিন্দু ও বিন্দু ফ্যাশন হাউজে অভিযান পরিচালনা করা হয়। হিসাব করে দেখা যায় তাদের প্রায় প্রতিটি পণ্যে ক্রয়মূল্যের উপর ৮০% বাড়িয়ে বিক্রয়মূল্য নির্ধারণ করা হয়েছে। এর সাথে তারা “+ভ্যাট ” কথাটিও যোগ করেছে। কিন্তু কত পার্সেন্ট ভ্যাট তা তারা উল্লেখ করেনি এবং সঠিক টাকার পরিমাণের ভ্যাটের কাগজ প্রদর্শন করতে পারেনি। বিন্দু ফ্যাসনে কাগজপত্র ঘেটে দেখা যায় মার্চ মাসের বিক্রয়কৃর টাকার বিপরীতে ভ্যাটের পরিনাম অনেক কম। তারা এ বিষয়ে কোন সদুত্তর দিতে পারেনি। অন্যদিকে তাদের লাভের মার্জিন এত বেশি কেন জিজ্ঞেস করলে সেটারও কোন যৌক্তিক উত্তর দিতে পারেনি। তারা বলছিল মূল্য তাদের হেড অফিস নির্ধারণ করে দেয়। কিন্তু চন্দ্রবিন্দু ফ্যাসন হাউজের কাছে কাছে মূল্য নির্ধারণের ব্লাংক স্টিকার পাওয়া গেছে। এমতাবস্থায় চন্দ্রবিন্দু ও বিন্দু ফ্যাশন উভয়কে ভোক্তা অধিকার আইন ২০০৯ এর ৪৫ ধারায় ২০০০০/- করে মোট ৪০০০০/- টাকা জরিমানা করা হয়েছে। উভয়কেই তাদের প্রাইস্ট্যাগ সংশোধন করে লাভের মার্জিন ৪০% এর নিচে নামিয়ে আনার নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে। কাপড় বিক্রয়ের ক্ষেত্রে তাদেরকে জেলা প্রশাসন ও ভোক্তা অধিকারের নির্দেশনামূলক বার্তা দেওয়া হয়েছে ও লাভের ক্ষেত্রে যৌক্তিক হওয়ার পরামর্শ দেওয়া হয়েছে। জনস্বার্থে এ ধরণের অভিযান অব্যাহত থাকবে।

নিউজবিজয়২৪/এফএইচএন

👉 নিউজবিজয় ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন ✅

আপনার সোস্যাল মিডিয়ায় শেয়ার দিন।

NewsBijoy24.Com

নিউজবিজয়২৪.কম একটি অনলাইন নিউজ পোর্টাল। বস্তুনিষ্ঠ ও তথ্যভিত্তিক সংবাদ প্রকাশের প্রতিশ্রুতি নিয়ে ২০১৫ সালের ডিসেম্বর মাসে এটি প্রতিষ্ঠিত হয়। উৎসর্গ করলাম আমার বাবার নামে, যাঁর স্নেহ-সান্নিধ্যের পরশ পরিবারের সুখ-দু:খ,হাসি-কান্না,ব্যথা-বেদনার মাঝেও আপার শান্তিতে পরিবার তথা সমাজে মাথা উচুঁ করে নিজের অস্তিত্বকে মেলে ধরতে পেরেছি।

আদিতমারীতে স্ত্রীকে নির্যাতন করে হত্যার অভিযোগ-স্বামী আটক

ভোলায় ৮০% লাভে জামাকাপড় বিক্রি বিন্দু ফ্যাশন ও চন্দ্রবিন্দুকে জরিমান

প্রকাশিত সময় :- ০৮:১৩:৪৩ অপরাহ্ন, বুধবার, ৫ এপ্রিল ২০২৩

পোষাক বিক্রয়ে ৮০% লাভের প্রমাণ পাওয়ায় চন্দ্রবিন্দু ও বিন্দু ফ্যাশন হাউজকে ৪০০০০/- জরিমানা

জাতীয় ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তরের মহাপরিচালক (অতিরিক্ত সচিব) এর অর্পিত ক্ষমতাবলে ও জেলা প্রশাসনের সার্বিক সহায়তায় ভোলা জেলা কার্যালয়ের সহকারী পরিচালক কর্তৃক ভোলা সদর রোডে অভিযান পরিচালিত হয়। পবিত্র ঈদ উল ফিতর উপলক্ষে পোষাকের দোকানগুলোতে উপচেপড়া ভীড়। আর সেই সুযোগে কিছু ব্যবসায়ী ইচ্ছামত দাম বাড়িয়ে পোশাক বিক্রয় করছে। এরকমই অভিযোগের ভিত্তিতে অদ্য(০৫.০৪.২৩ বুধবার) সকাল ১১.০০ টায় সদর রোডের চন্দ্রবিন্দু ও বিন্দু ফ্যাশন হাউজে অভিযান পরিচালনা করা হয়। হিসাব করে দেখা যায় তাদের প্রায় প্রতিটি পণ্যে ক্রয়মূল্যের উপর ৮০% বাড়িয়ে বিক্রয়মূল্য নির্ধারণ করা হয়েছে। এর সাথে তারা “+ভ্যাট ” কথাটিও যোগ করেছে। কিন্তু কত পার্সেন্ট ভ্যাট তা তারা উল্লেখ করেনি এবং সঠিক টাকার পরিমাণের ভ্যাটের কাগজ প্রদর্শন করতে পারেনি। বিন্দু ফ্যাসনে কাগজপত্র ঘেটে দেখা যায় মার্চ মাসের বিক্রয়কৃর টাকার বিপরীতে ভ্যাটের পরিনাম অনেক কম। তারা এ বিষয়ে কোন সদুত্তর দিতে পারেনি। অন্যদিকে তাদের লাভের মার্জিন এত বেশি কেন জিজ্ঞেস করলে সেটারও কোন যৌক্তিক উত্তর দিতে পারেনি। তারা বলছিল মূল্য তাদের হেড অফিস নির্ধারণ করে দেয়। কিন্তু চন্দ্রবিন্দু ফ্যাসন হাউজের কাছে কাছে মূল্য নির্ধারণের ব্লাংক স্টিকার পাওয়া গেছে। এমতাবস্থায় চন্দ্রবিন্দু ও বিন্দু ফ্যাশন উভয়কে ভোক্তা অধিকার আইন ২০০৯ এর ৪৫ ধারায় ২০০০০/- করে মোট ৪০০০০/- টাকা জরিমানা করা হয়েছে। উভয়কেই তাদের প্রাইস্ট্যাগ সংশোধন করে লাভের মার্জিন ৪০% এর নিচে নামিয়ে আনার নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে। কাপড় বিক্রয়ের ক্ষেত্রে তাদেরকে জেলা প্রশাসন ও ভোক্তা অধিকারের নির্দেশনামূলক বার্তা দেওয়া হয়েছে ও লাভের ক্ষেত্রে যৌক্তিক হওয়ার পরামর্শ দেওয়া হয়েছে। জনস্বার্থে এ ধরণের অভিযান অব্যাহত থাকবে।

নিউজবিজয়২৪/এফএইচএন