ঢাকা ১১:৩৪ পূর্বাহ্ন, শনিবার, ১৫ জুন ২০২৪, ১ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

বিশ্ব পরিবেশ দিবস

বদলগাছীতে পরকীয়ার অপবাদ দিয়ে গৃহবধূর মাথা ন্যাড়া: ৩ জন গ্রেপ্তার

নওগাঁর বদলগাছী উপজেলার মথুরাপুর ইউনিয়নের গয়েশপুর বঁাশপাড়া নামক একটি গ্রামে অনৈতিক সম্পর্কের অভিযোগ তুলে ক্ষুদ্র নৃ-গোষ্ঠীর এক গৃহবধূর মাথা ন্যাড়া করে তাঁর মাথায় ঘোল ঢেলে শুদ্ধ করার ঘটনায় থানায় মামলা হয়েছে। ভূক্তভোগী গৃহবধূ বাদী হয়ে সোমবার রাতে বদলগাছী থানায় এ মামলাটি দয়ের করেন। মামলায় পাঁচ জনের নাম উল্লেখ করে আসামী করা হয়েছে। পুলিশ সোমবার রাতেই তিন জন আসামীকে গ্রেপ্তার করেছে। তাঁরা হলেন, গয়েশপুর বাঁশপাড়া গ্রামের শ্রী জাওনা পাহানের ছেলে শ্রী বিমল পাহান (৩৮), রমেশ পাহানের ছেলে শ্রী সুবাস পাহান (৪৫) ও ধামুইরহাট উপজেলার ইসবপুর ইউপির ইনসিরা গ্রামের মৃত সুবল এর ছেলে শ্রী ভবেস পাহান (৫২)। তাঁদের আজ মঙ্গলবার নওগাঁ আদালতে পাঠিয়েছে পুলিশ।
মামলার এজাহারে উল্লেখ করা হয়, ক্ষুদ্র নৃ-গোষ্ঠীর ওই গৃহবধূকে পরকীয়ায় অপবাদ দিয়ে গ্রামে বিচারের উদ্যোগ নেওয়া হয়। এ ঘটনাটি গৃহবধূর মা জানতে পেরে ১৫ দিন আগে জামাইয়ের বাড়িতে আসেন। তিনি তাঁর মেয়েকে সঙ্গে জামাই বাড়ি থেকে বাবার বাড়ি ধামুইরহাটের কামারখন্দ গ্রামে নিয়ে চলে যান। গত ২৬ আগষ্ট গৃহবধূর শাশুড়ী বিয়াই বাড়িতে গিয়ে গৃহবধূকে নিজের বাড়িতে নিয়ে আসেন। এরপর ক্ষুদ্র নৃ-গোষ্ঠীর সমাজপতিরা পরকীয়ার মিথ্যা অপবাদ দিয়ে সমাজচ্যুত করার পরিকল্পনা করেন। এরই ধারাবাহিকতায় সোমবার ( ২৮ শে আগষ্ট) সকাল ৯টার দিকে সমাজপতিরা দলবল নিয়ে ওই গৃহবধূর বাড়িতে আসেন। সমাজপতি ও তাঁদের লোকজনেরা জোর করে গৃহবধূর মাথার চুল কেটে দেওয়ার জন্য ধস্তাধস্তি করে। একপর্যায়ে গৃহবধূর পরণের শাড়ী খুলে বিবস্ত্র করে তাঁর চুল কেটে মাথা ন্যাড়া করে দেওয়া হয়। এরপর গৃহবধূর ন্যাড়া মাথায় ঘোল ঢেলে দেয়। গৃহবধূর চিৎকারে লোকজন এগিয়ে এলে সমাজপতিরা তাঁকে ভয়-ভীতি ও প্রণনাশের হুমকী দিয়ে চলে যায়। এঘটনায় তিনি সমাজে হেয় প্রতিপন্ন হয়েছেন।
খবর পেয়ে ওই গৃহবধূর বাড়িতে গিয়ে দেখা গেছে, গৃহবধূ শাড়ীর আঁচল দিয়ে মাথা ঢেকে রেখেছেন। প্রতিবেশী নারীরা গৃহবধূকে ঘর থেকে বের হতে দিচ্ছেন না।
ওই গৃহবধূর প্রতিবেশী নারীদের দাবি- পাশ্ববর্তী সোনারপাড়া গ্রামের এক মসলিম যুবকের সঙ্গে ঐ গৃহবধূর অনৈতিক সম্পর্ক ছিল। গৃহবধূর মাথা ন্যাড়া করে ঘোল ঢেলে শুদ্ধ করা হয়েছে। গৃহবধূর স্বামীর সম্মতিতে সমাজপতিরা এ কাজটি করেছেন।

ওই গৃহবধূ বলেন, আমার সঙ্গে কারো অনৈতিক সম্পর্ক ছিলোনা। সমাজপতিরা আমার মাথা ন্যাড়া দিয়ে ঘোল ঢেলে দিয়েছন।
বদলগাছী থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মোহাম্মদ আতিয়ার রহমান বলেন, ঘটনাটি জানার পর বিষয়টি গুরুত্ব সহকারে নিয়ে সংগে সংগে পুলিশ পাঠিয়ে ওই গৃহবধুকে উদ্ধার করা হয়। উদ্ধারের পর গৃহবধু বাদী হয়ে ৫ জনের নাম উল্লেখ করে থানায় একটি মামলা দায়ের করেন। মামলার পর শালিসে রায় দেওয়া দুই মাতব্বর সহ চুল কর্তনের ওই নাপিতকে আটক করা হয়েছে। মঙ্গলবারে আসামীদের আদলতের মাধ্যমে জেল হাজতে প্রেরণ করা হয়েছে। অন্য আসামীদের গ্রেপ্তারের চেষ্টা চলছে।
নিউজবিজয়২৪/এফএইচএন

👉 নিউজবিজয় ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন ✅

আপনার সোস্যাল মিডিয়ায় শেয়ার দিন।

NewsBijoy24.Com

নিউজবিজয়২৪.কম একটি অনলাইন নিউজ পোর্টাল। বস্তুনিষ্ঠ ও তথ্যভিত্তিক সংবাদ প্রকাশের প্রতিশ্রুতি নিয়ে ২০১৫ সালের ডিসেম্বর মাসে এটি প্রতিষ্ঠিত হয়। উৎসর্গ করলাম আমার বাবার নামে, যাঁর স্নেহ-সান্নিধ্যের পরশ পরিবারের সুখ-দু:খ,হাসি-কান্না,ব্যথা-বেদনার মাঝেও আপার শান্তিতে পরিবার তথা সমাজে মাথা উচুঁ করে নিজের অস্তিত্বকে মেলে ধরতে পেরেছি।

মেসি-মার্টিনেজের গোলে আর্জেন্টিনার বড় জয়

বদলগাছীতে পরকীয়ার অপবাদ দিয়ে গৃহবধূর মাথা ন্যাড়া: ৩ জন গ্রেপ্তার

প্রকাশিত সময় :- ০৭:২৬:০৪ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ২৯ অগাস্ট ২০২৩

নওগাঁর বদলগাছী উপজেলার মথুরাপুর ইউনিয়নের গয়েশপুর বঁাশপাড়া নামক একটি গ্রামে অনৈতিক সম্পর্কের অভিযোগ তুলে ক্ষুদ্র নৃ-গোষ্ঠীর এক গৃহবধূর মাথা ন্যাড়া করে তাঁর মাথায় ঘোল ঢেলে শুদ্ধ করার ঘটনায় থানায় মামলা হয়েছে। ভূক্তভোগী গৃহবধূ বাদী হয়ে সোমবার রাতে বদলগাছী থানায় এ মামলাটি দয়ের করেন। মামলায় পাঁচ জনের নাম উল্লেখ করে আসামী করা হয়েছে। পুলিশ সোমবার রাতেই তিন জন আসামীকে গ্রেপ্তার করেছে। তাঁরা হলেন, গয়েশপুর বাঁশপাড়া গ্রামের শ্রী জাওনা পাহানের ছেলে শ্রী বিমল পাহান (৩৮), রমেশ পাহানের ছেলে শ্রী সুবাস পাহান (৪৫) ও ধামুইরহাট উপজেলার ইসবপুর ইউপির ইনসিরা গ্রামের মৃত সুবল এর ছেলে শ্রী ভবেস পাহান (৫২)। তাঁদের আজ মঙ্গলবার নওগাঁ আদালতে পাঠিয়েছে পুলিশ।
মামলার এজাহারে উল্লেখ করা হয়, ক্ষুদ্র নৃ-গোষ্ঠীর ওই গৃহবধূকে পরকীয়ায় অপবাদ দিয়ে গ্রামে বিচারের উদ্যোগ নেওয়া হয়। এ ঘটনাটি গৃহবধূর মা জানতে পেরে ১৫ দিন আগে জামাইয়ের বাড়িতে আসেন। তিনি তাঁর মেয়েকে সঙ্গে জামাই বাড়ি থেকে বাবার বাড়ি ধামুইরহাটের কামারখন্দ গ্রামে নিয়ে চলে যান। গত ২৬ আগষ্ট গৃহবধূর শাশুড়ী বিয়াই বাড়িতে গিয়ে গৃহবধূকে নিজের বাড়িতে নিয়ে আসেন। এরপর ক্ষুদ্র নৃ-গোষ্ঠীর সমাজপতিরা পরকীয়ার মিথ্যা অপবাদ দিয়ে সমাজচ্যুত করার পরিকল্পনা করেন। এরই ধারাবাহিকতায় সোমবার ( ২৮ শে আগষ্ট) সকাল ৯টার দিকে সমাজপতিরা দলবল নিয়ে ওই গৃহবধূর বাড়িতে আসেন। সমাজপতি ও তাঁদের লোকজনেরা জোর করে গৃহবধূর মাথার চুল কেটে দেওয়ার জন্য ধস্তাধস্তি করে। একপর্যায়ে গৃহবধূর পরণের শাড়ী খুলে বিবস্ত্র করে তাঁর চুল কেটে মাথা ন্যাড়া করে দেওয়া হয়। এরপর গৃহবধূর ন্যাড়া মাথায় ঘোল ঢেলে দেয়। গৃহবধূর চিৎকারে লোকজন এগিয়ে এলে সমাজপতিরা তাঁকে ভয়-ভীতি ও প্রণনাশের হুমকী দিয়ে চলে যায়। এঘটনায় তিনি সমাজে হেয় প্রতিপন্ন হয়েছেন।
খবর পেয়ে ওই গৃহবধূর বাড়িতে গিয়ে দেখা গেছে, গৃহবধূ শাড়ীর আঁচল দিয়ে মাথা ঢেকে রেখেছেন। প্রতিবেশী নারীরা গৃহবধূকে ঘর থেকে বের হতে দিচ্ছেন না।
ওই গৃহবধূর প্রতিবেশী নারীদের দাবি- পাশ্ববর্তী সোনারপাড়া গ্রামের এক মসলিম যুবকের সঙ্গে ঐ গৃহবধূর অনৈতিক সম্পর্ক ছিল। গৃহবধূর মাথা ন্যাড়া করে ঘোল ঢেলে শুদ্ধ করা হয়েছে। গৃহবধূর স্বামীর সম্মতিতে সমাজপতিরা এ কাজটি করেছেন।

ওই গৃহবধূ বলেন, আমার সঙ্গে কারো অনৈতিক সম্পর্ক ছিলোনা। সমাজপতিরা আমার মাথা ন্যাড়া দিয়ে ঘোল ঢেলে দিয়েছন।
বদলগাছী থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মোহাম্মদ আতিয়ার রহমান বলেন, ঘটনাটি জানার পর বিষয়টি গুরুত্ব সহকারে নিয়ে সংগে সংগে পুলিশ পাঠিয়ে ওই গৃহবধুকে উদ্ধার করা হয়। উদ্ধারের পর গৃহবধু বাদী হয়ে ৫ জনের নাম উল্লেখ করে থানায় একটি মামলা দায়ের করেন। মামলার পর শালিসে রায় দেওয়া দুই মাতব্বর সহ চুল কর্তনের ওই নাপিতকে আটক করা হয়েছে। মঙ্গলবারে আসামীদের আদলতের মাধ্যমে জেল হাজতে প্রেরণ করা হয়েছে। অন্য আসামীদের গ্রেপ্তারের চেষ্টা চলছে।
নিউজবিজয়২৪/এফএইচএন