ফাঁকা মাঠেই গোল দেবেন পঙ্কজ দেবনাথ » NewsBijoy24 । Online Newspaper of Bangladesh.
ঢাকা ০৫:২১ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ২৭ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ১৫ ফাল্গুন ১৪৩০ বঙ্গাব্দ

ফাঁকা মাঠেই গোল দেবেন পঙ্কজ দেবনাথ

  • নিউজ বিজয় ডেস্ক :-
  • প্রকাশিত সময় :- ০২:৩৯:৫৪ অপরাহ্ন, শনিবার, ২৩ ডিসেম্বর ২০২৩
  • ৩৪৮ পড়া হয়েছে। নিউজবিজয় ২৪.কম-১৫ ডিসেম্বরে ৯ বছরে পর্দাপন

দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে বরিশাল-৪ (হিজলা-মেহেন্দিগঞ্জ) আসনে আওয়ামী লীগ মনোনীত নৌকার প্রার্থী ছিলেন শাম্মী আহমেদ। কেন্দ্রীয় আওয়ামী লীগের আন্তর্জাতিক বিষয়ক সম্পাদক শাম্মীর মনোনয়নপত্র বাতিল হয়। ফলে এই আসনে এখন অনেকটা ফাঁকা মাঠেই গোল দেবেন আওয়ামী লীগের দুইবারের সাবেক সংসদ সদস্য পঙ্কজ দেবনাথ। এবারের নির্বাচনে দলীয় মনোনয়ন বঞ্চিত হয়ে তিনি এই আসনে স্বতন্ত্র প্রার্থী হয়েছিলেন।

বরিশাল-৪ আসনে পঙ্কজ দেবনাথের আপত্তিতে আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী ড. শাম্মী আহমেদের প্রার্থিতা বাতিল হয়। ফলে পঙ্কজ দেবনাথের সঙ্গে লড়াই করতে টিকে রয়েছেন জাতীয় পার্টি মনোনীত মিজানুর রহমান ও বাংলাদেশ সাংস্কৃতিক মুক্তিজোটের হৃদয় ইসলাম চুন্নু। এই দুই প্রার্থীকে কেউ চেনেন না সংসদীয় আসনের।
মাঠে শক্তিশালী প্রার্থী না থাকলেও পঙ্কজ নাথ ঠিকই জোরেশোরে প্রচারণা শুরু করেছেন। এলাকায় গণসংযোগ করেন স্বতন্ত্র প্রার্থী পঙ্কজ নাথ। আবুল হাসানাত আব্দুল্লাহর কর্মী-সমর্থকেরা পৃথকভাবে নির্বাচনী এলাকার গৌরনদী ও আগৈলঝাড়া উপজেলার বিভিন্ন স্থানে নৌকার পক্ষে গণসংযোগ ও লিফলেট বিতরণ করেছেন।

এর আগে পঙ্কজ দেবনাথকে সরিয়ে আওয়ামী লীগ এই আসনে দলের আন্তর্জাতিক সম্পাদক শাম্মী আহমেদকে মনোনয়ন দিলে পঙ্কজ দেবনাথের স্বতন্ত্র প্রার্থী হওয়ার ঘোষণায় তাদের মাঝে হাড্ডাহাড্ডি লড়াইয়ের সম্ভাবনা দেখা দিয়েছিল। তবে শাম্মীর মনোনয়নপত্র বাতিল হওয়ায় আলোচনা থমকে যায়। এখন পঙ্কজ দেবনাথ অনেকটা ফাঁকা মাঠেই গোল দেবেন বলে মনে করছেন ভোটাররা। তাদের ভাষ্য, মনোনয়ন বঞ্চিত হয়েও এখন তিনিই এই আসনে অলিখিত নৌকার মাঝি। কথায় আছে, কপালে থাকলে ঠেকায় কে!

উল্লেখ্য, ২০১৪ সালে নৌকা প্রতীক নিয়ে প্রথমবারের মতো সংসদ সদস্য নির্বাচিত হন পঙ্কজ দেবনাথ। এরপর একাদশ নির্বাচনেও তিনি সংসদ সদস্য হন। এরপর আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীদের ওপর নির্যাতন বেড়ে যায়। উপজেলায় তার অনুসারী না এমন নেতাকর্মীরা হামলা, মারধরের শিকার হয়ে এলাকা ছাড়েন। এমনকি অনেকেই খুন হন। সেই ঘটনার জেরে ২০২২ সালের সেপ্টেম্বরে আওয়ামী লীগের সকল পদ থেকে পঙ্কজকে অব্যাহতি দেয়া হয়।

পঙ্কজ নাথের কর্মকাণ্ডের ব্যাপক বিতর্কের সৃষ্টি হয়। মেহেন্দিগঞ্জ এবং হিজলা উপজেলা আওয়ামী লীগ থেকেই বিকল্প প্রার্থীর দাবি ওঠে। এসব কারণে তাকে আওয়ামী লীগের মনোনয়ন দেয়া হয়নি। পঙ্কজ দেবনাথ মনোনয়ন হারালে তার নেতাকর্মীদের ওপরও হামলা হয়। তার প্রধান প্রতিদ্বন্দ্বী শাম্মী আহমেদের দ্বৈত নাগরিকত্ব থাকায় মনোনয়ন বাতিল হয়েছে। এতে সুবিধাজনক অবস্থানে রয়েছেন পঙ্কজ দেবনাথ।

তার প্রতিদ্বন্দ্বী রয়েছেন জাতীয় পার্টির লাঙল প্রতীকের মিজানুর রহমান ও সাংস্কৃতিক মুক্তিজোট মনোনীত ছড়ি প্রতীকের হৃদয় ইসলাম চুন্নু। তাঁরা এখনো কোনো প্রচার-প্রচারণা শুরু করেননি।

নিউজবিজয়২৪/এফএইচএন

নিউজবিজয় ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন

আপনার সোস্যাল মিডিয়ায় শেয়ার দিন।

NewsBijoy24.Com

নিউজবিজয়২৪.কম একটি অনলাইন নিউজ পোর্টাল। বস্তুনিষ্ঠ ও তথ্যভিত্তিক সংবাদ প্রকাশের প্রতিশ্রুতি নিয়ে ২০১৫ সালের ডিসেম্বর মাসে এটি প্রতিষ্ঠিত হয়। উৎসর্গ করলাম আমার বাবার নামে, যাঁর স্নেহ-সান্নিধ্যের পরশ পরিবারের সুখ-দু:খ,হাসি-কান্না,ব্যথা-বেদনার মাঝেও আপার শান্তিতে পরিবার তথা সমাজে মাথা উচুঁ করে নিজের অস্তিত্বকে মেলে ধরতে পেরেছি।
জনপ্রিয় সংবাদ

রংপুরে চালককে হত্যা করে অটোরিকশা ছিনতাই

Advertisement

ফাঁকা মাঠেই গোল দেবেন পঙ্কজ দেবনাথ

প্রকাশিত সময় :- ০২:৩৯:৫৪ অপরাহ্ন, শনিবার, ২৩ ডিসেম্বর ২০২৩

দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে বরিশাল-৪ (হিজলা-মেহেন্দিগঞ্জ) আসনে আওয়ামী লীগ মনোনীত নৌকার প্রার্থী ছিলেন শাম্মী আহমেদ। কেন্দ্রীয় আওয়ামী লীগের আন্তর্জাতিক বিষয়ক সম্পাদক শাম্মীর মনোনয়নপত্র বাতিল হয়। ফলে এই আসনে এখন অনেকটা ফাঁকা মাঠেই গোল দেবেন আওয়ামী লীগের দুইবারের সাবেক সংসদ সদস্য পঙ্কজ দেবনাথ। এবারের নির্বাচনে দলীয় মনোনয়ন বঞ্চিত হয়ে তিনি এই আসনে স্বতন্ত্র প্রার্থী হয়েছিলেন।

বরিশাল-৪ আসনে পঙ্কজ দেবনাথের আপত্তিতে আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী ড. শাম্মী আহমেদের প্রার্থিতা বাতিল হয়। ফলে পঙ্কজ দেবনাথের সঙ্গে লড়াই করতে টিকে রয়েছেন জাতীয় পার্টি মনোনীত মিজানুর রহমান ও বাংলাদেশ সাংস্কৃতিক মুক্তিজোটের হৃদয় ইসলাম চুন্নু। এই দুই প্রার্থীকে কেউ চেনেন না সংসদীয় আসনের।
মাঠে শক্তিশালী প্রার্থী না থাকলেও পঙ্কজ নাথ ঠিকই জোরেশোরে প্রচারণা শুরু করেছেন। এলাকায় গণসংযোগ করেন স্বতন্ত্র প্রার্থী পঙ্কজ নাথ। আবুল হাসানাত আব্দুল্লাহর কর্মী-সমর্থকেরা পৃথকভাবে নির্বাচনী এলাকার গৌরনদী ও আগৈলঝাড়া উপজেলার বিভিন্ন স্থানে নৌকার পক্ষে গণসংযোগ ও লিফলেট বিতরণ করেছেন।

এর আগে পঙ্কজ দেবনাথকে সরিয়ে আওয়ামী লীগ এই আসনে দলের আন্তর্জাতিক সম্পাদক শাম্মী আহমেদকে মনোনয়ন দিলে পঙ্কজ দেবনাথের স্বতন্ত্র প্রার্থী হওয়ার ঘোষণায় তাদের মাঝে হাড্ডাহাড্ডি লড়াইয়ের সম্ভাবনা দেখা দিয়েছিল। তবে শাম্মীর মনোনয়নপত্র বাতিল হওয়ায় আলোচনা থমকে যায়। এখন পঙ্কজ দেবনাথ অনেকটা ফাঁকা মাঠেই গোল দেবেন বলে মনে করছেন ভোটাররা। তাদের ভাষ্য, মনোনয়ন বঞ্চিত হয়েও এখন তিনিই এই আসনে অলিখিত নৌকার মাঝি। কথায় আছে, কপালে থাকলে ঠেকায় কে!

উল্লেখ্য, ২০১৪ সালে নৌকা প্রতীক নিয়ে প্রথমবারের মতো সংসদ সদস্য নির্বাচিত হন পঙ্কজ দেবনাথ। এরপর একাদশ নির্বাচনেও তিনি সংসদ সদস্য হন। এরপর আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীদের ওপর নির্যাতন বেড়ে যায়। উপজেলায় তার অনুসারী না এমন নেতাকর্মীরা হামলা, মারধরের শিকার হয়ে এলাকা ছাড়েন। এমনকি অনেকেই খুন হন। সেই ঘটনার জেরে ২০২২ সালের সেপ্টেম্বরে আওয়ামী লীগের সকল পদ থেকে পঙ্কজকে অব্যাহতি দেয়া হয়।

পঙ্কজ নাথের কর্মকাণ্ডের ব্যাপক বিতর্কের সৃষ্টি হয়। মেহেন্দিগঞ্জ এবং হিজলা উপজেলা আওয়ামী লীগ থেকেই বিকল্প প্রার্থীর দাবি ওঠে। এসব কারণে তাকে আওয়ামী লীগের মনোনয়ন দেয়া হয়নি। পঙ্কজ দেবনাথ মনোনয়ন হারালে তার নেতাকর্মীদের ওপরও হামলা হয়। তার প্রধান প্রতিদ্বন্দ্বী শাম্মী আহমেদের দ্বৈত নাগরিকত্ব থাকায় মনোনয়ন বাতিল হয়েছে। এতে সুবিধাজনক অবস্থানে রয়েছেন পঙ্কজ দেবনাথ।

তার প্রতিদ্বন্দ্বী রয়েছেন জাতীয় পার্টির লাঙল প্রতীকের মিজানুর রহমান ও সাংস্কৃতিক মুক্তিজোট মনোনীত ছড়ি প্রতীকের হৃদয় ইসলাম চুন্নু। তাঁরা এখনো কোনো প্রচার-প্রচারণা শুরু করেননি।

নিউজবিজয়২৪/এফএইচএন