ঢাকা ১০:৪৬ অপরাহ্ন, শনিবার, ১৫ জুন ২০২৪, ১ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

বিশ্ব পরিবেশ দিবস

প্রতিদিন নিশ্চিন্তে পান খান ! পান পাতায় রয়েছে ভাল থাকার চাবিকাঠি

খাবার খাওয়ার পর অনেকের গ্যাস, অম্বলের সমস্যা প্রায়দিনই হয়ে থাকে তবে সেক্ষেত্রে আপনি একটা পান খেয়ে নিতেই পারেন। এই পান কিন্তু হজম শক্তি বাড়াতে মহা ওষুধ। প্রতিদিন নিশ্চিন্তে পান খান,পান পাতায় রয়েছে আপনার ভাল থাকার চাবিকাঠি । আমরা কমবেশি সকলেই পান খেতে ভালবাসি। অনুষ্ঠান বাড়ির শেষে হোক বা দোকানে গিয়ে পান মুখে পুড়ে দেন অনেকেই। কিন্তু আপনি জানেন কী এই পানেই রয়েছে আপনার সুস্থ থাকার চাবিকাঠি। তবে সেই পান হতে হবে অবশ্যই জর্দা বিহীন সাদা পান। তবে টেস্টের জন্য অবশ্যই আপনি সুপুরি, চুন, লবঙ্গ, গুলকন্দ দিয়েও পান খেতে পারেন। এই পানে রয়েছে হাজার উপকারিতা। আয়ুর্বেদ শাস্ত্র মতে পান খেলে ক্যান্সারের মতো ভয়াবহ রোগকেও প্রতিহত করা ‌যায়। সেক্স লাইফের জন্য পানের মহিমা কিন্তু অপরিসীম।জানা যায়, পানের রসে মধ্যে থাকা গুলকন্দ কর্ম ক্ষমতা বাড়িয়ে সচল রাখে শরীরকে। যৌন জীবন সতেজ রাখতে পানের গুনাগুণ কিন্তু অপরিসীম।খাবার খাওয়া পর অনেকের গ্যাস, অম্বলের সমস্যা প্রায়দিনই হয়ে থাকে তবে সেক্ষেত্রে আপনি একটা পান খেয়ে নিতেই পারেন। এই পান কিন্তু হজম শক্তি বাড়াতে মহা ওষুধি। এছাড়া পানের রস পেটের পি এইচ লেভেল ঠিক করতে সাহায্য করে এর ফলে শরীর থেকে টক্সিন বের হয় ও খিদে বাড়ায়। এছাড়াও পান পাতায় রয়েছে অ্যান্টিব্যাকটেরিয়াল রাসায়নিক তাই পান পাতা কোনও ক্ষত স্থানে লাগলে নিমিষেই কিন্তু ব্যথা থেকে মুক্তি মেলে।
এখানেই কিন্তু শেষ নয় পান অ্যান্টি ফাংগাল হিসেবেও কাজ করে ফলে পায়ের আঙ্গুলে পান পাতার রস লাগালে নিমিষেই যেকোনো ইনফেকশন সেরে যাবে। পান পাতা কিন্তু প্রচন্ড গরম থেকে মুক্তি পেতে ও ব্যবহার করতে পারেন। গরম থেকে মাথা ব্যাথা কিংবা স্কিনের যেকোনো অ্যালার্জি, ফুসকুড়ি, কালো ছোপ,সান বার্ন সারিয়ে দেয়। তাছাড়াও গলা খুসখুস হোক কিংবা সর্দি কাশির সমস্যা সব কিছুকে নিমিষেই সারাতে পান পাতার কিন্তু জুড়ি মেলা ভার। আয়ুর্বেদ শাস্ত্র মতে পান খেলে ক্যান্সারের মতো ভয়াবহ রোগকেও প্রতিহত করা ‌যায়। সুত্র-নিউজ১৮ বাংলা
মো‍: নজরুল ইসলাম/www.newsbijoy24.com

👉 নিউজবিজয় ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন ✅

আপনার সোস্যাল মিডিয়ায় শেয়ার দিন।

NewsBijoy24.Com

নিউজবিজয়২৪.কম একটি অনলাইন নিউজ পোর্টাল। বস্তুনিষ্ঠ ও তথ্যভিত্তিক সংবাদ প্রকাশের প্রতিশ্রুতি নিয়ে ২০১৫ সালের ডিসেম্বর মাসে এটি প্রতিষ্ঠিত হয়। উৎসর্গ করলাম আমার বাবার নামে, যাঁর স্নেহ-সান্নিধ্যের পরশ পরিবারের সুখ-দু:খ,হাসি-কান্না,ব্যথা-বেদনার মাঝেও আপার শান্তিতে পরিবার তথা সমাজে মাথা উচুঁ করে নিজের অস্তিত্বকে মেলে ধরতে পেরেছি।

প্রতিদিন নিশ্চিন্তে পান খান ! পান পাতায় রয়েছে ভাল থাকার চাবিকাঠি

প্রকাশিত সময় :- ১১:২৩:৩৬ অপরাহ্ন, রবিবার, ১৪ মে ২০২৩

খাবার খাওয়ার পর অনেকের গ্যাস, অম্বলের সমস্যা প্রায়দিনই হয়ে থাকে তবে সেক্ষেত্রে আপনি একটা পান খেয়ে নিতেই পারেন। এই পান কিন্তু হজম শক্তি বাড়াতে মহা ওষুধ। প্রতিদিন নিশ্চিন্তে পান খান,পান পাতায় রয়েছে আপনার ভাল থাকার চাবিকাঠি । আমরা কমবেশি সকলেই পান খেতে ভালবাসি। অনুষ্ঠান বাড়ির শেষে হোক বা দোকানে গিয়ে পান মুখে পুড়ে দেন অনেকেই। কিন্তু আপনি জানেন কী এই পানেই রয়েছে আপনার সুস্থ থাকার চাবিকাঠি। তবে সেই পান হতে হবে অবশ্যই জর্দা বিহীন সাদা পান। তবে টেস্টের জন্য অবশ্যই আপনি সুপুরি, চুন, লবঙ্গ, গুলকন্দ দিয়েও পান খেতে পারেন। এই পানে রয়েছে হাজার উপকারিতা। আয়ুর্বেদ শাস্ত্র মতে পান খেলে ক্যান্সারের মতো ভয়াবহ রোগকেও প্রতিহত করা ‌যায়। সেক্স লাইফের জন্য পানের মহিমা কিন্তু অপরিসীম।জানা যায়, পানের রসে মধ্যে থাকা গুলকন্দ কর্ম ক্ষমতা বাড়িয়ে সচল রাখে শরীরকে। যৌন জীবন সতেজ রাখতে পানের গুনাগুণ কিন্তু অপরিসীম।খাবার খাওয়া পর অনেকের গ্যাস, অম্বলের সমস্যা প্রায়দিনই হয়ে থাকে তবে সেক্ষেত্রে আপনি একটা পান খেয়ে নিতেই পারেন। এই পান কিন্তু হজম শক্তি বাড়াতে মহা ওষুধি। এছাড়া পানের রস পেটের পি এইচ লেভেল ঠিক করতে সাহায্য করে এর ফলে শরীর থেকে টক্সিন বের হয় ও খিদে বাড়ায়। এছাড়াও পান পাতায় রয়েছে অ্যান্টিব্যাকটেরিয়াল রাসায়নিক তাই পান পাতা কোনও ক্ষত স্থানে লাগলে নিমিষেই কিন্তু ব্যথা থেকে মুক্তি মেলে।
এখানেই কিন্তু শেষ নয় পান অ্যান্টি ফাংগাল হিসেবেও কাজ করে ফলে পায়ের আঙ্গুলে পান পাতার রস লাগালে নিমিষেই যেকোনো ইনফেকশন সেরে যাবে। পান পাতা কিন্তু প্রচন্ড গরম থেকে মুক্তি পেতে ও ব্যবহার করতে পারেন। গরম থেকে মাথা ব্যাথা কিংবা স্কিনের যেকোনো অ্যালার্জি, ফুসকুড়ি, কালো ছোপ,সান বার্ন সারিয়ে দেয়। তাছাড়াও গলা খুসখুস হোক কিংবা সর্দি কাশির সমস্যা সব কিছুকে নিমিষেই সারাতে পান পাতার কিন্তু জুড়ি মেলা ভার। আয়ুর্বেদ শাস্ত্র মতে পান খেলে ক্যান্সারের মতো ভয়াবহ রোগকেও প্রতিহত করা ‌যায়। সুত্র-নিউজ১৮ বাংলা
মো‍: নজরুল ইসলাম/www.newsbijoy24.com