ঢাকা ১২:৪২ পূর্বাহ্ন, শনিবার, ২০ এপ্রিল ২০২৪, ৬ বৈশাখ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

ঈদ মোবারক

প্রকাশিত সংবাদের প্রতিবাদ

গত ১৬ (শুক্রবার)ফেব্রুয়ারি একটি অনলাইন ফেসবুক পেজ “হামার কুড়িগ্রাম” হলোখানায় ঘুষের টাকা ফেরত চাওয়াকে কেন্দ্র করে দোকানপাট-ঘরবাড়ি ভাংচুর করল’ শিরোনামে প্রকাশিত সংবাদের প্রতিবাদ করেছেন লক্ষীকান্ত আদর্শ উচ্চ বিদ্যালয় এর প্রধান শিক্ষক মোঃ মিজানুর রহমান।
এক প্রতিবাদ লিপিতে তিনি বলেছেন, আমাকে জড়িয়ে যে খবর প্রকাশিত হয়েছে তা সম্পূর্ণ ভুয়া, বানোয়াট ও উদ্দেশ্য প্রণোদিত। দাদন ব্যবসায়ী ফারুক হোসেন এর কাছ থেকে আমার সহকারী শিক্ষক আজাদ হোসেন তার ব্যক্তিগত কাজে অর্থ লেনদেন করেন। ফারুকের নেতৃত্বে ও তার ভাড়াটিয়া গুন্ডা জিয়া ও রফিকুল আমার ওই শিক্ষককে লাঞ্ছিত করে।
ফলে দিনের বেলায় কে বা কাহারা ফারুকের বাড়িতে ভাঙচুর চালায় এ সময় আমি উপস্থিত ছিলাম না । শিক্ষক লাঞ্ছিত ঘটনাকে ধামাচাপা দেয়ার জন্য আমার ও আমার বিদ্যালয়ের নামে প্রবাণ্ডা ছাড়াছে । আমার বিদ্যালয়ে নিয়োগ সংক্রান্ত কোন কাজ সংঘটিত হয়নি। আমার বিরুদ্ধে যে ঘুষ গ্রহণের অভিযোগ উঠেছে । আমি এই নিউজের তীব্র প্রতিবাদ ও নিন্দা জানাচ্ছি।
তাছাড়া প্রকাশিত নিউজের মধ্যে একটি পক্ষ আমার বিরুদ্ধে কুৎসা ছড়াচ্ছে। আমি এতে সামাজিক, মানষিক ও দাফতরিকভাবে হেয় প্রতিপন্ন হয়েছি। দায়িত্বশীল প্রতিষ্ঠান হিসেবে অনলাইনে ফেসবুক পেজ “হামার কুড়িগ্রাম ” কুড়িগ্রামের বিভিন্ন সংবাদ আমরা বিশ্বাসের সাথে পড়ে থাকি।
প্রতিবেদক বিষয়টি আরও গভীরভাবে অনুসন্ধান করা উচিত ছিলো বলে আমি মনে করছি। শিক্ষক লাঞ্ছিত হওয়ার ঘটনাকে ভিন্নখাতে প্রতিবেদন করার জন্য এই হলুদ সাংবাদিকে আমি ঘৃনা প্রদর্শন করছি।
শিক্ষক লাঞ্ছিত হওয়া এলাকাবাসী ও শিক্ষার্থীদের তোপের মুখে ফারুক, জিয়া ও রফিকুল অবরুদ্ধ হয়ে পড়েন পরে এলাকার গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ উপস্থিত হয়ে ২০ শে ফেব্রুয়ারি (মঙ্গলবার)স্থানীয়ভাবে মীমাংসা করে দেওয়া হয়।
এ সময় উপস্থিত ছিলেন হলোখানা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান জনাব মোঃ রেজাউল করিম (রেজা) ভোগডাঙা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান জনাব মোঃসাইদুল হক, ৮ নং হাসনাবাদ ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান জনাব মোঃ নুরুজ্জামান সরকার, বাংলাদেশ শিক্ষক সমিতির(বিটিএ)সদর উপজেলার শাখার সাধারণ সম্পাদক রিপন আহমেদ রনি,বিদ্যালয় ম্যানেজিং কমিটির সভাপতি মোঃ সাবেদ আলী ব্যাপারী কুড়িগ্রাম সদর থানার ইন্সপেক্টর মোঃ হাফিজ, জিয়া সঙ্গীও ফোর্স ,সহ এলাকাবাসী ও প্রতিষ্ঠানের শিক্ষার্থীবৃন্দ।
“হলোখানায় ঘুষের টাকা ফেরত চাওয়াকে কেন্দ্র করে দোকানপাট-ঘরবাড়ি ভাংচুর করল’ শিরোনামে প্রকাশিত সংবাদটি সম্পূর্ণ উদ্দেশ্যপ্রণোদিত মিথ্যা বানোয়াট ও ভিত্তিহীন। কে বা কারা প্রতিহিংসা চরিতার্থ করার জন্য এহেন কর্মকাণ্ডে লিপ্ত।

এ বিষয়টি অসত্য মিথ্যা ঘটনা সমর্থন করতে পারেন না। বিদায় উল্লেখিত প্রতিবেদনটির তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানাচ্ছেন।

নিউজবিজয়২৪/এফএইচএন

👉 নিউজবিজয় ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন ✅

আপনার সোস্যাল মিডিয়ায় শেয়ার দিন।

NewsBijoy24.Com

নিউজবিজয়২৪.কম একটি অনলাইন নিউজ পোর্টাল। বস্তুনিষ্ঠ ও তথ্যভিত্তিক সংবাদ প্রকাশের প্রতিশ্রুতি নিয়ে ২০১৫ সালের ডিসেম্বর মাসে এটি প্রতিষ্ঠিত হয়। উৎসর্গ করলাম আমার বাবার নামে, যাঁর স্নেহ-সান্নিধ্যের পরশ পরিবারের সুখ-দু:খ,হাসি-কান্না,ব্যথা-বেদনার মাঝেও আপার শান্তিতে পরিবার তথা সমাজে মাথা উচুঁ করে নিজের অস্তিত্বকে মেলে ধরতে পেরেছি।

নাটোরে পূর্ব শত্রুতার জেরে যুবককে কুপিয়ে হত্যার অভিযোগ!

প্রকাশিত সংবাদের প্রতিবাদ

প্রকাশিত সময় :- ০৭:০৬:০৭ অপরাহ্ন, শনিবার, ২৪ ফেব্রুয়ারী ২০২৪

গত ১৬ (শুক্রবার)ফেব্রুয়ারি একটি অনলাইন ফেসবুক পেজ “হামার কুড়িগ্রাম” হলোখানায় ঘুষের টাকা ফেরত চাওয়াকে কেন্দ্র করে দোকানপাট-ঘরবাড়ি ভাংচুর করল’ শিরোনামে প্রকাশিত সংবাদের প্রতিবাদ করেছেন লক্ষীকান্ত আদর্শ উচ্চ বিদ্যালয় এর প্রধান শিক্ষক মোঃ মিজানুর রহমান।
এক প্রতিবাদ লিপিতে তিনি বলেছেন, আমাকে জড়িয়ে যে খবর প্রকাশিত হয়েছে তা সম্পূর্ণ ভুয়া, বানোয়াট ও উদ্দেশ্য প্রণোদিত। দাদন ব্যবসায়ী ফারুক হোসেন এর কাছ থেকে আমার সহকারী শিক্ষক আজাদ হোসেন তার ব্যক্তিগত কাজে অর্থ লেনদেন করেন। ফারুকের নেতৃত্বে ও তার ভাড়াটিয়া গুন্ডা জিয়া ও রফিকুল আমার ওই শিক্ষককে লাঞ্ছিত করে।
ফলে দিনের বেলায় কে বা কাহারা ফারুকের বাড়িতে ভাঙচুর চালায় এ সময় আমি উপস্থিত ছিলাম না । শিক্ষক লাঞ্ছিত ঘটনাকে ধামাচাপা দেয়ার জন্য আমার ও আমার বিদ্যালয়ের নামে প্রবাণ্ডা ছাড়াছে । আমার বিদ্যালয়ে নিয়োগ সংক্রান্ত কোন কাজ সংঘটিত হয়নি। আমার বিরুদ্ধে যে ঘুষ গ্রহণের অভিযোগ উঠেছে । আমি এই নিউজের তীব্র প্রতিবাদ ও নিন্দা জানাচ্ছি।
তাছাড়া প্রকাশিত নিউজের মধ্যে একটি পক্ষ আমার বিরুদ্ধে কুৎসা ছড়াচ্ছে। আমি এতে সামাজিক, মানষিক ও দাফতরিকভাবে হেয় প্রতিপন্ন হয়েছি। দায়িত্বশীল প্রতিষ্ঠান হিসেবে অনলাইনে ফেসবুক পেজ “হামার কুড়িগ্রাম ” কুড়িগ্রামের বিভিন্ন সংবাদ আমরা বিশ্বাসের সাথে পড়ে থাকি।
প্রতিবেদক বিষয়টি আরও গভীরভাবে অনুসন্ধান করা উচিত ছিলো বলে আমি মনে করছি। শিক্ষক লাঞ্ছিত হওয়ার ঘটনাকে ভিন্নখাতে প্রতিবেদন করার জন্য এই হলুদ সাংবাদিকে আমি ঘৃনা প্রদর্শন করছি।
শিক্ষক লাঞ্ছিত হওয়া এলাকাবাসী ও শিক্ষার্থীদের তোপের মুখে ফারুক, জিয়া ও রফিকুল অবরুদ্ধ হয়ে পড়েন পরে এলাকার গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ উপস্থিত হয়ে ২০ শে ফেব্রুয়ারি (মঙ্গলবার)স্থানীয়ভাবে মীমাংসা করে দেওয়া হয়।
এ সময় উপস্থিত ছিলেন হলোখানা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান জনাব মোঃ রেজাউল করিম (রেজা) ভোগডাঙা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান জনাব মোঃসাইদুল হক, ৮ নং হাসনাবাদ ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান জনাব মোঃ নুরুজ্জামান সরকার, বাংলাদেশ শিক্ষক সমিতির(বিটিএ)সদর উপজেলার শাখার সাধারণ সম্পাদক রিপন আহমেদ রনি,বিদ্যালয় ম্যানেজিং কমিটির সভাপতি মোঃ সাবেদ আলী ব্যাপারী কুড়িগ্রাম সদর থানার ইন্সপেক্টর মোঃ হাফিজ, জিয়া সঙ্গীও ফোর্স ,সহ এলাকাবাসী ও প্রতিষ্ঠানের শিক্ষার্থীবৃন্দ।
“হলোখানায় ঘুষের টাকা ফেরত চাওয়াকে কেন্দ্র করে দোকানপাট-ঘরবাড়ি ভাংচুর করল’ শিরোনামে প্রকাশিত সংবাদটি সম্পূর্ণ উদ্দেশ্যপ্রণোদিত মিথ্যা বানোয়াট ও ভিত্তিহীন। কে বা কারা প্রতিহিংসা চরিতার্থ করার জন্য এহেন কর্মকাণ্ডে লিপ্ত।

এ বিষয়টি অসত্য মিথ্যা ঘটনা সমর্থন করতে পারেন না। বিদায় উল্লেখিত প্রতিবেদনটির তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানাচ্ছেন।

নিউজবিজয়২৪/এফএইচএন