ঢাকা ০২:৪৮ পূর্বাহ্ন, শনিবার, ১৩ এপ্রিল ২০২৪, ২৯ চৈত্র ১৪৩০ বঙ্গাব্দ

ঈদ মোবারক

পিতা-মাতার উপর অভিমান করে ৮ম শ্রেনির মেয়ের আত্মহত্যা

নওগাঁর বদলগাছীতে পিতা- মাতার ঝগড়া বিবাদের জের ধরে পিতার উপর অভিমান করে জেনি আক্তার(১৪) আত্মহত্যার খবর পাওয়া গিয়েছে।

মৃত জেনি আক্তার (১৪) বদলগাছীর কোলা ইউপির কেশাইল গ্রামের মুমিন হোসেনের মেয়ে এবং স্থানীয় কেশাইল নূরানিয়া মাদ্রাসার ৮ম শ্রেনীর ছাত্রী।

থানা ও স্থানীয় সূত্রে জানাযায়, ৬ই সেপ্টেম্বর বুধবার সকাল সাড়ে ১১টা হতে দুপুর সাড়ে ১২ টার মধ‍্যে সবার অজান্তে খড়ি রাখার ঘরের বাশের সাথে ওরনা পেঁচিয়ে জেনি আক্তার (১৪) আত্মহত্যা করে।
দুপুর সাড়ে ১২টার দিকে মেয়েকে ডাকাডাকি করে কোথাও না পেয়ে বাড়ীর খড়ি রাখার পরিত্যক্ত ঘরের দরজা লাগানো দেখে ডাকাডাকি করলে কোন স্বাড়া শব্দ না পেলে ঘরের দরজা ভেঁঙ্গে ভিতরে প্রবেশ করে দেখে মেয়ে ঘরের তীরের বাঁশের সাথে ওরনা পেচিয়ে ঝুলে আছে। জেনির মায়ের চিৎকার চেচামেচিতে আশেপাশের লোকজন এগিয়ে এসে জেনি আক্তার কে নিচে নামায়। ঘটনাটি থানা পুলিশকে জানালে বিকেল পৌনে ৪টায় বদলগাছী থানার ওসি(তদন্ত) মেহেদী মাসুদ,এস আই আলিম সঙ্গীয় ফোর্স নিয়ে ঘটনাস্থল পরিদর্শনে আসেন।

স্থানীয়রা বলেন, জেনির পিতা মাতা প্রায়ই ঝগড়া বিবাদে করতো। ঝগড়ার এক পর্যায়ে জেনীর মাকে মারধর জেনির পিতা মারধর করত। আজও ঝগড়া বাঁধলে ঝগড়ার মাঝে জেনির পিতা মাকে মারধর করতে থাকে। জেনি এ অবস্থা দেখে পিতাকে লাঠি এগিয়ে দেয়। বলে এই ভাবে প্রতিদিন না মেরে এক বারে মেরে ফেলো।

স্থানীয়রা আরও বলেন কত ৩ থেকে ৪দিন পূর্বে জেনির চাচাতো ভাবীর প্রসাধনী ব‍্যবহার করলে জেনির সাথে ভাবীর ঝগড়া হয়। এরই সূত্র ধরেই আজকের এই ঝগড়া বাঁধে। আর জেনির মায়ের মাথার সমস‍্যা আছে স্বামীও মেয়ের সাথেও প্রায় সময় অশ্লীল ভাষায় গালি দিয়ে কথা বলতো।

এ ব‍্যাপারে বদলগাছী থানা অফিসার ইনচার্জ আতিয়ার রহমান ঘটনার সত‍্যতা নিশ্চিত করে বলেন, পরিবারের কোন অভিযোগ না থাকায় লাশের সুরুতহাল রিপোর্ট করে লাশ দাফনের অনুমতি দেওয়া হয়েছে। এ ব‍্যপারে থানায় একটি অপমৃত‍্যু মামলা করা হয়েছে।

নিউজবিজয়২৪/এফএইচএন

👉 নিউজবিজয় ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন ✅

আপনার সোস্যাল মিডিয়ায় শেয়ার দিন।

NewsBijoy24.Com

নিউজবিজয়২৪.কম একটি অনলাইন নিউজ পোর্টাল। বস্তুনিষ্ঠ ও তথ্যভিত্তিক সংবাদ প্রকাশের প্রতিশ্রুতি নিয়ে ২০১৫ সালের ডিসেম্বর মাসে এটি প্রতিষ্ঠিত হয়। উৎসর্গ করলাম আমার বাবার নামে, যাঁর স্নেহ-সান্নিধ্যের পরশ পরিবারের সুখ-দু:খ,হাসি-কান্না,ব্যথা-বেদনার মাঝেও আপার শান্তিতে পরিবার তথা সমাজে মাথা উচুঁ করে নিজের অস্তিত্বকে মেলে ধরতে পেরেছি।

খুলনায় আওয়ামী লীগ নেতাসহ গুলিবিদ্ধ ৩

prayer-image
  • ফজর
  • যোহর
  • আছর
  • মাগরিব
  • এশা
  • সূর্যোদয়
  • ৪:৩০ পূর্বাহ্ণ
  • ১২:০৫ অপরাহ্ণ
  • ৪:৩২ অপরাহ্ণ
  • ৬:২৪ অপরাহ্ণ
  • ৭:৩৯ অপরাহ্ণ
  • ৫:৪৩ পূর্বাহ্ণ


পিতা-মাতার উপর অভিমান করে ৮ম শ্রেনির মেয়ের আত্মহত্যা

প্রকাশিত সময় :- ১০:১০:১৮ অপরাহ্ন, বুধবার, ৬ সেপ্টেম্বর ২০২৩

নওগাঁর বদলগাছীতে পিতা- মাতার ঝগড়া বিবাদের জের ধরে পিতার উপর অভিমান করে জেনি আক্তার(১৪) আত্মহত্যার খবর পাওয়া গিয়েছে।

মৃত জেনি আক্তার (১৪) বদলগাছীর কোলা ইউপির কেশাইল গ্রামের মুমিন হোসেনের মেয়ে এবং স্থানীয় কেশাইল নূরানিয়া মাদ্রাসার ৮ম শ্রেনীর ছাত্রী।

থানা ও স্থানীয় সূত্রে জানাযায়, ৬ই সেপ্টেম্বর বুধবার সকাল সাড়ে ১১টা হতে দুপুর সাড়ে ১২ টার মধ‍্যে সবার অজান্তে খড়ি রাখার ঘরের বাশের সাথে ওরনা পেঁচিয়ে জেনি আক্তার (১৪) আত্মহত্যা করে।
দুপুর সাড়ে ১২টার দিকে মেয়েকে ডাকাডাকি করে কোথাও না পেয়ে বাড়ীর খড়ি রাখার পরিত্যক্ত ঘরের দরজা লাগানো দেখে ডাকাডাকি করলে কোন স্বাড়া শব্দ না পেলে ঘরের দরজা ভেঁঙ্গে ভিতরে প্রবেশ করে দেখে মেয়ে ঘরের তীরের বাঁশের সাথে ওরনা পেচিয়ে ঝুলে আছে। জেনির মায়ের চিৎকার চেচামেচিতে আশেপাশের লোকজন এগিয়ে এসে জেনি আক্তার কে নিচে নামায়। ঘটনাটি থানা পুলিশকে জানালে বিকেল পৌনে ৪টায় বদলগাছী থানার ওসি(তদন্ত) মেহেদী মাসুদ,এস আই আলিম সঙ্গীয় ফোর্স নিয়ে ঘটনাস্থল পরিদর্শনে আসেন।

স্থানীয়রা বলেন, জেনির পিতা মাতা প্রায়ই ঝগড়া বিবাদে করতো। ঝগড়ার এক পর্যায়ে জেনীর মাকে মারধর জেনির পিতা মারধর করত। আজও ঝগড়া বাঁধলে ঝগড়ার মাঝে জেনির পিতা মাকে মারধর করতে থাকে। জেনি এ অবস্থা দেখে পিতাকে লাঠি এগিয়ে দেয়। বলে এই ভাবে প্রতিদিন না মেরে এক বারে মেরে ফেলো।

স্থানীয়রা আরও বলেন কত ৩ থেকে ৪দিন পূর্বে জেনির চাচাতো ভাবীর প্রসাধনী ব‍্যবহার করলে জেনির সাথে ভাবীর ঝগড়া হয়। এরই সূত্র ধরেই আজকের এই ঝগড়া বাঁধে। আর জেনির মায়ের মাথার সমস‍্যা আছে স্বামীও মেয়ের সাথেও প্রায় সময় অশ্লীল ভাষায় গালি দিয়ে কথা বলতো।

এ ব‍্যাপারে বদলগাছী থানা অফিসার ইনচার্জ আতিয়ার রহমান ঘটনার সত‍্যতা নিশ্চিত করে বলেন, পরিবারের কোন অভিযোগ না থাকায় লাশের সুরুতহাল রিপোর্ট করে লাশ দাফনের অনুমতি দেওয়া হয়েছে। এ ব‍্যপারে থানায় একটি অপমৃত‍্যু মামলা করা হয়েছে।

নিউজবিজয়২৪/এফএইচএন