নির্বাচন সুষ্ঠু না হলে বিচ্ছিন্ন হয়ে যেতে পারি : ইসি আনিছুর » NewsBijoy24 । Online Newspaper of Bangladesh.
ঢাকা ০৬:০৮ অপরাহ্ন, শনিবার, ২৪ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ১২ ফাল্গুন ১৪৩০ বঙ্গাব্দ

নির্বাচন সুষ্ঠু না হলে বিচ্ছিন্ন হয়ে যেতে পারি : ইসি আনিছুর

  • নিউজ বিজয় ডেস্ক :-
  • প্রকাশিত সময় :- ০২:০৬:০৫ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ২ জানুয়ারী ২০২৪
  • ২৫৬ পড়া হয়েছে। নিউজবিজয় ২৪.কম-১৫ ডিসেম্বরে ৯ বছরে পর্দাপন

নির্বাচন কমিশনার (ইসি) আনিছুর রহমান বলেছেন, নির্বাচন অবাধ, সুষ্ঠু গ্রহণযোগ্য হওয়ার বিকল্প নেই। সুষ্ঠু নির্বাচন না হলে আমরা (বাংলাদেশ) বিচ্ছিন্ন হয়ে যেতে পারি। তাই কোনো মতেই নির্বাচনকে প্রশ্নবিদ্ধ করা যাবে না।

আজ মঙ্গলবার রাজধানীর বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে এক্সিকিউটিভ (নির্বাহী) ম্যাজিস্ট্রেটদের দিনব্যাপী প্রশিক্ষণ কার্যক্রমের উদ্বোধন অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্য তিনি এসব কথা বলেন।

তিনি বলেন, আমরা মনে করি, আমাদের নৈতিক দায়িত্ব ও কর্তব্য ভোট অবাধ ও গ্রহণযোগ্য করা। রাষ্ট্রের দায়িত্ব সংবিধানে স্পষ্ট উল্লেখ আছে ভোটের সময় রাষ্টের সব নির্বাহী বিভাগ সুষ্ঠু ভোট করতে নির্বাচন কমিশনকে সহায়তা করবে। সবার দায়িত্ব নির্বাচন কমিশনকে সহায়তা করা। তারই অংশ হিসেবে আমরা সবাই সাংবিধানিক দায়িত্ব পালন করবো। কোনোভাবেই এই নির্বাচনকে প্রশ্নবিদ্ধ হতে দেওয়া যাবে না। যখন যে পদক্ষেপ নেওয়া দরকার সময়ক্ষেপণ না করে দ্রুত পদক্ষেপ নিতে হবে।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে নির্বাচন কমিশনার আনিছুর রহমান বলেছেন, দায়িত্ব পালনে সততা ও নিষ্ঠার সঙ্গে কাজ করতে হবে। কে কোন দল কোন মত কোন পথ এটা দেখা যাবে না। কে কোন দল কারোর পক্ষেই কেউ কাজ করছে না। একাধিক স্তরে পরিবর্তন ও প্রত্যাহর হয়েছে। অনেক গুরুত্বপূর্ণ কর্মকর্তা বদলি হয়েছে। কোনোটাই বিনা কারণে করা হয়নি। কোথাও কোনো নির্দেশনা কোথাও থেকে যাবে না। নির্দেশনা একটাই যেটা পরিষ্কার অবাধ সুস্ঠু ও নিরপেক্ষ নির্বাচন। যারা মাঠে থাকবেন তারা সবাই সঠিক দায়িত্ব পালন করবেন।

চলমান সহিংসতা প্রসঙ্গে এই নির্বাচন কমিশনার বলেন, একটা রাজনৈতিক কর্মসূচি চলছে। সেটা হলো নির্বাচন প্রতিহত করা এবং অসহযোগিতা করা। যদিও যতদূর জানি তারা সহিংস কোনো কাজে যাবেন না বলে মনে হচ্ছে। ২০১৪ সালে ব্যাপক সহিংসতা হয়েছিল ভোটকেন্দ্র জ্বালিয়ে দিয়েছিল। যানবাহনে অগ্নিসংযোগ প্রাণহানির ঘটনা ঘটেছিল। এবার সেই রকম কোনো অবস্থার সৃষ্টি হবে না। অন্য যে কোনো নির্বাচনের চেয়ে এবার সসিংসতা নাই বলা চলে। আচরণবিধি লঙ্ঘনও অন্য নির্বাচনের তুলনায় এবার কম। এতে আমরা সন্তুষ্ট তা নয় আমরা মনে করি এটা আরও কম হওয়া দরকার। কোনো ঘটনা না ঘটাই ভালো।

ইসি সচিব মো. জাহাংগীর আলমের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বক্তব্য দেন স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের জননিরাপত্তা বিভাগের সিনিয়র সচিব মোস্তাফিজুর রহমান, অর্থসচিব ড. মো. খায়েরুজ্জামান মজুমদার, মন্ত্রিপরিষদ বিভাগের সমন্বয় ও সংস্কার সচিব মো. মাহমুদুল হোসাইন খান প্রমুখ।

আরও পড়ুন>>জাপানে ভূমিকম্পে নিহত বেড়ে ৩০

নিউজবিজয়২৪/এফএইচএন

নিউজবিজয় ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন

আপনার সোস্যাল মিডিয়ায় শেয়ার দিন।

NewsBijoy24.Com

নিউজবিজয়২৪.কম একটি অনলাইন নিউজ পোর্টাল। বস্তুনিষ্ঠ ও তথ্যভিত্তিক সংবাদ প্রকাশের প্রতিশ্রুতি নিয়ে ২০১৫ সালের ডিসেম্বর মাসে এটি প্রতিষ্ঠিত হয়। উৎসর্গ করলাম আমার বাবার নামে, যাঁর স্নেহ-সান্নিধ্যের পরশ পরিবারের সুখ-দু:খ,হাসি-কান্না,ব্যথা-বেদনার মাঝেও আপার শান্তিতে পরিবার তথা সমাজে মাথা উচুঁ করে নিজের অস্তিত্বকে মেলে ধরতে পেরেছি।
জনপ্রিয় সংবাদ

হিলিতে নিষিদ্ধ পানীয় বিক্রির দায়ে ৪০ হাজার টাকা জরিমানা

Advertisement

নির্বাচন সুষ্ঠু না হলে বিচ্ছিন্ন হয়ে যেতে পারি : ইসি আনিছুর

প্রকাশিত সময় :- ০২:০৬:০৫ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ২ জানুয়ারী ২০২৪

নির্বাচন কমিশনার (ইসি) আনিছুর রহমান বলেছেন, নির্বাচন অবাধ, সুষ্ঠু গ্রহণযোগ্য হওয়ার বিকল্প নেই। সুষ্ঠু নির্বাচন না হলে আমরা (বাংলাদেশ) বিচ্ছিন্ন হয়ে যেতে পারি। তাই কোনো মতেই নির্বাচনকে প্রশ্নবিদ্ধ করা যাবে না।

আজ মঙ্গলবার রাজধানীর বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে এক্সিকিউটিভ (নির্বাহী) ম্যাজিস্ট্রেটদের দিনব্যাপী প্রশিক্ষণ কার্যক্রমের উদ্বোধন অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্য তিনি এসব কথা বলেন।

তিনি বলেন, আমরা মনে করি, আমাদের নৈতিক দায়িত্ব ও কর্তব্য ভোট অবাধ ও গ্রহণযোগ্য করা। রাষ্ট্রের দায়িত্ব সংবিধানে স্পষ্ট উল্লেখ আছে ভোটের সময় রাষ্টের সব নির্বাহী বিভাগ সুষ্ঠু ভোট করতে নির্বাচন কমিশনকে সহায়তা করবে। সবার দায়িত্ব নির্বাচন কমিশনকে সহায়তা করা। তারই অংশ হিসেবে আমরা সবাই সাংবিধানিক দায়িত্ব পালন করবো। কোনোভাবেই এই নির্বাচনকে প্রশ্নবিদ্ধ হতে দেওয়া যাবে না। যখন যে পদক্ষেপ নেওয়া দরকার সময়ক্ষেপণ না করে দ্রুত পদক্ষেপ নিতে হবে।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে নির্বাচন কমিশনার আনিছুর রহমান বলেছেন, দায়িত্ব পালনে সততা ও নিষ্ঠার সঙ্গে কাজ করতে হবে। কে কোন দল কোন মত কোন পথ এটা দেখা যাবে না। কে কোন দল কারোর পক্ষেই কেউ কাজ করছে না। একাধিক স্তরে পরিবর্তন ও প্রত্যাহর হয়েছে। অনেক গুরুত্বপূর্ণ কর্মকর্তা বদলি হয়েছে। কোনোটাই বিনা কারণে করা হয়নি। কোথাও কোনো নির্দেশনা কোথাও থেকে যাবে না। নির্দেশনা একটাই যেটা পরিষ্কার অবাধ সুস্ঠু ও নিরপেক্ষ নির্বাচন। যারা মাঠে থাকবেন তারা সবাই সঠিক দায়িত্ব পালন করবেন।

চলমান সহিংসতা প্রসঙ্গে এই নির্বাচন কমিশনার বলেন, একটা রাজনৈতিক কর্মসূচি চলছে। সেটা হলো নির্বাচন প্রতিহত করা এবং অসহযোগিতা করা। যদিও যতদূর জানি তারা সহিংস কোনো কাজে যাবেন না বলে মনে হচ্ছে। ২০১৪ সালে ব্যাপক সহিংসতা হয়েছিল ভোটকেন্দ্র জ্বালিয়ে দিয়েছিল। যানবাহনে অগ্নিসংযোগ প্রাণহানির ঘটনা ঘটেছিল। এবার সেই রকম কোনো অবস্থার সৃষ্টি হবে না। অন্য যে কোনো নির্বাচনের চেয়ে এবার সসিংসতা নাই বলা চলে। আচরণবিধি লঙ্ঘনও অন্য নির্বাচনের তুলনায় এবার কম। এতে আমরা সন্তুষ্ট তা নয় আমরা মনে করি এটা আরও কম হওয়া দরকার। কোনো ঘটনা না ঘটাই ভালো।

ইসি সচিব মো. জাহাংগীর আলমের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বক্তব্য দেন স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের জননিরাপত্তা বিভাগের সিনিয়র সচিব মোস্তাফিজুর রহমান, অর্থসচিব ড. মো. খায়েরুজ্জামান মজুমদার, মন্ত্রিপরিষদ বিভাগের সমন্বয় ও সংস্কার সচিব মো. মাহমুদুল হোসাইন খান প্রমুখ।

আরও পড়ুন>>জাপানে ভূমিকম্পে নিহত বেড়ে ৩০

নিউজবিজয়২৪/এফএইচএন