ঢাকা ০৫:১২ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ১৮ এপ্রিল ২০২৪, ৫ বৈশাখ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

ঈদ মোবারক

নারায়ণগঞ্জে দলবদ্ধ ধর্ষণের পর স্বামী-স্ত্রীকে হত্যা, ৬ জনের ফাঁসি

  • নিউজ বিজয় ডেস্ক :-
  • প্রকাশিত সময় :- ০৩:৫২:৩৯ অপরাহ্ন, সোমবার, ৬ জুন ২০২২
  • ৩২৬ পড়া হয়েছে। নিউজবিজয় ২৪.কম-১৫ ডিসেম্বরে ৯ বছরে পর্দাপন

নারায়ণগঞ্জে স্বামী-স্ত্রীকে হত্যার দায়ে ছয়জনকে ফাঁসির আদেশ দিয়েছেন আদালত।
সোমবার দুপুরে নারায়ণগঞ্জ নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালের বিচারক নাজমুল হক শ্যামল এ রায় ঘোষণা করেন। দণ্ডপ্রাপ্তরা হলেন সুমন, লোকমান, শফিক, সুমন-২, আরিফ ও জামাল। তাদের মধ্যে সুমন, লোকমান ও শফিক পলাতক রয়েছেন। মামলা সূত্র জানা গেছে, ২০০৯ সালের ১১ আগস্ট রাতে রাস্তা থেকে খাদিজা নামের এক নারী ও তার স্বামী আবদুর রহমানকে তুলে নিয়ে যান আসামিরা। স্বামীকে বেঁধে তারা খাদিজাকে দলবদ্ধ ধর্ষণ করেন। পরে দুজনকে হত্যা করে রাস্তার পাশের ডোবায় ফেলে দেন। ১৬ আগস্ট দুজনের লাশ উদ্ধার করা হয়। এ ঘটনায় ধর্ষিতার বাবা মামলা করেন। আদালতে ১২ জনের সাক্ষ্যগ্রহণ শেষে আজ এ রায় ঘোষণা দেয়া হয়।

নিউজ বিজয়/নজরুল

👉 নিউজবিজয় ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন ✅

আপনার সোস্যাল মিডিয়ায় শেয়ার দিন।

NewsBijoy24.Com

নিউজবিজয়২৪.কম একটি অনলাইন নিউজ পোর্টাল। বস্তুনিষ্ঠ ও তথ্যভিত্তিক সংবাদ প্রকাশের প্রতিশ্রুতি নিয়ে ২০১৫ সালের ডিসেম্বর মাসে এটি প্রতিষ্ঠিত হয়। উৎসর্গ করলাম আমার বাবার নামে, যাঁর স্নেহ-সান্নিধ্যের পরশ পরিবারের সুখ-দু:খ,হাসি-কান্না,ব্যথা-বেদনার মাঝেও আপার শান্তিতে পরিবার তথা সমাজে মাথা উচুঁ করে নিজের অস্তিত্বকে মেলে ধরতে পেরেছি।

গুলিবিদ্ধ ইউপি সদস্য নান্নুকে মামলায় পলাতক দেখালো বিজিবি

নারায়ণগঞ্জে দলবদ্ধ ধর্ষণের পর স্বামী-স্ত্রীকে হত্যা, ৬ জনের ফাঁসি

প্রকাশিত সময় :- ০৩:৫২:৩৯ অপরাহ্ন, সোমবার, ৬ জুন ২০২২

নারায়ণগঞ্জে স্বামী-স্ত্রীকে হত্যার দায়ে ছয়জনকে ফাঁসির আদেশ দিয়েছেন আদালত।
সোমবার দুপুরে নারায়ণগঞ্জ নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালের বিচারক নাজমুল হক শ্যামল এ রায় ঘোষণা করেন। দণ্ডপ্রাপ্তরা হলেন সুমন, লোকমান, শফিক, সুমন-২, আরিফ ও জামাল। তাদের মধ্যে সুমন, লোকমান ও শফিক পলাতক রয়েছেন। মামলা সূত্র জানা গেছে, ২০০৯ সালের ১১ আগস্ট রাতে রাস্তা থেকে খাদিজা নামের এক নারী ও তার স্বামী আবদুর রহমানকে তুলে নিয়ে যান আসামিরা। স্বামীকে বেঁধে তারা খাদিজাকে দলবদ্ধ ধর্ষণ করেন। পরে দুজনকে হত্যা করে রাস্তার পাশের ডোবায় ফেলে দেন। ১৬ আগস্ট দুজনের লাশ উদ্ধার করা হয়। এ ঘটনায় ধর্ষিতার বাবা মামলা করেন। আদালতে ১২ জনের সাক্ষ্যগ্রহণ শেষে আজ এ রায় ঘোষণা দেয়া হয়।

নিউজ বিজয়/নজরুল