ঢাকা ১০:৫২ পূর্বাহ্ন, মঙ্গলবার, ২৩ এপ্রিল ২০২৪, ১০ বৈশাখ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

ঈদ মোবারক

স্ত্রী’র মর্যাদার দাবিতে!

চেয়ারম্যান ফিরোজ হোসেনের বিরুদ্ধে সংবাদ সম্মেলন

প্রতিনিধি বদলগাছী(নওগাঁ):- বিয়ে নিয়ে প্রতারণা। ভূয়া কাবিনে বিয়ে করে স্ত্রীকে অস্বীকার।স্ত্রী’র মর্যাদার দাবিতে নওগাঁর বদলগাছী উপজেলার মিঠাপুর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান আলহাজ্ব মোঃ ফিরোজ হোসেনের বিরুদ্ধে সংবাদ সম্মেলন করেছেন ভূক্তভোগী এক নারী।

গতকাল ২১ মার্চ বৃহস্পতিবার দুপুর সোয়া ১টায় বদলগাছী উপজেলার বালুচরের সাংবাদিক সংস্থা বদলগাছী’র কার্যালয়ে সংবাদ সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়। এ সময় লিখিত বক্তব্যে নিজেকে বদলগাছীর ৪নং মিঠাপুর ইউপির চেয়ারম্যান ফিরোজ হোসেনের স্ত্রী দাবি করেন নুরায়ন পিংকি।

নুরায়ন পিংকিন একই উপজেলার মিঠাপুর ইউনিয়নের পাঁড়োরা গ্রামের মোঃ নজরুল ইসলামের মেয়ে।

লিখিত বক্তব্যে তিনি জানান, ২০২৩ সালের জুলাই মাসের ১৪ তারিখে ৫ লাখ একশত এক টাকা দেনমোহরে নুরায়ন পিংকিকে বিয়ে করেন ইউপি চেয়ারম্যান আলহাজ্ব মোঃ ফিরোজ হোসেন। বিয়ের পর থেকে কয়েকমাস তাদের দাম্পত্য জীবন ভালই চলছিল। হঠাৎ করে কয়েকদিন আগে পিংকির সাথে ঘটে যাওয়া সবকিছু ভুলে যাওয়ার প্রস্তাব দেন আলহাজ্ব মোঃ ফিরোজ হোসেন। কিন্তু মানতে নারাজ নুরায়ন পিংকি। স্ত্রীর মযার্দার দাবিতে তার সাথে সংসার করতে চাইলে চেয়ারম্যান সবকিছু অস্বীকার করছেন এবং যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুক এ তিনি একজনকে সাংবাদিককে দিয়ে আমার ব্যাপারে মিথ্যা তথ্য প্রচার করছে যার তীব্র নিন্দা জানাচ্ছি।

তিনি আরও জানান, এ ঘটনায় স্ত্রীর মর্যাদার দাবীতে ইতোমধ্যে উপজেলা নির্বাহী অফিসার বরাবর আবেদন করেছেন। সেখানেও কোনও প্রতিকার না পেয়ে সাংবাদিক সম্মেলন করেন তিনি। তিনি বলেন, ইতোমধ্যে চেয়ারম্যান ফিরোজ হোসেন তার ঘনিষ্ঠ লোকজনের মাধ্যমে বিষয়টি আপোষ-মিমাংসার জন্য একাধিকবার প্রস্তাব দিয়েছেন, আমি সেই প্রস্তাব প্রত্যাখ্যান করেছি। আমি অর্থ, ধন-সম্পদ কিছু চাইনা শুধু স্ত্রীর মর্যাদা চাই। আমি আপনাদের মাধ্যমে স্ত্রীর মর্যাদা চাই। এতেও দাবী আদায় না হলে আদালতের স্মরণাপন্ন হবো।

এ বিষয়ে চেয়ারম্যান আলহাজ্ব মোঃ ফিরোজ হোসেনের মুঠোফোনে কল দিলে তিনি অকথ্য ভাষায় গালিগালাজ করে ফোনের সংযোগ কেটে দেন।

আরও পড়ুন>>সিলেটে বেড়েছে ডায়রিয়ার প্রকোপ, হাসপাতালে ভর্তি ৫৪৪২ জন

নিউজবিজয়২৪/এফএইচএন

👉 নিউজবিজয় ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন ✅

আপনার সোস্যাল মিডিয়ায় শেয়ার দিন।

NewsBijoy24.Com

নিউজবিজয়২৪.কম একটি অনলাইন নিউজ পোর্টাল। বস্তুনিষ্ঠ ও তথ্যভিত্তিক সংবাদ প্রকাশের প্রতিশ্রুতি নিয়ে ২০১৫ সালের ডিসেম্বর মাসে এটি প্রতিষ্ঠিত হয়। উৎসর্গ করলাম আমার বাবার নামে, যাঁর স্নেহ-সান্নিধ্যের পরশ পরিবারের সুখ-দু:খ,হাসি-কান্না,ব্যথা-বেদনার মাঝেও আপার শান্তিতে পরিবার তথা সমাজে মাথা উচুঁ করে নিজের অস্তিত্বকে মেলে ধরতে পেরেছি।

১৫০ উপজেলায় প্রতীক বরাদ্দ আজ

স্ত্রী’র মর্যাদার দাবিতে!

চেয়ারম্যান ফিরোজ হোসেনের বিরুদ্ধে সংবাদ সম্মেলন

প্রকাশিত সময় :- ০৯:২৭:৪৬ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ২২ মার্চ ২০২৪

প্রতিনিধি বদলগাছী(নওগাঁ):- বিয়ে নিয়ে প্রতারণা। ভূয়া কাবিনে বিয়ে করে স্ত্রীকে অস্বীকার।স্ত্রী’র মর্যাদার দাবিতে নওগাঁর বদলগাছী উপজেলার মিঠাপুর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান আলহাজ্ব মোঃ ফিরোজ হোসেনের বিরুদ্ধে সংবাদ সম্মেলন করেছেন ভূক্তভোগী এক নারী।

গতকাল ২১ মার্চ বৃহস্পতিবার দুপুর সোয়া ১টায় বদলগাছী উপজেলার বালুচরের সাংবাদিক সংস্থা বদলগাছী’র কার্যালয়ে সংবাদ সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়। এ সময় লিখিত বক্তব্যে নিজেকে বদলগাছীর ৪নং মিঠাপুর ইউপির চেয়ারম্যান ফিরোজ হোসেনের স্ত্রী দাবি করেন নুরায়ন পিংকি।

নুরায়ন পিংকিন একই উপজেলার মিঠাপুর ইউনিয়নের পাঁড়োরা গ্রামের মোঃ নজরুল ইসলামের মেয়ে।

লিখিত বক্তব্যে তিনি জানান, ২০২৩ সালের জুলাই মাসের ১৪ তারিখে ৫ লাখ একশত এক টাকা দেনমোহরে নুরায়ন পিংকিকে বিয়ে করেন ইউপি চেয়ারম্যান আলহাজ্ব মোঃ ফিরোজ হোসেন। বিয়ের পর থেকে কয়েকমাস তাদের দাম্পত্য জীবন ভালই চলছিল। হঠাৎ করে কয়েকদিন আগে পিংকির সাথে ঘটে যাওয়া সবকিছু ভুলে যাওয়ার প্রস্তাব দেন আলহাজ্ব মোঃ ফিরোজ হোসেন। কিন্তু মানতে নারাজ নুরায়ন পিংকি। স্ত্রীর মযার্দার দাবিতে তার সাথে সংসার করতে চাইলে চেয়ারম্যান সবকিছু অস্বীকার করছেন এবং যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুক এ তিনি একজনকে সাংবাদিককে দিয়ে আমার ব্যাপারে মিথ্যা তথ্য প্রচার করছে যার তীব্র নিন্দা জানাচ্ছি।

তিনি আরও জানান, এ ঘটনায় স্ত্রীর মর্যাদার দাবীতে ইতোমধ্যে উপজেলা নির্বাহী অফিসার বরাবর আবেদন করেছেন। সেখানেও কোনও প্রতিকার না পেয়ে সাংবাদিক সম্মেলন করেন তিনি। তিনি বলেন, ইতোমধ্যে চেয়ারম্যান ফিরোজ হোসেন তার ঘনিষ্ঠ লোকজনের মাধ্যমে বিষয়টি আপোষ-মিমাংসার জন্য একাধিকবার প্রস্তাব দিয়েছেন, আমি সেই প্রস্তাব প্রত্যাখ্যান করেছি। আমি অর্থ, ধন-সম্পদ কিছু চাইনা শুধু স্ত্রীর মর্যাদা চাই। আমি আপনাদের মাধ্যমে স্ত্রীর মর্যাদা চাই। এতেও দাবী আদায় না হলে আদালতের স্মরণাপন্ন হবো।

এ বিষয়ে চেয়ারম্যান আলহাজ্ব মোঃ ফিরোজ হোসেনের মুঠোফোনে কল দিলে তিনি অকথ্য ভাষায় গালিগালাজ করে ফোনের সংযোগ কেটে দেন।

আরও পড়ুন>>সিলেটে বেড়েছে ডায়রিয়ার প্রকোপ, হাসপাতালে ভর্তি ৫৪৪২ জন

নিউজবিজয়২৪/এফএইচএন