ঢাকা ০১:৩৭ পূর্বাহ্ন, বুধবার, ২২ মে ২০২৪, ৭ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

গুলিবিদ্ধ ইউপি সদস্য নান্নুকে মামলায় পলাতক দেখালো বিজিবি

  • লালমনিরহাট জেলা প্রতিনিধি :-
  • প্রকাশিত সময় :- ০২:৩২:৩৫ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ১৮ এপ্রিল ২০২৪
  • ১৬১ পড়া হয়েছে। নিউজবিজয় ২৪.কম-১৫ ডিসেম্বরে ৯ বছরে পর্দাপন

ভারতীয় সীমান্তে অবৈধ অনুপ্রবেশ করে ফিরে আসার সময় লালমনিরহাটের সাবেক ইউপি সদস্য সাইফুল ইসলাম নান্নুকে (৪৮) গুলিবিদ্ধ অবস্থায় উদ্ধার করে হাসপাতালে নিলেও মামলায় তাকে পলাতক দেখিয়েছে বডার গার্ড বাংলাদেশ (বিজিবি)।

বুধবার (১৭ এপ্রিল) রাতে বডার গার্ড বাংলাদেশ(বিজিবি) লালমনিরহাট ১৫ ব্যাটালিয়নের লোহাকুচি ক্যাম্পের হাবিলদার মাসুদুল হক বাদি হয়ে ১৩ জনের নাম উল্লেখ করে আরও অজ্ঞাত ৯/১০ জনের বিরুদ্ধে আদিতমারী থানায় একটি মামলা দায়ের করেন।

সে মামলায় গুলিবিদ্ধ সাইফুল ইসলাম নান্নুকে ১৩ নম্বর আসামি করা হলেও তাকে পলাতক এবং তিনজনকে গ্রেপ্তার দেখানো হয়েছে।

মঙ্গলবার (১৬ এপ্রিল) রাত ৯টার দিকে গুলিবিদ্ধ ইউপি সদস্য সাইফুল ইসলাম নান্নুকে আদিতমারী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে আসেন বডার গার্ড বাংলাদেশ(বিজিবি) লোহাকুচি ক্যাম্পের সদস্যরা।

আহত সাইফুল ইসলাম নান্নু আদিতমারী উপজেলার ভেলাবাড়ি ইউনিয়নের তালুক দুলালী গ্রামের মৃত গনি মিয়ার ছেলে। তিনি ভেলাবাড়ি ইউনিয়ন পরিষদের সাবেক সদস্য।

সীমান্তবাসী জানান, ভারতীয় ব্যবসায়ীদের সহায়তায় ভারতীয় গরু পাচার করতে মঙ্গলবার সন্ধ্যায় তালুক দুলালী বড় মালদি সীমান্তে ৯২১ নং পিলার এলাকায় কাটাতারের বেড়ার পাশে নিজের পরিচালিত চর্কা বসাতে যান গরু ব্যবসায়ী সাইফুল ইসলাম নান্নুসহ কয়েকজন রাখাল। এ সময় ভারতীয় সীমান্তরক্ষী বাহিনী(বিএসএফ) তাদের লক্ষ করে রাবার বুলেট ছুড়লে সাইফুল ইসলাম নান্নু গুলিবিদ্ধ হয়ে পড়ে যান। বাকীরা পালিয়ে এসে স্থানীয় লোহাকুচি বিজিবি ক্যাম্পের টহল দলকে খবর দিলে তারা তাকে রক্তাক্ত অবস্থায় উদ্ধার করে আদিতমারী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্রেক্সে নিলে চিকিৎসকরা তাকে উন্নত চিকিৎসার জন্য রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে রেফার করেন।

এ সময় অবৈধ অনুপ্রবেশ করে ফেরার দায়ে ৩ জনকে আটক করে বিজিবি। এ ঘটনায় বুধবার আদিতমারী থানায় অবৈধ অনুপ্রবেশ করে ফেরার দায়ে ১৩ জনের নাম উল্লেখ করে অজ্ঞাত আরও ৯/১০ জনের বিরুদ্ধে একটি মামলা দায়ের করে লোহাকুচি বিওপি ক্যাম্পের হাবিলদার মাসুদুল হক। তবে এ মামলায় গুলিবিদ্ধ সাইফুল ইসলাম নান্নুকে ১৩ নম্বর আসামি করা হলেও তাকে গ্রেপ্তার দেখানো হয়নি। একই সাথে ঘটনার বর্ণনায় গুলিবিদ্ধ কিংবা কাউকে আহত দেখানো হয়নি।

মামলায় বিজিবি’র হাবিলদার মাসুদুল হক দাবি করেন, আসামিরা ৯২১ নং পিলার এলাকায় ভারতে অবৈধ অনুপ্রবেশ করে ফেরার সময় বিজিবি তিনজনকে আটক করে। আটককৃতরা পলাতকদের বিষয়ে তথ্য প্রদান করেন। তবে গুলির কোন ঘটনা বা গুলিবিদ্ধ ইউপি সদস্যকে কঠোর নিরাপত্তায় হাসপাতালে নিলেও তাকে পলাতক দেখানো হয়েছে মামলার বর্ণনায়।

এ মামলায় গ্রেপ্তারকৃতরা হলেন- উপজেলার তালুক দুলালী গ্রামের মৃত গফুরের ছেলে বেলাল হোসেন (৩০), একই গ্রামের আব্দুল হাকিমের ছেলে এমদাদুল হক (৩৫) ও ফলিমারী গ্রামের কান্তিশ্বর বর্মনের ছেলে প্রদিপ কুমার (২৪)।

পলাতকরা হলেন- তালুক দুলালী গ্রামের এমদাদুল হক (৩৫), সাদ্দাম হোসেন (২৮), এমতা (২৭), সৈয়দ আলী (৩৫), সৈকত আলী (২৫), হাশেম আলী (৩০), জাহিদুল ইসলাম (৩৫), জামাল (৩০), আলামিন মিয়া (২৭) ও সাবেক ইউপি সদস্য সাইফুল ইসলাম নান্নু।

মঙ্গলবার রাতে আদিতমারী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের জরুরি বিভাগের দায়িত্বে থাকা চিকিৎসক ডা. বিক্রম চন্দ্র বলেন, আহত সাইফুল ইসলাম নান্নুকে পিঠের নিচে গুলিবিদ্ধ অবস্থায় নিয়ে আসে বিজিবি। তাকে প্রাথমিক চিকিৎসা দিয়ে রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে রেফার করা হয়েছে।

আদিতমারী থানাও ওসি মাহমুদ উন নবী বলেন, বিজিবি অবৈধ অনুপ্রবেশের অপরাধে আটককৃত ৩ জনসহ ১৩ জনের নাম এবং অজ্ঞাত আরও ৯/১০ জনের বিরুদ্ধে মামলা দায়ে করেছে। আটক ৩ জনকে গ্রেপ্তার দোখানো হয়েছে। গুলির বিষয়ে এজহারে কিছু উল্লেখ নেই। তদন্ত করে পরবর্তী ব্যবস্থা নেয়া হবে।

বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ (বিজিবি) লালমনিরহাট ১৫ ব্যাটালিয়নের অধিনায়ক লেঃ কর্ণেল মোফাজ্জল হোসেন বলেন, সীমান্তে অবৈধ অনুপ্রবেশের দায়ে ৩ জনকে আটক করে ১৩ জনের নাম উল্লেখ করে মামলা দেয়া হয়েছে। তবে গুলিবিদ্ধ সাইফুলকে চিকিৎসার জন্য রংপুরে রেফার করায় তাকে তার পরিবারের হাতে তুলে দেয়া হয়েছে। মামলায় তাকেও আসামি করা হয়েছে। সুস্থ হয়ে ফিরলে পুলিশ ব্যবস্থা নিবে।

আরও পড়ুন>>৮০ কিমি বেগে ঝড়ের আভাস, বন্দরে সতর্কতা

নিউজবিজয়২৪/এফএইচএন

👉 নিউজবিজয় ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন ✅

আপনার সোস্যাল মিডিয়ায় শেয়ার দিন।

NewsBijoy24.Com

নিউজবিজয়২৪.কম একটি অনলাইন নিউজ পোর্টাল। বস্তুনিষ্ঠ ও তথ্যভিত্তিক সংবাদ প্রকাশের প্রতিশ্রুতি নিয়ে ২০১৫ সালের ডিসেম্বর মাসে এটি প্রতিষ্ঠিত হয়। উৎসর্গ করলাম আমার বাবার নামে, যাঁর স্নেহ-সান্নিধ্যের পরশ পরিবারের সুখ-দু:খ,হাসি-কান্না,ব্যথা-বেদনার মাঝেও আপার শান্তিতে পরিবার তথা সমাজে মাথা উচুঁ করে নিজের অস্তিত্বকে মেলে ধরতে পেরেছি।

নামাজের সময়সূচি: ২২ মে ২০২৪

গুলিবিদ্ধ ইউপি সদস্য নান্নুকে মামলায় পলাতক দেখালো বিজিবি

প্রকাশিত সময় :- ০২:৩২:৩৫ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ১৮ এপ্রিল ২০২৪

ভারতীয় সীমান্তে অবৈধ অনুপ্রবেশ করে ফিরে আসার সময় লালমনিরহাটের সাবেক ইউপি সদস্য সাইফুল ইসলাম নান্নুকে (৪৮) গুলিবিদ্ধ অবস্থায় উদ্ধার করে হাসপাতালে নিলেও মামলায় তাকে পলাতক দেখিয়েছে বডার গার্ড বাংলাদেশ (বিজিবি)।

বুধবার (১৭ এপ্রিল) রাতে বডার গার্ড বাংলাদেশ(বিজিবি) লালমনিরহাট ১৫ ব্যাটালিয়নের লোহাকুচি ক্যাম্পের হাবিলদার মাসুদুল হক বাদি হয়ে ১৩ জনের নাম উল্লেখ করে আরও অজ্ঞাত ৯/১০ জনের বিরুদ্ধে আদিতমারী থানায় একটি মামলা দায়ের করেন।

সে মামলায় গুলিবিদ্ধ সাইফুল ইসলাম নান্নুকে ১৩ নম্বর আসামি করা হলেও তাকে পলাতক এবং তিনজনকে গ্রেপ্তার দেখানো হয়েছে।

মঙ্গলবার (১৬ এপ্রিল) রাত ৯টার দিকে গুলিবিদ্ধ ইউপি সদস্য সাইফুল ইসলাম নান্নুকে আদিতমারী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে আসেন বডার গার্ড বাংলাদেশ(বিজিবি) লোহাকুচি ক্যাম্পের সদস্যরা।

আহত সাইফুল ইসলাম নান্নু আদিতমারী উপজেলার ভেলাবাড়ি ইউনিয়নের তালুক দুলালী গ্রামের মৃত গনি মিয়ার ছেলে। তিনি ভেলাবাড়ি ইউনিয়ন পরিষদের সাবেক সদস্য।

সীমান্তবাসী জানান, ভারতীয় ব্যবসায়ীদের সহায়তায় ভারতীয় গরু পাচার করতে মঙ্গলবার সন্ধ্যায় তালুক দুলালী বড় মালদি সীমান্তে ৯২১ নং পিলার এলাকায় কাটাতারের বেড়ার পাশে নিজের পরিচালিত চর্কা বসাতে যান গরু ব্যবসায়ী সাইফুল ইসলাম নান্নুসহ কয়েকজন রাখাল। এ সময় ভারতীয় সীমান্তরক্ষী বাহিনী(বিএসএফ) তাদের লক্ষ করে রাবার বুলেট ছুড়লে সাইফুল ইসলাম নান্নু গুলিবিদ্ধ হয়ে পড়ে যান। বাকীরা পালিয়ে এসে স্থানীয় লোহাকুচি বিজিবি ক্যাম্পের টহল দলকে খবর দিলে তারা তাকে রক্তাক্ত অবস্থায় উদ্ধার করে আদিতমারী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্রেক্সে নিলে চিকিৎসকরা তাকে উন্নত চিকিৎসার জন্য রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে রেফার করেন।

এ সময় অবৈধ অনুপ্রবেশ করে ফেরার দায়ে ৩ জনকে আটক করে বিজিবি। এ ঘটনায় বুধবার আদিতমারী থানায় অবৈধ অনুপ্রবেশ করে ফেরার দায়ে ১৩ জনের নাম উল্লেখ করে অজ্ঞাত আরও ৯/১০ জনের বিরুদ্ধে একটি মামলা দায়ের করে লোহাকুচি বিওপি ক্যাম্পের হাবিলদার মাসুদুল হক। তবে এ মামলায় গুলিবিদ্ধ সাইফুল ইসলাম নান্নুকে ১৩ নম্বর আসামি করা হলেও তাকে গ্রেপ্তার দেখানো হয়নি। একই সাথে ঘটনার বর্ণনায় গুলিবিদ্ধ কিংবা কাউকে আহত দেখানো হয়নি।

মামলায় বিজিবি’র হাবিলদার মাসুদুল হক দাবি করেন, আসামিরা ৯২১ নং পিলার এলাকায় ভারতে অবৈধ অনুপ্রবেশ করে ফেরার সময় বিজিবি তিনজনকে আটক করে। আটককৃতরা পলাতকদের বিষয়ে তথ্য প্রদান করেন। তবে গুলির কোন ঘটনা বা গুলিবিদ্ধ ইউপি সদস্যকে কঠোর নিরাপত্তায় হাসপাতালে নিলেও তাকে পলাতক দেখানো হয়েছে মামলার বর্ণনায়।

এ মামলায় গ্রেপ্তারকৃতরা হলেন- উপজেলার তালুক দুলালী গ্রামের মৃত গফুরের ছেলে বেলাল হোসেন (৩০), একই গ্রামের আব্দুল হাকিমের ছেলে এমদাদুল হক (৩৫) ও ফলিমারী গ্রামের কান্তিশ্বর বর্মনের ছেলে প্রদিপ কুমার (২৪)।

পলাতকরা হলেন- তালুক দুলালী গ্রামের এমদাদুল হক (৩৫), সাদ্দাম হোসেন (২৮), এমতা (২৭), সৈয়দ আলী (৩৫), সৈকত আলী (২৫), হাশেম আলী (৩০), জাহিদুল ইসলাম (৩৫), জামাল (৩০), আলামিন মিয়া (২৭) ও সাবেক ইউপি সদস্য সাইফুল ইসলাম নান্নু।

মঙ্গলবার রাতে আদিতমারী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের জরুরি বিভাগের দায়িত্বে থাকা চিকিৎসক ডা. বিক্রম চন্দ্র বলেন, আহত সাইফুল ইসলাম নান্নুকে পিঠের নিচে গুলিবিদ্ধ অবস্থায় নিয়ে আসে বিজিবি। তাকে প্রাথমিক চিকিৎসা দিয়ে রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে রেফার করা হয়েছে।

আদিতমারী থানাও ওসি মাহমুদ উন নবী বলেন, বিজিবি অবৈধ অনুপ্রবেশের অপরাধে আটককৃত ৩ জনসহ ১৩ জনের নাম এবং অজ্ঞাত আরও ৯/১০ জনের বিরুদ্ধে মামলা দায়ে করেছে। আটক ৩ জনকে গ্রেপ্তার দোখানো হয়েছে। গুলির বিষয়ে এজহারে কিছু উল্লেখ নেই। তদন্ত করে পরবর্তী ব্যবস্থা নেয়া হবে।

বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ (বিজিবি) লালমনিরহাট ১৫ ব্যাটালিয়নের অধিনায়ক লেঃ কর্ণেল মোফাজ্জল হোসেন বলেন, সীমান্তে অবৈধ অনুপ্রবেশের দায়ে ৩ জনকে আটক করে ১৩ জনের নাম উল্লেখ করে মামলা দেয়া হয়েছে। তবে গুলিবিদ্ধ সাইফুলকে চিকিৎসার জন্য রংপুরে রেফার করায় তাকে তার পরিবারের হাতে তুলে দেয়া হয়েছে। মামলায় তাকেও আসামি করা হয়েছে। সুস্থ হয়ে ফিরলে পুলিশ ব্যবস্থা নিবে।

আরও পড়ুন>>৮০ কিমি বেগে ঝড়ের আভাস, বন্দরে সতর্কতা

নিউজবিজয়২৪/এফএইচএন