ঢাকা ১০:১৫ অপরাহ্ন, শনিবার, ১৫ জুন ২০২৪, ১ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

বিশ্ব পরিবেশ দিবস

গাসিক নির্বাচন: ১২৩ কেন্দ্রে আজমত উল্লা পেয়েছেন ৫২৯৯২ ভোট, জায়েদা খাতুন ৬৩৮৭৯

গাজীপুর সিটি কর্পোরেশন ভোটে এখন পর্যন্ত এগিয়ে রয়েছেন সাবেক মেয়র জাহাঙ্গীর আলমের মা জায়েদা খাতুন। বিভিন্ন কেন্দ্র থেকে আসা ফলাফলে এ তথ্য জানা যায়।

বৃহস্পতিবার (২৫ মে) রাতে সর্বশেষ প্রাপ্ত তথ্য অনুযায়ী- ৪৮০ কেন্দ্রের মধ্যে ১২৩টির ফলাফলে আজমত উল্লা খান (নৌকা) ৫২ হাজার ৯৯২, আর জায়েদা খাতুন (টেবিল ঘড়ি) ৬৩ হাজার ৮৭৯ ভোট পেয়েছেন। ফলে এখন পর্যন্ত বেসরকারি ফলাফলে ১০ হাজার ৮৮৭ ভোটে পিছিয়ে গেছেন নৌকা প্রতীকের আজমত উল্লা খান।

এ ছাড়া মেয়র পদে অংশগ্রহণ করেছেন লাঙ্গল প্রতীকে জাতীয় পার্টির প্রার্থী এমএম নিয়াজ উদ্দিন, হাতপাখা প্রতীকে ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশের গাজী আতাউর রহমান, গোলাপ ফুল প্রতীকে জাকের পার্টির মো. রাজু আহাম্মেদ, মাছ প্রতীকে গণফ্রন্টের প্রার্থী আতিকুল ইসলাম।

এ ছাড়া স্বতন্ত্র থেকে মেয়র পদে ঘোড়া প্রতীকে মো. হারুন-অর-রশীদ ও হাতি প্রতীকে সরকার শাহনূর ইসলাম প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন।

এর আগে সকাল ৮টায় শুরু হয়ে ভোটগ্রহণ একটানা চলে বিকেল ৪টা পর্যন্ত। সকাল থেকে কেন্দ্রে কেন্দ্রে ভিড় করেন ভোটাররা। নির্বাচন নিয়ে অনিয়মের অভিযোগ ছিল না প্রার্থীদের।

সকাল থেকেই বিভিন্ন কেন্দ্রের সামনে ছিল ভোটারদের স্বতঃস্ফূর্ত উপস্থিতি। বিশেষ করে নারী ভোটারদের সংখ্যা ছিলো চোখে পড়ার মতো। তবে দুপুরের দিকে ভোটার উপস্থিতি কিছুটা কমে যায়।

নিউজবিজয়২৪/এফএইচএন

👉 নিউজবিজয় ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন ✅

আপনার সোস্যাল মিডিয়ায় শেয়ার দিন।

NewsBijoy24.Com

নিউজবিজয়২৪.কম একটি অনলাইন নিউজ পোর্টাল। বস্তুনিষ্ঠ ও তথ্যভিত্তিক সংবাদ প্রকাশের প্রতিশ্রুতি নিয়ে ২০১৫ সালের ডিসেম্বর মাসে এটি প্রতিষ্ঠিত হয়। উৎসর্গ করলাম আমার বাবার নামে, যাঁর স্নেহ-সান্নিধ্যের পরশ পরিবারের সুখ-দু:খ,হাসি-কান্না,ব্যথা-বেদনার মাঝেও আপার শান্তিতে পরিবার তথা সমাজে মাথা উচুঁ করে নিজের অস্তিত্বকে মেলে ধরতে পেরেছি।

গাসিক নির্বাচন: ১২৩ কেন্দ্রে আজমত উল্লা পেয়েছেন ৫২৯৯২ ভোট, জায়েদা খাতুন ৬৩৮৭৯

প্রকাশিত সময় :- ০৯:৩০:৫৬ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ২৫ মে ২০২৩

গাজীপুর সিটি কর্পোরেশন ভোটে এখন পর্যন্ত এগিয়ে রয়েছেন সাবেক মেয়র জাহাঙ্গীর আলমের মা জায়েদা খাতুন। বিভিন্ন কেন্দ্র থেকে আসা ফলাফলে এ তথ্য জানা যায়।

বৃহস্পতিবার (২৫ মে) রাতে সর্বশেষ প্রাপ্ত তথ্য অনুযায়ী- ৪৮০ কেন্দ্রের মধ্যে ১২৩টির ফলাফলে আজমত উল্লা খান (নৌকা) ৫২ হাজার ৯৯২, আর জায়েদা খাতুন (টেবিল ঘড়ি) ৬৩ হাজার ৮৭৯ ভোট পেয়েছেন। ফলে এখন পর্যন্ত বেসরকারি ফলাফলে ১০ হাজার ৮৮৭ ভোটে পিছিয়ে গেছেন নৌকা প্রতীকের আজমত উল্লা খান।

এ ছাড়া মেয়র পদে অংশগ্রহণ করেছেন লাঙ্গল প্রতীকে জাতীয় পার্টির প্রার্থী এমএম নিয়াজ উদ্দিন, হাতপাখা প্রতীকে ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশের গাজী আতাউর রহমান, গোলাপ ফুল প্রতীকে জাকের পার্টির মো. রাজু আহাম্মেদ, মাছ প্রতীকে গণফ্রন্টের প্রার্থী আতিকুল ইসলাম।

এ ছাড়া স্বতন্ত্র থেকে মেয়র পদে ঘোড়া প্রতীকে মো. হারুন-অর-রশীদ ও হাতি প্রতীকে সরকার শাহনূর ইসলাম প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন।

এর আগে সকাল ৮টায় শুরু হয়ে ভোটগ্রহণ একটানা চলে বিকেল ৪টা পর্যন্ত। সকাল থেকে কেন্দ্রে কেন্দ্রে ভিড় করেন ভোটাররা। নির্বাচন নিয়ে অনিয়মের অভিযোগ ছিল না প্রার্থীদের।

সকাল থেকেই বিভিন্ন কেন্দ্রের সামনে ছিল ভোটারদের স্বতঃস্ফূর্ত উপস্থিতি। বিশেষ করে নারী ভোটারদের সংখ্যা ছিলো চোখে পড়ার মতো। তবে দুপুরের দিকে ভোটার উপস্থিতি কিছুটা কমে যায়।

নিউজবিজয়২৪/এফএইচএন