ঢাকা ০৭:২০ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ১৮ জুন ২০২৪, ৪ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

ঈদ মুবারক

কুড়িগ্রামে বিয়ে বাড়িতে গান-বাজনার পরিবর্তে ইসলামিক সংগীতানুষ্ঠান

কুড়িগ্রামের উলিপুরে বিয়ের অনুষ্ঠানে প্রচলিত নিয়ম ভেঙে গান-বাজনার পরিবর্তে ইসলামিক সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়েছে। অনুষ্ঠানে বর-কনের উপস্থিতে পরিবেশিত হয় ইসলামিক সংগীতানুষ্ঠান।

স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, উলিপুর উপজেলার হাতিয়া ইউনিয়নের ফকিরপাড়া গ্রামের কাপড় ব্যবসায়ী রাশেদুল ইসলাম রাজুর সঙ্গে একই ইউনিয়নের দীঘলহাইল্যা গ্রামের আতাউর রহমানের মেয়ে তহুরা জান্নাত মনির বিয়ের ঠিক হয়। গত ১১ সেপ্টেম্বর কনের বাড়িতে বিয়ের আনুষ্ঠানিকতা সম্পন্ন হয়। এরপর ১২ সেপ্টেম্বর দিবাগত রাতে বর রাজুর বাড়িতে বউয়ের আগমন উপলক্ষ্যে গান-বাজনার পরিবর্তে ইসলামিক সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। রাজু ওই গ্রামের মৃত আব্দুর রহমান ও রহিমা বেগমের ছেলে।

বর রাজুর বাড়ির পার্শ্বে হাতিয়া ভবেশ স্কুল মাঠে বিবাহ পরপবর্তী অনুষ্ঠান উপলক্ষ্যে ইসলামিক গান পরিবেশন করেন জাতীয় শিশু কিশোর ইসলামিক সংগঠনের (কলরব) শিল্পী তাহসানুল ইসলাম তাহসীন ও আব্দুল খালেক।

এ অঞ্চলের মানুষ সাধারণত বিয়ের অনুষ্ঠানগুলোতে বাহারি গান ও ডান্স পার্টিতে অভ্যস্ত। ঠিক সেখানেই বিয়ে বাড়িতে ইসলামিক সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের আয়োজন করে এলাকায় ব্যাপক সারা ফেলেছেন রাশেদুল ইসলামের পরিবার।

এ বিষয়ে সংগীত শিল্পী আব্দুল খালেক বলেন, বিয়ে একটি পবিত্র কাজ। বিয়ে বাড়িতে গান বাজনা হারাম। তবে এই বিয়েতে গান বাজনার পরিবর্তে ইসলামিক সংগীত অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়েছে। এটা এ অঞ্চলের একটি ব্যতিক্রম অনুষ্ঠান। অনুষ্ঠানে বিভিন্ন বয়সী মানুষের সমাগম ঘটে।

বর রাশেদুল ইসলাম রাজু বলেন, অনেকে অনেক ভাবে তাদের বিয়েটাকে স্মরণীয় করে রাখতে চান। পারিবারিকভাবে আলোচনা করে এমন একটি ব্যতিক্রমী অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়েছে। কনের বাবা আতাউর রহমান বলেন, বিয়ে একটি পবিত্র বন্ধন, এ উপলক্ষে ব্যতিক্রমী অনুষ্ঠানটি এলাকায় প্রথম। আমরা আশা করি তরুণরা এ বিষয়ে উদ্বুদ্ধ হবে।

স্থানীয় সাবেক সংরক্ষিত নারী ইউপি সদস্য মর্জিনা বেগম বলেন, গতকাল বিকেলে ইসলামিক সঙ্গীত শিল্পীর আগমনের বিষয়টি মাইকিং করে জানানো হয়। পরে রাতে ইসলামিক সঙ্গীত অনুষ্ঠিত হয়। বিয়ে বাড়িতে সাধারণত গান বাজনার আয়োজন করা হয়ে থাকলেও রাজুর বিয়েতে আয়োজন করা হয়েছে ইসলামী সঙ্গীতানুষ্ঠানের।

নিউজবিজয়/এফএইচএন

👉 নিউজবিজয় ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন ✅

আপনার সোস্যাল মিডিয়ায় শেয়ার দিন।

NewsBijoy24.Com

নিউজবিজয়২৪.কম একটি অনলাইন নিউজ পোর্টাল। বস্তুনিষ্ঠ ও তথ্যভিত্তিক সংবাদ প্রকাশের প্রতিশ্রুতি নিয়ে ২০১৫ সালের ডিসেম্বর মাসে এটি প্রতিষ্ঠিত হয়। উৎসর্গ করলাম আমার বাবার নামে, যাঁর স্নেহ-সান্নিধ্যের পরশ পরিবারের সুখ-দু:খ,হাসি-কান্না,ব্যথা-বেদনার মাঝেও আপার শান্তিতে পরিবার তথা সমাজে মাথা উচুঁ করে নিজের অস্তিত্বকে মেলে ধরতে পেরেছি।

কুড়িগ্রামে বিয়ে বাড়িতে গান-বাজনার পরিবর্তে ইসলামিক সংগীতানুষ্ঠান

প্রকাশিত সময় :- ০১:৩৭:৪২ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ১৪ সেপ্টেম্বর ২০২৩

কুড়িগ্রামের উলিপুরে বিয়ের অনুষ্ঠানে প্রচলিত নিয়ম ভেঙে গান-বাজনার পরিবর্তে ইসলামিক সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়েছে। অনুষ্ঠানে বর-কনের উপস্থিতে পরিবেশিত হয় ইসলামিক সংগীতানুষ্ঠান।

স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, উলিপুর উপজেলার হাতিয়া ইউনিয়নের ফকিরপাড়া গ্রামের কাপড় ব্যবসায়ী রাশেদুল ইসলাম রাজুর সঙ্গে একই ইউনিয়নের দীঘলহাইল্যা গ্রামের আতাউর রহমানের মেয়ে তহুরা জান্নাত মনির বিয়ের ঠিক হয়। গত ১১ সেপ্টেম্বর কনের বাড়িতে বিয়ের আনুষ্ঠানিকতা সম্পন্ন হয়। এরপর ১২ সেপ্টেম্বর দিবাগত রাতে বর রাজুর বাড়িতে বউয়ের আগমন উপলক্ষ্যে গান-বাজনার পরিবর্তে ইসলামিক সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। রাজু ওই গ্রামের মৃত আব্দুর রহমান ও রহিমা বেগমের ছেলে।

বর রাজুর বাড়ির পার্শ্বে হাতিয়া ভবেশ স্কুল মাঠে বিবাহ পরপবর্তী অনুষ্ঠান উপলক্ষ্যে ইসলামিক গান পরিবেশন করেন জাতীয় শিশু কিশোর ইসলামিক সংগঠনের (কলরব) শিল্পী তাহসানুল ইসলাম তাহসীন ও আব্দুল খালেক।

এ অঞ্চলের মানুষ সাধারণত বিয়ের অনুষ্ঠানগুলোতে বাহারি গান ও ডান্স পার্টিতে অভ্যস্ত। ঠিক সেখানেই বিয়ে বাড়িতে ইসলামিক সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের আয়োজন করে এলাকায় ব্যাপক সারা ফেলেছেন রাশেদুল ইসলামের পরিবার।

এ বিষয়ে সংগীত শিল্পী আব্দুল খালেক বলেন, বিয়ে একটি পবিত্র কাজ। বিয়ে বাড়িতে গান বাজনা হারাম। তবে এই বিয়েতে গান বাজনার পরিবর্তে ইসলামিক সংগীত অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়েছে। এটা এ অঞ্চলের একটি ব্যতিক্রম অনুষ্ঠান। অনুষ্ঠানে বিভিন্ন বয়সী মানুষের সমাগম ঘটে।

বর রাশেদুল ইসলাম রাজু বলেন, অনেকে অনেক ভাবে তাদের বিয়েটাকে স্মরণীয় করে রাখতে চান। পারিবারিকভাবে আলোচনা করে এমন একটি ব্যতিক্রমী অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়েছে। কনের বাবা আতাউর রহমান বলেন, বিয়ে একটি পবিত্র বন্ধন, এ উপলক্ষে ব্যতিক্রমী অনুষ্ঠানটি এলাকায় প্রথম। আমরা আশা করি তরুণরা এ বিষয়ে উদ্বুদ্ধ হবে।

স্থানীয় সাবেক সংরক্ষিত নারী ইউপি সদস্য মর্জিনা বেগম বলেন, গতকাল বিকেলে ইসলামিক সঙ্গীত শিল্পীর আগমনের বিষয়টি মাইকিং করে জানানো হয়। পরে রাতে ইসলামিক সঙ্গীত অনুষ্ঠিত হয়। বিয়ে বাড়িতে সাধারণত গান বাজনার আয়োজন করা হয়ে থাকলেও রাজুর বিয়েতে আয়োজন করা হয়েছে ইসলামী সঙ্গীতানুষ্ঠানের।

নিউজবিজয়/এফএইচএন