ঢাকা ০৯:২৬ পূর্বাহ্ন, শনিবার, ১৮ মে ২০২৪, ৪ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

কুড়িগ্রামে ঘর থেকে আড়াই বছর বয়সী শিশুর দ্বিখণ্ডিত মরদেহ উদ্ধার

কুড়িগ্রামে দিনে দুপুরে নিজ ঘর থেকে আড়াই বছরের কন্যা শিশু দুলালীর দ্বিখণ্ডিত মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ। এ নির্মম হত্যাকান্ডের ঘটনাটি ঘটেছে কুড়িগ্রাম সদরের পাঁচগাছী ইউনিয়নের মাস্টার পাড়া এলাকায়।

আজ মঙ্গলবার দুপুরে ওই ইউনিয়নের মাস্টার পাড়া গ্রামের দুলাল-শাবনুর দম্পতির শয়ন ঘর থেকে একমাত্র কন্যা সন্তানের মাথা বিছিন্ন মরদেহ উদ্ধার করা হয়।

স্থানীয়রা জানায়, হঠাৎ চিৎকার শুনে তাদের বাড়িতে গিয়ে ঘরের ভিতরে দেহ থেকে মাথা বিছিন্ন দুলালীর মরদেহ মাটিতে পড়ে থাকতে দেখে। এসময় মরদেহের পাশে একটি তরকারি কাটা রক্তমাখা বটি দেখতে পান তারা। পরে স্থানীয়রা পুলিশকে খবর দিলে, পুলিশ ঘটনাস্থলে এসে মরদেহ উদ্ধার করে থানায় নিয়ে যায়।

নিহত দুলালীর মা শাবনুর জানায়, তার একমাত্র মেয়েকে নদীতে গোসল করিয়ে বাড়িতে পাঠিয়ে দেন তিনি। পরে বাড়িতে এসে মেয়ের কোন সাড়াশব্দ না পেয়ে খোঁজাখুঁজির এক পর্যায়ে বাহিরে ছিকল আটকানো ঘরের দরজা খুলে ভিতরে মেয়ের রক্তমাখা মরদেহ দেখতে পান তিনি। পরে চিৎকার দিলে স্থানীয় লোকজন বাড়িতে এসে তার মরদেহ দেখতে পান।

তিনি বলেন, দীর্ঘদিন পর আল্লাহ আমাকে একটা মেয়ে সন্তান দান করেছে। সেই সন্তানকে আজ জবাই করা হলো। আমার অবুঝ শিশুকে যে খুন করেছে তার বিচার চাই। তার বিচার না হলে, আমি আমার জীবন শেষ করে দিবো।

কুড়িগ্রাম সদর সার্কেলের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার ওয়াহিদুননবী ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, কন্যা শিশুটির মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে। তদন্ত সাপেক্ষে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

নিউজবিজয়২৪/এফএইচএন

👉 নিউজবিজয় ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন ✅

আপনার সোস্যাল মিডিয়ায় শেয়ার দিন।

NewsBijoy24.Com

নিউজবিজয়২৪.কম একটি অনলাইন নিউজ পোর্টাল। বস্তুনিষ্ঠ ও তথ্যভিত্তিক সংবাদ প্রকাশের প্রতিশ্রুতি নিয়ে ২০১৫ সালের ডিসেম্বর মাসে এটি প্রতিষ্ঠিত হয়। উৎসর্গ করলাম আমার বাবার নামে, যাঁর স্নেহ-সান্নিধ্যের পরশ পরিবারের সুখ-দু:খ,হাসি-কান্না,ব্যথা-বেদনার মাঝেও আপার শান্তিতে পরিবার তথা সমাজে মাথা উচুঁ করে নিজের অস্তিত্বকে মেলে ধরতে পেরেছি।

কুড়িগ্রামে ঘর থেকে আড়াই বছর বয়সী শিশুর দ্বিখণ্ডিত মরদেহ উদ্ধার

প্রকাশিত সময় :- ১০:২০:৩৪ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ৩০ এপ্রিল ২০২৪

কুড়িগ্রামে দিনে দুপুরে নিজ ঘর থেকে আড়াই বছরের কন্যা শিশু দুলালীর দ্বিখণ্ডিত মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ। এ নির্মম হত্যাকান্ডের ঘটনাটি ঘটেছে কুড়িগ্রাম সদরের পাঁচগাছী ইউনিয়নের মাস্টার পাড়া এলাকায়।

আজ মঙ্গলবার দুপুরে ওই ইউনিয়নের মাস্টার পাড়া গ্রামের দুলাল-শাবনুর দম্পতির শয়ন ঘর থেকে একমাত্র কন্যা সন্তানের মাথা বিছিন্ন মরদেহ উদ্ধার করা হয়।

স্থানীয়রা জানায়, হঠাৎ চিৎকার শুনে তাদের বাড়িতে গিয়ে ঘরের ভিতরে দেহ থেকে মাথা বিছিন্ন দুলালীর মরদেহ মাটিতে পড়ে থাকতে দেখে। এসময় মরদেহের পাশে একটি তরকারি কাটা রক্তমাখা বটি দেখতে পান তারা। পরে স্থানীয়রা পুলিশকে খবর দিলে, পুলিশ ঘটনাস্থলে এসে মরদেহ উদ্ধার করে থানায় নিয়ে যায়।

নিহত দুলালীর মা শাবনুর জানায়, তার একমাত্র মেয়েকে নদীতে গোসল করিয়ে বাড়িতে পাঠিয়ে দেন তিনি। পরে বাড়িতে এসে মেয়ের কোন সাড়াশব্দ না পেয়ে খোঁজাখুঁজির এক পর্যায়ে বাহিরে ছিকল আটকানো ঘরের দরজা খুলে ভিতরে মেয়ের রক্তমাখা মরদেহ দেখতে পান তিনি। পরে চিৎকার দিলে স্থানীয় লোকজন বাড়িতে এসে তার মরদেহ দেখতে পান।

তিনি বলেন, দীর্ঘদিন পর আল্লাহ আমাকে একটা মেয়ে সন্তান দান করেছে। সেই সন্তানকে আজ জবাই করা হলো। আমার অবুঝ শিশুকে যে খুন করেছে তার বিচার চাই। তার বিচার না হলে, আমি আমার জীবন শেষ করে দিবো।

কুড়িগ্রাম সদর সার্কেলের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার ওয়াহিদুননবী ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, কন্যা শিশুটির মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে। তদন্ত সাপেক্ষে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

নিউজবিজয়২৪/এফএইচএন