ঢাকা ০৩:১৬ অপরাহ্ন, শনিবার, ২৫ মে ২০২৪, ১১ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

এবার প্রেমের টানে পাবনায় মালয়েশিয়ান তরুণী

  • নিউজ বিজয় ডেস্ক :-
  • প্রকাশিত সময় :- ০৭:১২:১৪ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ১৮ জুলাই ২০২৩
  • ৭৮৪ পড়া হয়েছে। নিউজবিজয় ২৪.কম-১৫ ডিসেম্বরে ৯ বছরে পর্দাপন

প্রেমের টানে মালয়েশিয়ার রাজধানী কুয়ালালামপুর থেকে প্রায় আড়াই হাজার মাইল পথ পাড়ি দিয়ে পাবনার সুজানগরে প্রেমিক রায়হান মণ্ডলের কাছে ছুটে এসেছেন মালয়েশিয়ান তরুণী নুর শাহিদা (২৬)।

মঙ্গলবার দুপুরে সরেজমিন দেখা যায়, মালয়েশিয়ান তরুণী আসার খবর গ্রামসহ আশপাশের এলাকায় ছড়িয়ে পড়লে তাকে দেখতে ওই বাড়িতে ভিড় জমান উৎসুক মানুষ।

প্রেমিক রায়হান মণ্ডল পাবনা জেলার সুজানগর উপজেলার সাতবাড়িয়া ইউনিয়নের তারাবাড়িয়া নতুনপাড়া গ্রামের মো. সামাদ মণ্ডলের ছেলে। আর নুর শাহিদা মালয়েশিয়ার রাজধানী কুয়ালালামপুর শহরের মোহাম্মদ চিমার উদ্দিনের মেয়ে।

তিনি গত রোববার এক মাসের ভিসা নিয়ে বাংলাদেশে এসেছেন। পরে সোমবার প্রেমিক রায়হানের নিজ গ্রামের বাড়িতে আসেন। পরে গতকাল সোমবার এক লাখ টাকা দেনমোহর নির্ধারণ করে বিবাহবন্ধনে আবদ্ধ হন তারা।

এ ব্যাপারে রায়হান মণ্ডল বলেন, সাত বছর আগে আমি মালয়েশিয়া যাই। মালয়েশিয়ায় থাকার সুবাদে সেখানে পরিচয় হয় মালয়েশিয়ান তরুণী নুর শাহিদার সঙ্গে। পরিচয় থেকে ভালোবাসা। আমাদের দীর্ঘ প্রায় তিন বছরের সম্পর্ক। সে নিজেই সিদ্ধান্ত নিয়ে বাংলাদেশে এসেছে। পরবর্তীতে বাংলাদেশে আসার পর গত সোমবার আমার গ্রামের বাড়ি পাবনার সুজানগর উপজেলার সাতবাড়িয়ার তারাবাড়িয়া নতুনপাড়ায় দুই পরিবারের সম্মতিতে বিবাহবন্ধনে আবদ্ধ হই। বিয়ের দেনমোহর নির্ধারণ করা হয় এক লাখ টাকা। কিছুদিন পর আমরা দুজনই আবার মালয়েশিয়ায় যাব।

ভাঙা ভাঙা বাংলায় মালয়েশিয়ান তরুণী নুর শাহিদা বলেন, রায়হান আমাকে ভালোবাসে, আমিও রায়হানকে ভালোবাসি। বাংলাদেশে এসে আমি আমার পরিবার ও রায়হানের পরিবারের সম্মতিতে সোমবার দুজন বিয়ে করেছি। আমি বাংলাদেশকে ভালোবাসি। এখনাকার সবাই ভালো ও আন্তরিক।

রায়হান মণ্ডলের পিতা সামাদ মণ্ডল বলেন, আমার ছেলের স্ত্রী ভালোমনের মানুষ। আমাদের পরিবার ও আগত মানুষজনের সঙ্গে সহজেই মিশে গেছেন।

নিউজবিজয়২৪/এফএইচএন

👉 নিউজবিজয় ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন ✅

আপনার সোস্যাল মিডিয়ায় শেয়ার দিন।

NewsBijoy24.Com

নিউজবিজয়২৪.কম একটি অনলাইন নিউজ পোর্টাল। বস্তুনিষ্ঠ ও তথ্যভিত্তিক সংবাদ প্রকাশের প্রতিশ্রুতি নিয়ে ২০১৫ সালের ডিসেম্বর মাসে এটি প্রতিষ্ঠিত হয়। উৎসর্গ করলাম আমার বাবার নামে, যাঁর স্নেহ-সান্নিধ্যের পরশ পরিবারের সুখ-দু:খ,হাসি-কান্না,ব্যথা-বেদনার মাঝেও আপার শান্তিতে পরিবার তথা সমাজে মাথা উচুঁ করে নিজের অস্তিত্বকে মেলে ধরতে পেরেছি।

এবার প্রেমের টানে পাবনায় মালয়েশিয়ান তরুণী

প্রকাশিত সময় :- ০৭:১২:১৪ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ১৮ জুলাই ২০২৩

প্রেমের টানে মালয়েশিয়ার রাজধানী কুয়ালালামপুর থেকে প্রায় আড়াই হাজার মাইল পথ পাড়ি দিয়ে পাবনার সুজানগরে প্রেমিক রায়হান মণ্ডলের কাছে ছুটে এসেছেন মালয়েশিয়ান তরুণী নুর শাহিদা (২৬)।

মঙ্গলবার দুপুরে সরেজমিন দেখা যায়, মালয়েশিয়ান তরুণী আসার খবর গ্রামসহ আশপাশের এলাকায় ছড়িয়ে পড়লে তাকে দেখতে ওই বাড়িতে ভিড় জমান উৎসুক মানুষ।

প্রেমিক রায়হান মণ্ডল পাবনা জেলার সুজানগর উপজেলার সাতবাড়িয়া ইউনিয়নের তারাবাড়িয়া নতুনপাড়া গ্রামের মো. সামাদ মণ্ডলের ছেলে। আর নুর শাহিদা মালয়েশিয়ার রাজধানী কুয়ালালামপুর শহরের মোহাম্মদ চিমার উদ্দিনের মেয়ে।

তিনি গত রোববার এক মাসের ভিসা নিয়ে বাংলাদেশে এসেছেন। পরে সোমবার প্রেমিক রায়হানের নিজ গ্রামের বাড়িতে আসেন। পরে গতকাল সোমবার এক লাখ টাকা দেনমোহর নির্ধারণ করে বিবাহবন্ধনে আবদ্ধ হন তারা।

এ ব্যাপারে রায়হান মণ্ডল বলেন, সাত বছর আগে আমি মালয়েশিয়া যাই। মালয়েশিয়ায় থাকার সুবাদে সেখানে পরিচয় হয় মালয়েশিয়ান তরুণী নুর শাহিদার সঙ্গে। পরিচয় থেকে ভালোবাসা। আমাদের দীর্ঘ প্রায় তিন বছরের সম্পর্ক। সে নিজেই সিদ্ধান্ত নিয়ে বাংলাদেশে এসেছে। পরবর্তীতে বাংলাদেশে আসার পর গত সোমবার আমার গ্রামের বাড়ি পাবনার সুজানগর উপজেলার সাতবাড়িয়ার তারাবাড়িয়া নতুনপাড়ায় দুই পরিবারের সম্মতিতে বিবাহবন্ধনে আবদ্ধ হই। বিয়ের দেনমোহর নির্ধারণ করা হয় এক লাখ টাকা। কিছুদিন পর আমরা দুজনই আবার মালয়েশিয়ায় যাব।

ভাঙা ভাঙা বাংলায় মালয়েশিয়ান তরুণী নুর শাহিদা বলেন, রায়হান আমাকে ভালোবাসে, আমিও রায়হানকে ভালোবাসি। বাংলাদেশে এসে আমি আমার পরিবার ও রায়হানের পরিবারের সম্মতিতে সোমবার দুজন বিয়ে করেছি। আমি বাংলাদেশকে ভালোবাসি। এখনাকার সবাই ভালো ও আন্তরিক।

রায়হান মণ্ডলের পিতা সামাদ মণ্ডল বলেন, আমার ছেলের স্ত্রী ভালোমনের মানুষ। আমাদের পরিবার ও আগত মানুষজনের সঙ্গে সহজেই মিশে গেছেন।

নিউজবিজয়২৪/এফএইচএন