ঢাকা ১১:৩২ অপরাহ্ন, শনিবার, ১৮ মে ২০২৪, ৪ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

এবার কেএনএফের সহযোগী গ্রেপ্তার

  • নিউজ বিজয় ডেস্ক :-
  • প্রকাশিত সময় :- ০৩:৫৫:০৪ অপরাহ্ন, বুধবার, ১০ এপ্রিল ২০২৪
  • ২২৬ পড়া হয়েছে। নিউজবিজয় ২৪.কম-১৫ ডিসেম্বরে ৯ বছরে পর্দাপন

বান্দরবানে ব্যাংক ডাকাতি ও অস্ত্র লুটের পর শুরু হওয়া যৌথ অভিযানে এবার রুমার বেথুলপাড়া থেকে কেএনএফের সহযোগী লাল লিয়ান সিয়াম বমকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। মঙ্গলবার (৯ এপ্রিল) রাতে তাকে গ্রেপ্তার করা হয়। সিয়াম বম রুমা সদর ইউনিয়নের মৃত থন আলহ বমের ছেলে। গ্রেপ্তারের পর বুধবার (১০ এপ্রিল) তাকে জেল হাজতে পাঠানো হয়েছে।

বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন বান্দরবানের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার হোসাইন মো. রায়হান কাজেমী।
এর আগে গত কয়েকদিনে যৌথবাহিনীর অভিযানে আটক ১৭ নারী সদস্যসহ ৫২ জনকে সোমবার (৮ এপ্রিল) বান্দরবান সদর থানায় হস্তান্তর করা হয়। মঙ্গলবারের (৯ এপ্রিল) মধ্যে তাদেরকে বান্দরবান চিফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে হাজির করে পুলিশ। এদিন বিকেল সাড়ে ৪টায় তাদের জামিন নামঞ্জুর করে কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দেন সিনিয়র জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট বিচারক মোহাম্মদ নাজমুল হোছাইন।

বান্দরবান সদর কোট পুলিশ পরিদর্শক একে ফজলুল হক জানান, মঙ্গলবার বিকেল পর্যন্ত ৫২ জনকে কারাগারে পাঠানো হয়েছে। এর আগে সোমবার কেএনএফ এর এই ঘটনায় আরো ২জনকে আদালতে তোলার পর কারাগারে পাঠানো হয়েছিল।

বান্দরবানের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার হোসাইন মো. রায়হান কাজেমী বলেন, এ পর্যন্ত ১৭জন নারীসহ ৫৪ জনকে ব্যাংক ডাকাতি ও অস্ত্র লুটের মামলায় আদালতে তোলা হয়েছে। বিচারক জামিন নামঞ্জুর করে সবাইকে কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দিয়েছেন। তাদের মধ্যে এলিজাবেথ বম নামের এক নারী ছয় মাসের অন্তঃসত্ত্বা থাকায় আদালতে তোলা হয়নি। তাকে পর্যবেক্ষণে রাখা হয়েছে বলে জানান।

গত ২ ও ৩ এপ্রিল রুমা ও থানচিতে সোনালী ও কৃষি ব্যাংকে ডাকাতি, ব্যাংক ব্যবস্থাপক অপহরণ, টাকা লুট ও পুলিশ-আনসারের ১৪টি অস্ত্র ছিনতাইয়ের ঘটনা ঘটে। ব্যাংক ব্যবস্থাপক উদ্ধার হলেও লুট হওয়া সব অস্ত্র ও টাকা উদ্ধার করা যায়নি। সশস্ত্র সংগঠন কেএনএফ এ সন্ত্রাসী ঘটনা ঘটিয়েছে বলে আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী জানিয়েছে। সন্ত্রাসীদের গ্রেপ্তার, অস্ত্র ও টাকা উদ্ধারের অভিযানে অংশ নিচ্ছেন সেনাবাহিনী, বিজিবি, র‍্যাব, পুলিশ ও আনসার সদস্যরা। অভিযান সমন্বয় করছে সেনাবাহিনী। অভিযানে ঢাকা থেকে নিয়ে আসা হয়েছে ৪টি সাজোয়া যান (এপিসি)।

নিউজবিজয়২৪/এফএইচএন

👉 নিউজবিজয় ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন ✅

আপনার সোস্যাল মিডিয়ায় শেয়ার দিন।

NewsBijoy24.Com

নিউজবিজয়২৪.কম একটি অনলাইন নিউজ পোর্টাল। বস্তুনিষ্ঠ ও তথ্যভিত্তিক সংবাদ প্রকাশের প্রতিশ্রুতি নিয়ে ২০১৫ সালের ডিসেম্বর মাসে এটি প্রতিষ্ঠিত হয়। উৎসর্গ করলাম আমার বাবার নামে, যাঁর স্নেহ-সান্নিধ্যের পরশ পরিবারের সুখ-দু:খ,হাসি-কান্না,ব্যথা-বেদনার মাঝেও আপার শান্তিতে পরিবার তথা সমাজে মাথা উচুঁ করে নিজের অস্তিত্বকে মেলে ধরতে পেরেছি।

ঘূর্ণিঝড় নিয়ে সর্বশেষ যে তথ্য দিল আবহাওয়া অধিদপ্তর

এবার কেএনএফের সহযোগী গ্রেপ্তার

প্রকাশিত সময় :- ০৩:৫৫:০৪ অপরাহ্ন, বুধবার, ১০ এপ্রিল ২০২৪

বান্দরবানে ব্যাংক ডাকাতি ও অস্ত্র লুটের পর শুরু হওয়া যৌথ অভিযানে এবার রুমার বেথুলপাড়া থেকে কেএনএফের সহযোগী লাল লিয়ান সিয়াম বমকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। মঙ্গলবার (৯ এপ্রিল) রাতে তাকে গ্রেপ্তার করা হয়। সিয়াম বম রুমা সদর ইউনিয়নের মৃত থন আলহ বমের ছেলে। গ্রেপ্তারের পর বুধবার (১০ এপ্রিল) তাকে জেল হাজতে পাঠানো হয়েছে।

বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন বান্দরবানের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার হোসাইন মো. রায়হান কাজেমী।
এর আগে গত কয়েকদিনে যৌথবাহিনীর অভিযানে আটক ১৭ নারী সদস্যসহ ৫২ জনকে সোমবার (৮ এপ্রিল) বান্দরবান সদর থানায় হস্তান্তর করা হয়। মঙ্গলবারের (৯ এপ্রিল) মধ্যে তাদেরকে বান্দরবান চিফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে হাজির করে পুলিশ। এদিন বিকেল সাড়ে ৪টায় তাদের জামিন নামঞ্জুর করে কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দেন সিনিয়র জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট বিচারক মোহাম্মদ নাজমুল হোছাইন।

বান্দরবান সদর কোট পুলিশ পরিদর্শক একে ফজলুল হক জানান, মঙ্গলবার বিকেল পর্যন্ত ৫২ জনকে কারাগারে পাঠানো হয়েছে। এর আগে সোমবার কেএনএফ এর এই ঘটনায় আরো ২জনকে আদালতে তোলার পর কারাগারে পাঠানো হয়েছিল।

বান্দরবানের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার হোসাইন মো. রায়হান কাজেমী বলেন, এ পর্যন্ত ১৭জন নারীসহ ৫৪ জনকে ব্যাংক ডাকাতি ও অস্ত্র লুটের মামলায় আদালতে তোলা হয়েছে। বিচারক জামিন নামঞ্জুর করে সবাইকে কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দিয়েছেন। তাদের মধ্যে এলিজাবেথ বম নামের এক নারী ছয় মাসের অন্তঃসত্ত্বা থাকায় আদালতে তোলা হয়নি। তাকে পর্যবেক্ষণে রাখা হয়েছে বলে জানান।

গত ২ ও ৩ এপ্রিল রুমা ও থানচিতে সোনালী ও কৃষি ব্যাংকে ডাকাতি, ব্যাংক ব্যবস্থাপক অপহরণ, টাকা লুট ও পুলিশ-আনসারের ১৪টি অস্ত্র ছিনতাইয়ের ঘটনা ঘটে। ব্যাংক ব্যবস্থাপক উদ্ধার হলেও লুট হওয়া সব অস্ত্র ও টাকা উদ্ধার করা যায়নি। সশস্ত্র সংগঠন কেএনএফ এ সন্ত্রাসী ঘটনা ঘটিয়েছে বলে আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী জানিয়েছে। সন্ত্রাসীদের গ্রেপ্তার, অস্ত্র ও টাকা উদ্ধারের অভিযানে অংশ নিচ্ছেন সেনাবাহিনী, বিজিবি, র‍্যাব, পুলিশ ও আনসার সদস্যরা। অভিযান সমন্বয় করছে সেনাবাহিনী। অভিযানে ঢাকা থেকে নিয়ে আসা হয়েছে ৪টি সাজোয়া যান (এপিসি)।

নিউজবিজয়২৪/এফএইচএন