ঢাকা ০৩:৪৪ পূর্বাহ্ন, শনিবার, ১৩ এপ্রিল ২০২৪, ২৯ চৈত্র ১৪৩০ বঙ্গাব্দ

ঈদ মোবারক

আদিতমারীতে জমি নিয়ে বিরোধের জেরে ভাইয়ের হাতে ভাই খুন: গ্রেফতার তিন

ফাইল ছবি

লালমনিরহাটের আদিতমারীতে জমি নিয়ে পুর্ব শত্রুতার বিরোধের জেরে চাচাতো ভাইয়ের হাতে কামরুজ্জামান ওরফে আলি(৫২) নামে একজনের মৃত্যু হয়েছে।

মঙ্গলবার (১০ মে) দুপুরের দিকে উপজেলার কমলাবাড়ী ইউনিয়নের চন্দনপাট এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। নিহতের ছোট ভাইয়ের দায়েরকৃত মামলায় তিনজকে গ্রেফতার করা হয়েছে।নিহত কামরুজ্জামান ওই এলাকার মৃত খাদেমুল্লাহর ছেলে বলে জানা যায়।

মামলা সূত্রে জানা যায়, জমিজমা নিয়ে উপজেলার কমলাবাড়ি ইউনিয়নের চন্দনপাঠ এলাকার কামরুজ্জামানের সাথে তারই চাচাতো ভাই নুর ইসলামের দীর্ঘদিন ধরে বিরোধ চলছিলো। এর আগে দফায় দফায় এটি নিয়ে স্থানীয় সালিশি বৈঠক হলেও কোন স্থায়ী সমাধান হয়নাই। এ সংক্রান্ত বিষয় নিয়ে থানায় অভিযোগ রয়েছে বলেও জানা যায়। এরই বিরোধের জেরে মঙ্গলবার দুপুরের দিকে কামরুজ্জামান নিজ ভুট্টাখেত থেকে ভুট্টা নিয়ে যাওয়ার সময় নুরুল ইসলাম, ফজলুল হক ও তার ভাই,স্ত্রী ও মেয়ে পথরোধ করে। তর্কাতর্কির এক পর্যায়ে উত্তেজনা শুরু হলে মারামারি লেগে যায়। এক পর্যায়ে বুকে ও গোপনাঙ্গে আঘাতের ফলে সেখানেই লুটিয়ে পড়ে। স্থানীয়রা তাকে উদ্ধার করে আদিতমারী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে আসলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করে।
এঘটনায় সন্ধায় নিহতের ছোট ভাই সামসুজ্জামান ওরফে সামছুল আদিতমারী থানায় বাদী হয়ে নুরুল ইসলামকে প্রধান আসামী করে ১২ জনের নামে মামলা দায়ের করেন। পরে পুলিশ অভিযান চালিয়ে তিনজনকে গ্রেফতার করেন।
গ্রেফতারকৃতরা হলেন, ওই এলাকার ফজলুল হকের স্ত্রী নাজমা বেগম (৩২), নুর ইসলামের স্ত্রী হামিদা বেগম (৪৫), ও নুর ইসলামের মেয়ে আকলিমা বেগম (২২)।

এ বিষয়ে আদিতমারী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি তদন্ত) মোজাম্মেল হক বলেন, মরদেহ ময়নাতদন্তের জন্য মর্গে প্রেরণ করা হয়েছে। এ ঘটনায় নিহতের ছোট ভাইয়ের দায়েরকৃত মামলায় তিনজনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। বাকি আসামীদের গ্রেফতারে অভিযান অব্যাহত রয়েছে।

👉 নিউজবিজয় ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন ✅

আপনার সোস্যাল মিডিয়ায় শেয়ার দিন।

NewsBijoy24.Com

নিউজবিজয়২৪.কম একটি অনলাইন নিউজ পোর্টাল। বস্তুনিষ্ঠ ও তথ্যভিত্তিক সংবাদ প্রকাশের প্রতিশ্রুতি নিয়ে ২০১৫ সালের ডিসেম্বর মাসে এটি প্রতিষ্ঠিত হয়। উৎসর্গ করলাম আমার বাবার নামে, যাঁর স্নেহ-সান্নিধ্যের পরশ পরিবারের সুখ-দু:খ,হাসি-কান্না,ব্যথা-বেদনার মাঝেও আপার শান্তিতে পরিবার তথা সমাজে মাথা উচুঁ করে নিজের অস্তিত্বকে মেলে ধরতে পেরেছি।

খুলনায় আওয়ামী লীগ নেতাসহ গুলিবিদ্ধ ৩

prayer-image
  • ফজর
  • যোহর
  • আছর
  • মাগরিব
  • এশা
  • সূর্যোদয়
  • ৪:৩০ পূর্বাহ্ণ
  • ১২:০৫ অপরাহ্ণ
  • ৪:৩২ অপরাহ্ণ
  • ৬:২৪ অপরাহ্ণ
  • ৭:৩৯ অপরাহ্ণ
  • ৫:৪৩ পূর্বাহ্ণ


আদিতমারীতে জমি নিয়ে বিরোধের জেরে ভাইয়ের হাতে ভাই খুন: গ্রেফতার তিন

প্রকাশিত সময় :- ১০:৩৯:২৭ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ১০ মে ২০২২

লালমনিরহাটের আদিতমারীতে জমি নিয়ে পুর্ব শত্রুতার বিরোধের জেরে চাচাতো ভাইয়ের হাতে কামরুজ্জামান ওরফে আলি(৫২) নামে একজনের মৃত্যু হয়েছে।

মঙ্গলবার (১০ মে) দুপুরের দিকে উপজেলার কমলাবাড়ী ইউনিয়নের চন্দনপাট এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। নিহতের ছোট ভাইয়ের দায়েরকৃত মামলায় তিনজকে গ্রেফতার করা হয়েছে।নিহত কামরুজ্জামান ওই এলাকার মৃত খাদেমুল্লাহর ছেলে বলে জানা যায়।

মামলা সূত্রে জানা যায়, জমিজমা নিয়ে উপজেলার কমলাবাড়ি ইউনিয়নের চন্দনপাঠ এলাকার কামরুজ্জামানের সাথে তারই চাচাতো ভাই নুর ইসলামের দীর্ঘদিন ধরে বিরোধ চলছিলো। এর আগে দফায় দফায় এটি নিয়ে স্থানীয় সালিশি বৈঠক হলেও কোন স্থায়ী সমাধান হয়নাই। এ সংক্রান্ত বিষয় নিয়ে থানায় অভিযোগ রয়েছে বলেও জানা যায়। এরই বিরোধের জেরে মঙ্গলবার দুপুরের দিকে কামরুজ্জামান নিজ ভুট্টাখেত থেকে ভুট্টা নিয়ে যাওয়ার সময় নুরুল ইসলাম, ফজলুল হক ও তার ভাই,স্ত্রী ও মেয়ে পথরোধ করে। তর্কাতর্কির এক পর্যায়ে উত্তেজনা শুরু হলে মারামারি লেগে যায়। এক পর্যায়ে বুকে ও গোপনাঙ্গে আঘাতের ফলে সেখানেই লুটিয়ে পড়ে। স্থানীয়রা তাকে উদ্ধার করে আদিতমারী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে আসলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করে।
এঘটনায় সন্ধায় নিহতের ছোট ভাই সামসুজ্জামান ওরফে সামছুল আদিতমারী থানায় বাদী হয়ে নুরুল ইসলামকে প্রধান আসামী করে ১২ জনের নামে মামলা দায়ের করেন। পরে পুলিশ অভিযান চালিয়ে তিনজনকে গ্রেফতার করেন।
গ্রেফতারকৃতরা হলেন, ওই এলাকার ফজলুল হকের স্ত্রী নাজমা বেগম (৩২), নুর ইসলামের স্ত্রী হামিদা বেগম (৪৫), ও নুর ইসলামের মেয়ে আকলিমা বেগম (২২)।

এ বিষয়ে আদিতমারী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি তদন্ত) মোজাম্মেল হক বলেন, মরদেহ ময়নাতদন্তের জন্য মর্গে প্রেরণ করা হয়েছে। এ ঘটনায় নিহতের ছোট ভাইয়ের দায়েরকৃত মামলায় তিনজনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। বাকি আসামীদের গ্রেফতারে অভিযান অব্যাহত রয়েছে।