ঢাকা ১২:৩৪ পূর্বাহ্ন, শনিবার, ২০ এপ্রিল ২০২৪, ৬ বৈশাখ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

ঈদ মোবারক

আত্মহত্যাকারীর জানাজা পড়া যাবে কি?

  • ইসলাম ডেস্ক
  • প্রকাশিত সময় :- ১২:১৩:২৭ পূর্বাহ্ন, রবিবার, ২৫ ফেব্রুয়ারী ২০২৪
  • ২৪২ পড়া হয়েছে। নিউজবিজয় ২৪.কম-১৫ ডিসেম্বরে ৯ বছরে পর্দাপন

আত্মহত্যা একটি কবিরা গুনাহ বা বড় পাপ। আত্মহত্যাকারী কবিরা গুনাহে লিপ্ত হওয়ার কারণে পাপী ও ফাসেক; কিন্তু সে কাফের নয়। তাই তার জানাজা পড়তে হবে। বর্ণিত রয়েছে, ইবরাহিম নাখঈকে (রহ.) প্রশ্ন করা হয়েছিল, আত্মহত্যাকারীর জানাজা পড়া যাবে কি না। তিনি উত্তরে বলেছিলেন, হ্যাঁ, তার জানাজা পড়াটাই সুন্নাহ অর্থাৎ নবিজি (সা.) ও তার সাহাবীদের সময় থেকে চলে আসা রীতি। (মুসান্নাফে ইবনে আবী শাইবা: ১১৯৯০)

তবে সাধারণ জনগণের মাধ্যমে আত্মহত্যাকারীর জানাজা আদায়ের ব্যবস্থা হলে, নামাজ পড়ানোর উপযুক্ত ব্যক্তি থাকলে সমাজের অনুসরণীয় বড় আলেম ও নেতৃস্থানীয়দের উচিত তার জানাজায় অংশগ্রহণ না করা। যেন অন্যরা বুঝতে পারে আত্মহত্যা একটি গর্হিত ও বড় পাপ; এটা থেকে বিরত থাকতে হবে।

জাবের ইবনে সামুরা (রা.) থেকে বর্ণিত আছে, এক ব্যক্তি ধারালো বস্তু দিয়ে আত্মহত্যা করলে তার ব্যাপারে আল্লাহর রাসুল (সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম) বলেছিলেন,

أَمَا أَنَا فَلَا أُصَلِّي عَلَيْهِ.
আমি তার জানাজা পড়ব না। (আস-সুনানুল কুবরা লিন-নাসাঈ: ২১০২)

নিউজবিজয়২৪/এফএইচএন

👉 নিউজবিজয় ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন ✅

আপনার সোস্যাল মিডিয়ায় শেয়ার দিন।

NewsBijoy24.Com

নিউজবিজয়২৪.কম একটি অনলাইন নিউজ পোর্টাল। বস্তুনিষ্ঠ ও তথ্যভিত্তিক সংবাদ প্রকাশের প্রতিশ্রুতি নিয়ে ২০১৫ সালের ডিসেম্বর মাসে এটি প্রতিষ্ঠিত হয়। উৎসর্গ করলাম আমার বাবার নামে, যাঁর স্নেহ-সান্নিধ্যের পরশ পরিবারের সুখ-দু:খ,হাসি-কান্না,ব্যথা-বেদনার মাঝেও আপার শান্তিতে পরিবার তথা সমাজে মাথা উচুঁ করে নিজের অস্তিত্বকে মেলে ধরতে পেরেছি।

নাটোরে পূর্ব শত্রুতার জেরে যুবককে কুপিয়ে হত্যার অভিযোগ!

আত্মহত্যাকারীর জানাজা পড়া যাবে কি?

প্রকাশিত সময় :- ১২:১৩:২৭ পূর্বাহ্ন, রবিবার, ২৫ ফেব্রুয়ারী ২০২৪

আত্মহত্যা একটি কবিরা গুনাহ বা বড় পাপ। আত্মহত্যাকারী কবিরা গুনাহে লিপ্ত হওয়ার কারণে পাপী ও ফাসেক; কিন্তু সে কাফের নয়। তাই তার জানাজা পড়তে হবে। বর্ণিত রয়েছে, ইবরাহিম নাখঈকে (রহ.) প্রশ্ন করা হয়েছিল, আত্মহত্যাকারীর জানাজা পড়া যাবে কি না। তিনি উত্তরে বলেছিলেন, হ্যাঁ, তার জানাজা পড়াটাই সুন্নাহ অর্থাৎ নবিজি (সা.) ও তার সাহাবীদের সময় থেকে চলে আসা রীতি। (মুসান্নাফে ইবনে আবী শাইবা: ১১৯৯০)

তবে সাধারণ জনগণের মাধ্যমে আত্মহত্যাকারীর জানাজা আদায়ের ব্যবস্থা হলে, নামাজ পড়ানোর উপযুক্ত ব্যক্তি থাকলে সমাজের অনুসরণীয় বড় আলেম ও নেতৃস্থানীয়দের উচিত তার জানাজায় অংশগ্রহণ না করা। যেন অন্যরা বুঝতে পারে আত্মহত্যা একটি গর্হিত ও বড় পাপ; এটা থেকে বিরত থাকতে হবে।

জাবের ইবনে সামুরা (রা.) থেকে বর্ণিত আছে, এক ব্যক্তি ধারালো বস্তু দিয়ে আত্মহত্যা করলে তার ব্যাপারে আল্লাহর রাসুল (সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম) বলেছিলেন,

أَمَا أَنَا فَلَا أُصَلِّي عَلَيْهِ.
আমি তার জানাজা পড়ব না। (আস-সুনানুল কুবরা লিন-নাসাঈ: ২১০২)

নিউজবিজয়২৪/এফএইচএন